channel 24

সর্বশেষ

  • ডা. সাবরিনার বিরুদ্ধে করা প্রতারণার মামলা ডিবিতে স্থানান্তর

  • ইন্টারন্যাশনাল প্রেস ফ্রিডম অ্যাওয়ার্ড পেলেন আলোকচিত্রী শহিদুল আলম

  • সগিরা মোর্শেদ হত্যা: হাইকোর্টে মারুফ রেজার জামিন আবেদন, শুনানি আজ

  • নুরুল ইসলাম বাবুলের বাদ যোহর জানাজা শেষে বনানীতে দাফন

  • করোনা পরিস্থিতি আরো খারাপ হতে পারে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হুশিয়ারী

  • করোনায় বিশ্বে আক্রান্ত ১ কোটি ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে

  • বগুড়া ১ ও যশোর ৬ আসনে ভোটগ্রহণ শুরু

  • অবনতি হচ্ছে দেশের বন্যা পরিস্থিতির

  • রিজেন্ট চেয়ারম্যান সাহেদের বিরুদ্ধে চট্টগ্রামে মামলা

  • মালদ্বীপে বকেয়া বেতনের দাবিতে পুলিশের সাথে শ্রমিকদের সংঘর্ষ, ৩৯ বাংলাদেশি আটক

  • পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি বিধায়কের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

  • থমকে যাওয়া সেই নৌপথে আবারও দুরন্ত গতিতে ছুটবে জলযান

  • সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

  • দু'বছর ধরে লাইসেন্স ছাড়াই লাজ ফার্মার ব্যবসা

  • জাভি হার্নান্দেজই হচ্ছেন বার্সেলোনার কোচ: ক্লাব প্রেসিডেন্ট

ভুয়া পরোয়ানার সঙ্গে শুধু পুলিশ নয়, আইনজীবীও জড়িত: হাইকোর্ট

ভুয়া পরোয়ানার সঙ্গে শুধু পুলিশ নয়, আইনজীবীও জড়িত: হাইকোর্ট

শুধু আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কতিপয় সদস্যই নয়, ভুয়া পরোয়ানা সৃজনের সঙ্গে কিছু আইনজীবীও জড়িত আছে বলে মন্তব্য করেছে হাইকোর্ট। আদালত বলেন, যার কারনে ভুয়া পরোয়ানা গ্রেপ্তার হয়ে নাগরিকদের হয়রানির বিষয়টি বন্ধ হচ্ছে না। এ সংক্রান্ত এক মামলার শুনানিকালে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ বুধবার এ মন্তব্য করেন।

এর আগে ভুয়া পরোয়ানায় গ্রেপ্তার হয়ে ৬৮ দিন কারাগারে থাকা আওলাদের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন আদালতে বলেন, ভুয়া পরোয়ানা সৃজনের সঙ্গে কারা জড়িত সেটা তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে সিআইডিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিলো। কিন্তু তারা বিষয়টি গুরুত্ব দিচ্ছে না।

তিনি বলেন, এই ভুয়া পরোয়ানা সৃজনের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কিছু সদস্য জড়িত আছে। ঢাকার নিম্ন আদালত থেকে প্রায়শই এই ভুয়া পরোয়ানা বের হয়। এটা বন্ধ হচ্ছে না। তখন হাইকোর্ট বলেন, কিভাবে বন্ধ হবে? এর সঙ্গে তো কিছু আইনজীবীও জড়িত আছে। জয়নুল বলেন, ভুয়া পরোয়ানার কারনে জনগণের হয়রানি বন্ধ হচ্ছে না। আপনাদের আদেশের ফলে দুই মাস জেল খেটে আমার মক্কেল কারাগার থেকে বেরিয়েছে। ভবিষ্যতে যেন আর কেউ হয়রানি না হয় সেটা নিশ্চিত করা দরকার।

এরপরই আদালতের জিজ্ঞাসার জবাবে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রোগ্রাম অফিসার আওলাদ হোসেন জানান, সাভারে এক লোকের সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। অনেকবার চেষ্টা করেই ওই ব্যক্তি আমার জমি দখল করতে পারেনি। হয়ত সেই বিরোধের সূত্রে এ ধরনের ভুয়া পরোয়ানা আমাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আদালত বলেন, সিআইডি পুলিশ আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করেছে? আওলাদ বলেন, আমি এবং আমার পরিবারের সঙ্গে কোন যোগাযোগ করেনি। এরপরই হাইকোর্ট সিআইডিকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়ে রবিবার পরবর্তী আদেশের জন্য দিন ধার্য রেখেছেন।

প্রসঙ্গত পৃথক পাচটি মামলায় ভুয়া পরোয়ানা দিয়ে আওলাদকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়। পরে এ নিয়ে হাইকোর্টে রিট করেন তার স্ত্রী। হাইকোর্ট তাকে মুক্তির নির্দেশ দেয়। একইসঙ্গে ভুয়া পরোয়ানা সৃজনের সঙ্গে কারা জড়িত তা তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে সিআইডিকে নির্দেশ দেয়। কিন্তু সিআইডি গতকাল পর্যন্ত ওই প্রতিবেদন হাইকোর্টে দাখিল করেনি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর