channel 24

সর্বশেষ

  • করোনায় দেশে নতুন করে শনাক্ত ২: আইইডিসিআর

  • করোনা উপসর্গ নিয়ে লক্ষ্মীপুরে বৃদ্ধের মৃত্যু

  • করোনা: আইডেশি ল্যাবে পিসিআর টেস্টের মাধ্যমে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে মিলবে ফল

  • করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় নিউইয়র্কে ১৮ বাংলাদেশির মৃত্যু

  • রাঙামাটিতে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

  • নওগাঁয় পুলিশের সাথে 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ২

  • পুলিশ হেফাজতে মৃত্যু: বরগুনার আমতলী থানার ওসির বিরুদ্ধে মামলা

  • ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের ৩৬ হাজার কর্মীকে বরখাস্তের ঘোষণা

  • 'এ মাসের মধ্যেই করোনার অ্যান্টিবডি পরীক্ষা সম্ভব'

  • সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান ডিলু মারা গেছেন

  • ইসরাইলের স্বাস্থ্য মন্ত্রী এবং তার স্ত্রী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

  • এশিয়ার বৃহত্তম বস্তিতে ১জনের মৃত্যু, ৭ জনকে কোয়ারেন্টিনে

  • যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে একদিনে রেকর্ড ১২৮২ জনের মৃত্যু

  • ইউরো, অলিম্পিকের পর এবার বাতিল উইম্বলডন

  • লকডাউনের অচেনা নগরীতে নেই ছিনতাইকারীর আতঙ্ক, প্রতিনিয়ত টহলে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী

দুদক কেবল হ্যারিকেন লাগিয়ে বিএনপিকে খুঁজছে: রিজভী

দুদক কেবল হ্যারিকেন লাগিয়ে বিএনপিকে খুঁজছে: রিজভী

সরকারের মন্ত্রী এমপিরা লুটেরাতে পরিণত হলেও দুদক কেবল বিএনপিকে খুঁজছে। মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) সকালে নয়াপল্টনে এক ব্রিফিং এমন অভিযোগ করেন, দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, দেশের চারদিকে লুটপাটের মহামারী চলছে। সরকারের লোকজন যে যেভাবে পারছে বেপরোয়াভাবে লুটে নিচ্ছে জনগণের অর্থ সম্পদ। আওয়ামী লুটপাটের বড় খাত কেবল শেয়ারবাজারে সীমাবদ্ধ নেই। ব্যাংকগুলো একটির পর একটি দেউলিয়া করার পর এখন জনগণের পকেট কাটতে সরকার একটির পর একটি নতুন ব্যাংক অনুমোদন দিচ্ছে। ব্যাংকে ব্যাংকে সয়লাব এখন দেশ।

অভিযোগ করে রিজভী বলেন, রোববারও আওয়ামী লীগের এক নেতার নামে বেঙ্গল কমার্শিয়াল নামে একটি ব্যাংক অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এ ব্যাংকগুলো করা হচ্ছে জনগণের পকেট কাটার জন্য। একদিকে যেমন ঋণ নিয়ে চলছে সরকার, পাশাপাশি বিভিন্ন স্বায়ত্তশাসিত এবং সেক্টর করপোরেশনের উদ্বৃত্ত অর্থ তুলে নিয়ে যাচ্ছে সরকার জোর করে। এর পাশাপাশি শুরু হয়েছে ব্যাংক নিয়ে নতুন খেলা।

তিনি বলেন, অর্থ সম্পদ গচ্ছিত রাখার ব্যাংক এখন রীতিমত আতঙ্কে পরিণত হয়েছে। অন্যদিকে নতুন করে আইন বানানো হচ্ছে- কোনো ব্যাংক দেউলিয়া হয়ে গেলে আমানতকারীর যত আমানতই থাকুক না কেনো, মাত্র ১ লাখ বীমার টাকা দেয়া হবে।

বিএনপির এ মুখপাত্র বলেন, একদিকে ক্ষমতাসীন দলের ব্যবসায়ীরা ওপর মহলের সহযোগিতায় ব্যাংক খুলে বসে আছে। জনগণ টাকা জমা দিলে সেগুলো মেরে খাচ্ছে সরকার এবং ব্যাংকের মালিকরা। আর ব্যাংক বন্ধ করে দিলে গ্রাহকের শত কোটি টাকার ব্যালেন্স থাকলেও তাকে বীমার ১ লাখ টাকা দিয়ে বিদায় করে দেয়া হবে! কি ভয়ঙ্কর অবস্থা। এটা তো রীতিমত রাক্ষস রাজ্যে পরিণত করা হয়েছে।

রিজভী বলেন, রাজনৈতিক স্টান্ডবাজি করতে গিয়ে এ নিশিরাতের লুটেরা যে বিশাল বাজেট তৈরি করেছিল, তার জন্য অর্থের সংস্থান করতে পারছে না। আমদানি-রফতানি মুখ থুবড়ে পড়েছে, রাজস্ব আয় কম হচ্ছে, সঞ্চয়পত্র থেকে আয় চলে এসেছে নগণ্য পর্যায়ে, ফলে সরকার চলছে ব্যাংক থেকে টাকা ধার করে। এ বছর বাজেটের লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী ব্যাংক থেকে সরকারের ঋণ গ্রহণের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৪৭ হাজার ৩৬৩ কোটি টাকা। অথচ অর্থবছরের ছয় মাসের মধ্যেই সেই লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে ব্যাংক থেকে ঋণ নেয়া হয়েছে ৫১ হাজার ৭৪১ কোটি টাকা। বাকি ৬ মাসে কী অবস্থা হবে তা সহজেই অনুমেয়। ১০ বছরে ব্যাংকের কাছে সরকারের নিট ঋণ প্রায় ২ লাখ কোটি টাকা। এ টাকা আর পরিশোধ করবে না সরকার।

দুদকের কড়া সমালোচনা করে বিএনপির এ শীর্ষনেতা বলেন, দুদক নামের দলকানা এক প্রতিষ্ঠান আছে তারা হারিকেন দিয়ে শুধু বিরোধীদলের লোকজনদের খুঁজতে খুঁজতে দিনরাত পার করে। সরকারের মন্ত্রী-এমপিরাই এখন লুটতরাজের একেকজন সর্দারে পরিণত হয়েছে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দি রেখে বিনা ভোটে ক্ষমতা দখলে রেখে সরকারের টপ টু বটম লুটের টাকার ভাগবাটোয়ারা নিয়ে ব্যস্ত। পত্রিকায় প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, কোনোরকম যাচাই-বাছাই ছাড়াই এক ব্যাংকের পরিচালকরা আরেক ব্যাংক থেকে ঋণ নিচ্ছেন ইচ্ছা মতো।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর