channel 24

সর্বশেষ

  • বিএনপি বহিরাগত অস্ত্রধারীদের ঢাকায় জড়ো করছে: কাদের

  • পাল্টে যাচ্ছে নীলফামারীর ভূমির প্রকৃতি

  • তাপসের পাশে সাঈদ খোকন

  • 'আমাদের পার্টি' বলতে পুলিশ সদস্য নিজ বাহিনীকেই বুঝিয়েছেন: সিইসি

  • প্রকল্প বাস্তবায়নে যন্ত্রপাতি চালানোর দক্ষ কর্মী আছে কি না, লক্ষ্য রাখার নির্দেশ

  • কৃষিতে জিপিএসের ব্যবহার!

  • বাঁধাকপির পুষ্টিগুণ

  • রাঙামাটিতে যুবলীগ নেতার পায়ের রগ কেটে দিলো দুর্বৃত্তরা

  • যেভাবে পানির গুনাগুণ ও অক্সিজেন বাড়িয়ে মাছের উৎপাদন বাড়ানো যায়

  • করোনা ভাইরাস: চট্টগ্রামের তিনটি হাসপাতালে খোলা হচ্ছে বিশেষ ইউনিট

  • রাউজানে বাস উল্টে ২ জন নিহত, আহত চুয়েটের দুই শিক্ষক

  • আবারও সূচকের ইতিবাচক ধারায় পুঁজিবাজার

  • শুরু হচ্ছে 'মিস আর্থ বাংলাদেশ'

  • স্কুলছাত্রী সীমাকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ৮ জনের মৃত্যুদণ্ড বহাল

  • ইভিএমে অনিয়ম হওয়ার সম্ভাবনা শুন্য: ইসি সচিব

রুম্পার মৃত্যু: পলাতক ছেলেবন্ধুকে খুঁজছে পুলিশ

রুম্পার মৃত্যু: পলাতক ছেলেবন্ধুকে খুঁজছে পুলিশ

স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রুবাইয়াত শারমিন রুম্পার মৃত্যুর কারণ এখনও নিশ্চিত নন ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক। তবে শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখে তিনি মনে করছে উপর থেকে পড়েই রুম্পার মৃত্যু হয়েছে। আর পুলিশ বলছে, রুম্পার পলাতক ছেলেবন্ধুকে ধরতে পারলে রহস্য জানা যাবে। এদিকে রুম্পাকে হত্যার অভিযোগ এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে তার পরিবার।

উই ওয়ান্ট জাস্টিস শনিবার সকাল থেকে এমন স্লোগানে মুখর হয়ে ওঠে স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধেশ্বরী ক্যাম্পাস।  রুবাইয়াত শারমিন রুম্পার মৃত্যুকে হত্যা দবি করে এর ন্যায়বিচার দাবি করেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক নাহিদ নিয়াজী বলেন, আমরা আশ্বস্থ হতে চাই এটির বিচার খুব দ্রুততার সাথে হবে। এবং আমরা ন্যায় বিচার চাই, এর পিছনে যারা আছে তাদের যেন কঠোর শাস্তির মুখোমুখি করা হয়।

স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মোহাম্মদ আলী নকি বলেন, এই বিষয়ে স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের যে ধরণের সহযোগিতা দরকার এই তদন্তে এবং প্রয়োজনে আমরা সেটা করবো এবং আমরা ভবিষ্যতে আরো বেশি করে বিভিন্ন ব্যবস্থা নেওয়ার চিন্তা করবো।

রুম্পার সহপাঠিরা জানান, ময়না তদন্ত ও ফরেনসিক রিপোর্ট পাওয়ার পর তারা আরও বড় আন্দোলন কর্মসূচি দেবেন। তারা জানান, আমরা খুব কাছ থেকে রুম্পাকে দেখেছি ও খুব প্রানচঞ্চল ছিল। কোনভাবেই সে আত্মহত্যা করতে পারে না।

একই দাবিতে মানববন্ধ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির ধানমন্ডির ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীরাও।

পুলিশের রমনা জোনের ডিসি মো. সাজ্জাদুর রহমান জানান, রুম্পা যে ভবন থেকে পড়ে গেছেন বা ফেলে দেয়া হয়েছে এরকম তিনটি বাড়িকে তারা সন্দেহ করছেন। ওই তিনটি বাড়ির যেকোনো একটিতে থাকতেন রুম্পার একজন বয়ফ্রেন্ড। ঘটনার পর থেকে ওই তরুণ পলাতক। তাকে ধরতে পারলেই রহস্য জানা যাবে। বলেন, প্রাথমিকভাবে তার যেই বয়ফেন্ড ছিল তাকে আমরা সন্দেহে রেখেছি। বয়ফেন্ড তার পাশেই থাকতো। তিনটি আঙ্গিকে আমরা আগাচ্ছি। এবং আশা করছি খুব দ্রুত আমরা রিপোর্টগুলো পাবো এবং আমরা আমাদের টার্গেট ব্যক্তিকে পেলেই রহস্য বেরিয়ে আসবে।

ঢাকা মেডিকেলের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ জানান, রুম্পার শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখে প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে, উপর থেকে পড়েই তার মৃত্যু হয়েছে। বলেন, যেহেতু এটা একটা ডেথবডি ছিল, তাই আমরা এটা বলতে পারছি না যে এটা ধর্ষণ হইছে কিনা। যতক্ষণ পর্যন্ত কেমিক্যাল এ্যানালাইসিস এবং মাইক্রোবায়োলজিক্যাল এ্যানালাইসিস রিপোর্ট আমাদের কাছে না আসবে এ ব্যাপারে আমরা চূড়ান্ত মতামত দিতে পারবো না।
 
রুম্মার মৃত্যুর পরে তার মরদেহ নিয়ে ময়মনসিংহে গ্রামের বাড়িতে চলে যান পরিবারের সদস্যরা। টেলিফোনে তার বাবাও হত্যার অভিযোগ এনে, ন্যায়বিচার দাবি করেছেন।

গত বুধবার রাতে রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরী সার্কুলার রোড থেকে রুম্পার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর