channel 24

সর্বশেষ

  • সার্জিক্যাল মাস্ক উৎপাদন ও বাজারজাত করছে মিনিস্টার

  • ঈদের পর অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট দলের বাছাই

  • যে ভাবে খুন হন পাঠাও'র সহ-প্রতিষ্ঠাতা ফাহিম সালেহ

  • ২১ নভেম্বর শুরু ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ

  • করোনায় সাবেক নৌপ্রধানের মৃত্যু

  • গভর্নর পদে ফজলে কবিরের মেয়াদ বাড়ল আরও ২ বছর

  • দল বদলায়, বদলায় সরকার; কিন্তু সাহেদ-রা থাকে ক্ষমতার বলয়ে

  • সরকারি বরিশাল কলেজের নাম পরিবর্তন, পক্ষে-বিপক্ষে গণস্বাক্ষর

  • শূন্য হাতে এসে বনে যান জাদুর শহরের বনেদি ক্লাবের সদস্য

  • ঈদে গণপরিবহন বন্ধ থাকার খবর নিয়ে বিভ্রান্তি; সিদ্ধান্ত কাল: কাদের

  • সাহেদের হাতে প্রতারিত অনেকের র‍্যাব সদরদপ্তরে ভিড়

  • আশুলিয়ায় করোনা জয়ী পুলিশ সদস্যদের সংবর্ধনা

  • চট্টগ্রাম বন্দরের কেমিক্যাল শেডে আগুন

  • মেঘনার ভাঙনে দিশেহারা নোয়াখালী ও লক্ষ্মীপুরের লাখো মানুষ

  • ঢাকা মেডিকেলে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে ডিবি কার্যালয়ে সাহেদ

বায়ুদূষণ ইস্যুতে ২ সিটি করপোরেশনকে তিরস্কার করলো আদালত

বায়ুদূষণ ইস্যুতে ২ সিটি করপোরেশনকে তিরস্কার করলো আদালত

১৫ দিনের মধ্যে ঢাকা, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ ও মানিকগঞ্জের অবৈধ ইটভাটা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) হাইকোর্ট এই নির্দেশ দেন।

বায়ুদূষণ নিয়ে এক রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট ঢাকার দুই সিটি করপোরশেনের নেয়া পদক্ষেপ জানতে চেয়েছিলেন আজ। কিন্তু সিটি করপোটেরশনের কথায় অসন্তুষ্ট আদালত বায়ুদূষণ রোধে ৫ দফা নির্দেশনা দিয়েছেন।

এর মধ্যে ঢাকার আশপাশের অবৈধ ইটভাটা বন্ধ, সড়কে নিয়মিত পানি ছিটানো ও রাস্তায় বা রাস্তার পাশের খোলা জায়গা থেকে নির্মাণ সামগ্রী অপসারণ অন্যতম।

সেইসাথে নির্দেশ দেয়া হয়েছে একটি আন্তঃবিভাগীয় কমিটি গঠনের। বায়ু দূষণরোধে কি পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে তা জানিয়ে আগামী ৫ জানুয়ারির মধ্যে আদলাতে রিপোর্ট দিতে হবে কমিটিকে।

ছয় ধরনের পদার্থ এবং গ্যাসের কারণে ঢাকায় দূষণের মাত্রা বেড়ে গেছে। এরমধ্যে ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ধূলিকণা অর্থাৎ পিএম ২.৫ এর কারণেই ঢাকায় দূষণ অতিমাত্রায় বেড়ে গিয়েছিল। বায়ু দূষণের সূচকে ঢাকার সূচক ৫০ হলে তা দূষণের পর্যায়ে পড়ে না। কিন্তু রবিবার (২৪ নভেম্বর) সূচক ছিল ২০০ থেকে ৩০০। সোমবার (১৫ নভেম্বর) সন্ধ্যায় সূচক ছিল ১৩৮।

ক্ষতিকর ছয় ধরনের পদার্থের মধ্যে প্রথমেই আছে পিএম (পার্টিকুলেটেড ম্যাটার) ২.৫ অথবা ২ দশমিক ৫ মাইক্রো গ্রাম সাইজের ক্ষুদ্র কণা। এরপর পিএম ১০ হচ্ছে সবচেয়ে বেশি।

জানা যায়, এই ধূলিকণার সাইজটা বোঝাতে হলে উদাহরণ হিসেবে বলতে হবে, মাথার চুলের ডায়ামিটারের ৬ ভাগের এক ভাগ হচ্ছে ২ দশমিক ৫। এটি এত ক্ষুদ্র যা খালিচোখে দেখা যায় না। বাকি চারটির মধ্যে আছে সালফার ডাই অক্সাইড, নাইট্রোজেন, কার্বন মনো অক্সাইড এবং সিসা। এই ছয় পদার্থ ও গ্যাসের ভগ্নাংশ গড় করেই বায়ুর সূচক নির্ধারণ করা হয়। সেই সূচককে বলা হয় এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর