channel 24

সর্বশেষ

  • বান্দরবানে সন্ত্রাসীদের গুলিতে আ.লীগ নেতা নিহত

  • শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসানের সহযোগী গ্রেপ্তার

  • বিসিএলের ফাইনালে বড় সংগ্রহের পথে সাউথ জোন

  • ফরিদপুরে মোতালেব হোসেন বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

  • ঢাকা টেস্টের প্রথম দিনে নাঈম হাসানের ৪ উইকেট

  • স্কাউটের জনক লর্ড ব্যাডেন পাওয়েলের ১৬৩তম জন্মবার্ষিকী পালিত

  • সিলেটে জীববিজ্ঞান উৎসব অনুষ্ঠিত

  • পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় লঞ্চ ডুবির পাঁচ বছর আজ

  • বসুন্ধরা বিটুমিন প্লান্টের যাত্রা শুরু

  • 'তথ্য প্রবাহে অযাচিত হস্তক্ষেপে গুজবের মাধ্যমে সুবিধা পায় উগ্রবাদীরা'

  • চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল আড়াইশো শয্যার দাবিতে মানববন্ধন

  • সিলেটে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২

  • কচুরিপানা খাবারের উপযোগী কি না পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

  • করোনাভাইরাস: দক্ষিণ কোরিয়া জুড়ে আতঙ্ক, শঙ্কায় প্রবাসী বাংলাদেশিরা

  • বঙ্গবন্ধুর নির্দেশেই ৫২'র ২১ ফেব্রুয়ারি ছাত্র ধর্মঘট ডাকা হয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী

সিপিবির সমাবেশে বোমা হামলায় ১০ জনের মৃত্যুদণ্ড

সিপিবির সমাবেশে বোমা হামলায় ১০ জনের মৃত্যুদণ্ড

২০০১ সালে রাজধানীর পল্টনে, সিপিবির সমাবেশে বোমা হামলা ও হত্যা মামলায় ১০ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। খালাস দেয়া হয়েছে দুজনকে। কিছুক্ষণ আগে ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালত এই রায় দেন। তবে ৮ জন আসামি এখনও পলাতক।

২০০১ সালে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সমাবেশে বোমা হামলার ঘটনায়, ১৯ বছর পর রায় ঘোষণা করেন ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালত।

এই রায় ঘিরে আদালত পাড়ায় চিলো কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা। সকাল সাড়ে দশটার দিকে ৪ আসামীকে তোলা হয় এজলাসে। মামলায় মোট ১৩ জন আসামী হলেও একজনের সাজা আগেই কার্যকর হওয়ায় ১২ জনের বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা করেন আদালত। ১০ জনের সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদণ্ড ও দুই জনকে খালাস দেন আদালত। রায়ের পর্যবেক্ষণে বলায় হয়, এধরণের ঘটনা অনাকাঙ্খিত, দেশে মৌলবাদী শক্তি প্রতিষ্ঠার জন্য এমন হামলা করা হয়েছিলো।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আব্দুল্লাহ আবু বলেন, আসামিরা সিরিজ বোমা হামলার সাথে জড়িত। একের পর এক তাঁরা এইসব ঘটনা ঘটিয়েছে এবং নিরীহ মানুষকে হত্যা করেছে। এজন্যই তাঁদের সর্বোচ্চ শাস্তি দেওয়া উচিত এবং সেটাই আজ হয়েছে।

তদন্ত কর্মকর্তা মৃণাল কান্তি সাহা বলেন, তদন্ত ও সাক্ষ্য প্রমাণে যাদের বিরুদ্ধে প্রমাণ হয়েছে আমি তাঁদেরি চার্জশীট দিয়েছি।

আর আসামী পক্ষের আইনজীবী ফারুক আহমদ জানান, ১৬৪ ধারায় জাবানবন্দি নিয়ে এ ধরণের রায় দেয়া ঠিক হয়নি।

রায় ঘোষণার পর কড়া নিরাপত্তায় আসামীদের প্রিজন ভ্যানে তুলে কারাগারে নেয়া হয়।

পুরো রায় দেখার পর আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানানোর কথা বলেছেন, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম। তিনি বলেন, এই রায় দারাই সব কিছু শেষ হয়ে যাচ্ছে না। পরষ্পর দ্বন্ধের যে জায়গায় চলে গেছে, দেশকে সেখান থেকে মুক্ত করতে না পারলে এই ধরণের ঘটনা পুনঃরায় ঘটতে পারে।

এদিকে ১৯ বছর আগে বোমা হামলায় নিহতদের স্মরণে পল্টনে মুক্তিভবনের সামনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় বিভিন্ন সংগঠন। সেই বোমা হামলায় ৫জন নিহত আর আহত হয়েছিলেন বেশ কয়েকজন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর