channel 24

সর্বশেষ

  • মাত্র ২৫ হাজার টাকা ঋণ নিয়ে শুরু করা কারখানায় কাজ করছে ২০০ শ্রমিক

  • ভারতে নারী পাচারকারী চক্রের ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি

  • জ্বালানি খাতের প্রতিষ্ঠান লুব-রেফ এর আইপিও অনুমোদন

  • বেসরকারি মেডিকেলে ২৫ ভাগের বেশি পার্টটাইম শিক্ষক রাখা যাবে না

  • আটকা পড়া প্রবাসীদের পাঠানোর বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে নির্দেশ

  • করোনায় দেশে আরও ৩২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৪০৭

  • ভদ্রবেশি অপরাধীদের জন্য সাহেদের বিরুদ্ধে রায় সতর্কবার্তা: আদালতের পর্যবেক্ষণ

  • আপাতত শ্রীলঙ্কা সফরে যাচ্ছে না বাংলাদেশ

  • ইতালিয়ান লিগে জুভেন্টাসের ড্র

  • ভার্ডির হ্যাটট্রিকে ম্যান সিটিকে লজ্জার হার উপহার দিলো লেস্টার

  • স্পেনে জয়ে শুরু বার্সেলোনার

  • সাহারা খাতুন ও মোহাম্মদ নাসিমের আসনে উপনির্বাচন ১২ নভেম্বর

  • টানা বৃষ্টিতে জলাবদ্ধ রংপুর নগরে মানুষ

  • ৭৫ পরবর্তী রাজনীতিতে সবচেয়ে সফল ডিপ্লোমেটিক শেখ হাসিনা

  • নানা আয়োজনে পালিত হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ৭৪তম জন্মদিন

করোনার প্রভাবে গতি হারাচ্ছে পদ্মাসেতুর কাজ

করোনার প্রভাবে গতি হারাচ্ছে পদ্মাসেতুর কাজ

করোনা ভাইরাসের প্রভাবে কিছুটা হলেও গতি হারাচ্ছে পদ্মা প্রকল্পের কাজ। এই সংকট দীর্ঘমেয়াদি হলে ক্ষতিগ্রস্ত হবে পুরো প্রকল্প। ফলে, পদ্মাসেতু শেষ হতে সময় লাগতে পারে আরো বেশি। প্রায় ১ হাজার চীনা নাগরিক এই প্রকল্পে কাজ করছে জানিয়ে প্রকল্প পরিচালক বলছেন, সদ্য চীন থেকে ফিরে আসা ৩২ জনকে রাখা হয়েছে বিশেষ নজরদারিতে। আর ছুটিতে থাকা শ দুয়েক কর্মীর বিষয়েও সতর্ক কর্তৃপক্ষ।

পদ্মা নদীর বুকে বাস্তবায়ন হওয়া প্রায় চার বিলিয়ন ডলারের এই প্রকল্পের কাজ শেষ হয়ে গেছে সিংহভাগ। মূল সেতু দেখা যাচ্ছে অর্ধেকের বেশি। প্রতি মাসে গড়ে তিনটি করে উঠছে দেড়শ মিটার দৈর্ঘ্যের স্প্যান। কিন্তু, সপ্তাহ দুয়েক আগে, চীনে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ দুশ্চিন্তায় ফেলে দিয়েছে বাস্তবায়নকারী কর্তৃপক্ষকে।

এই প্রকল্পের প্রধান দুই অংশ বাস্তবায়ন করছে চীনা প্রতিষ্ঠান মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি এবং সিনোহাইড্রো। যারা সেদেশ থেকে নিয়ে এসেছে হাজার খানেক কর্মী। সম্প্রতি চীনে নতুন বছরের ছুটি কাটাতে তাদের সিংহভাগই যান সেদেশে। এরই মধ্যে ফিরেও এসেছেন কয়েকজন। কিন্তু, দুশ্চিন্তা বাড়াচ্ছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। যা নিয়ে সেতু বিভাগের সাথে জরুরি সভাও করেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানগুলো।

এখনো নদীর বুকে বসাতে হবে, ৬টি খুঁটি বা পিয়ার। যেজন্য সময়সীমা, আগামী এপ্রিল। তাছাড়া, নদী শাসনের কাজও বাকি এক তৃতীয়াংশের বেশি। কিন্তু, এখনো শ দুয়েক কর্মী চীনে থাকায়, প্রত্যাশা অনুযায়ী এগুচ্ছে না কাজকর্ম। তাছাড়া, ৩২ জনকে বিশেষ ব্যবস্থায় রাখার কারণে, তারাও সরাসরি অংশ নিতে পারছেন না মাঠ পর্যায়ের কাজে। ফলে, খানিকটা হলেও গতি হারিয়েছে পদ্মা প্রকল্প। এমন অবস্থায়, এই সঙ্কট দীর্ঘায়িত হলে দুশ্চিন্তা বাড়বে সেতু বিভাগের।

পদ্মা ছাড়াও, বিদ্যুৎ, সড়কসহ আরো বেশ কয়েকটি বড় প্রকল্পে কাজ করছেন বহু চীনা নাগরিক।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর