channel 24

সর্বশেষ

  • সাভারে স্কুলছাত্রী নীলা হত্যা মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

  • ১৯৭৪ সালের এই দিনে জাতিসংঘে প্রথম বাংলায় ভাষণ দেন বঙ্গবন্ধু

  • বাফুফে নির্বাচন: সাবেকদের চাওয়া ফুটবলের তৃণমূলের উন্নয়ন

  • অনিশ্চিত শ্রীলঙ্কা-বাংলাদেশ সিরিজের ভবিষ্যৎ

  • ফুটবল নির্বাচনে নিরব বিপ্লবের প্রত্যাশায় সমন্বয় পরিষদ

  • বিড়ম্বনা কাটছে না সৌদি প্রবাসীদের, টিকিট পেলেও করোনা পরীক্ষা নিয়ে সংশয়

  • সিলেটে গরম চায়ে ছাত্রের শরীর ঝলসে দিলো শিক্ষক

  • প্রকৃতি সেজেছে শুভ্রতার চাদরে

  • সাভারে নীলা খুনের বিচার না হলে আত্মহত্যার হুমকি বাবার

  • ফের বাড়ছে বিভিন্ন নদ নদীর পানি

  • 'নুর ধর্ষক নয়, ধর্ষকদের বিচার না করায় তাকে অভিযুক্ত করা হয়েছে'

  • মানিকগঞ্জে স্কুল ছাত্রী নীলা হত্যাকারীর ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

  • গোপালগঞ্জে মাকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে ছেলে গ্রেপ্তার

  • করোনায় দেশে আরও ২১ জনের মুত্যু

  • পেঁয়াজের ভূতের আছর পড়েছে চালের বাজারে

থানায় পুলিশের নির্যাতনে বিএফডিসি কর্মী নিহতের অভিযোগ

থানায় পুলিশের নির্যাতনে বিএফডিসি কর্মী নিহতের অভিযোগ

রাজধানীর শিল্পাঞ্চল থানায় পুলিশের নির্যাতনে বিএফডিসি কর্মী নিহতের অভিযোগ ওঠেছে। নিহতের পরিবারের অভিযোগ, গতকাল রাতে এক নারীর যৌন হয়রানীর মামলায় আবু বকরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। মধ্যরাতে থানায় মৃত্যুবরণ করেন তিনি। তবে পুলিশের দাবি, গলায় চাদর পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন আবু বকর।

আবু বকর সিদ্দীক দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে ফ্লোর ইনচার্জ হিসেবে কর্মরত ছিলেন বিএফডিসিতে। শনিবার রাতে এক নারীর যৌন হয়রানীর মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করে শিল্পাঞ্চল থানা পুলিশ।

এর কয়েক ঘণ্টার পর থানাতেই মারা যান আবু বকর সিদ্দীক। পুলিশের দাবি, গলায় চাদর পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। এক্ষেত্রে কারও গাফিলতি খতিয়ে দেখা হচ্ছে তাও।

তেজগাঁও জোন অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার রুবাইয়াত জামান বলেন, 'ওনি আমাদের পুলিশ হেফাজতে থাকা অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে। কিভাবে তার মৃত্যু হলো আমরা তা নিয়ে কাজ করছি।'

ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ রাখা হয়েছে ঢাকা মেডিকেলের মর্গে। সেখানে পরিবার সদস্যরা অভিযোগ করেন, পুলিশি নির্যাতনের কারণে মৃত্য হয়েছে আবু বকরের।

আবু বকরের স্ত্রী বলেন, 'পুলিশ হেফাজতে আত্মহত্যা করলো এটা মেনে নেয়া যায় না। আপনারা লাশ দেখলে বুঝতে পারবেন তার শরীরে কি পরিমাণে আঘাতের চিহ্ন।'

তবে পুলিশ বলছে, এ ঘটনায় সিটিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। তাতে নির্যাতনের কোনো প্রমাণ মেলেনি।

রুবাইয়াত জামান বলেন, হাজতখানাটা সিসিটিভির আওতাধীন। সে সময় কে ছিল, কি ঘটেছিল তা দেখার জন্য আমরা কাজ করেছি। কিন্তু তাতে নির্যাতনের কোনো প্রমাণ মেলেনি।

এ ঘটনায় এরইমধ্যে গঠন করা হয়েছে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি। যাদের আগামী তিনদিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর