channel 24

সর্বশেষ

  • রিজেন্ট হাসপাতাল ও জেকেজি সম্পর্কে জানা ছিল না: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • রিজেন্ট চেয়ারম্যান সাহেদের পাসপোর্ট জব্দ

  • লাভের আশায় গরু পালন করে দাম নিয়ে দুশ্চিন্তায় খামারীরা

  • আগামী মাসে মাঠে গড়াচ্ছে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ

  • আবারও মনোবিদ আজহার আলীর ওপর আস্থা বিসিবির

  • আগস্টের প্রথম সপ্তাহ থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফুটবল দলের আবাসিক ক্যাম্প

  • সাউদাম্পটন টেস্টে ৯৯ রানে পিছিয়ে ইংল্যান্ড

  • বিএফডিসিতে অসহায় শিল্পীদের সহায়তা করলেন অনন্ত-বর্ষা

  • সিলেটে বিষ খাইয়ে হত্যাচেষ্টা, মা-ছেলে কারাগারে

  • কুমিল্লায় ব্যবসায়ী আকতার হত্যার ঘটনায় মামলা

  • সাংবিধানিক কারণেই করোনার মধ্যে উপনির্বাচন: সিইসি

  • বানের জলে ডুবছে লোকালয়; সুরমা উপচে তলিয়েছে সুনামগঞ্জ শহর

  • এখনও অধরা রিজেন্ট কাণ্ডের নাটের গুরু সাহেদ

  • সাংবাদিকদের মাঝে করোনাকালীন সহায়তার চেক বিতরণ

  • অনলাইন থেকে গরু কিনলেন তিন মন্ত্রী

নতুন সড়ক আইনের কিছু বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী ভাবছেন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নতুন সড়ক আইনের কিছু বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী ভাবছেন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানোই সরকারের প্রধান লক্ষ্য। কিন্তু নতুন আইন প্রয়োগে বাড়াবাড়ি করা হবে না। এ কথা জানান, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, নতুন সড়ক আইনের কিছু বিষয় নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চিন্তাভাবনা করছেন। রাজধানীর রাজারবাগে ট্রাফিক পক্ষের উদ্বোধনে এ কথা জানান তিনি। আর পরিবহন মালিক নেতারা বলছেন, এখাতে অরাজতা সৃষ্টির করছে একটি মহল।

নতুন সড়ক আইনের কিছু ধারা সংশোধনের দাবিতে, কোনো ঘোষণা ছাড়াই বুধবার সারা দেশে ধর্মঘটের ডাক দেয়, ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। তারা অন্যান্য পরিবহন চলাচলেও বাধা দেয়। এতে ভোগান্তিতে পড়ে সাধারণ মানুষ। তবে বুধবার (২০ নভেম্বর) রাতেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় বৈঠকে বসেন মালিক শ্রমিক প্রতিনিধিরা। প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা বৈঠক শেষে ধর্মঘট প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয়া হয়।

নতুন সড়ক আইন নিয়ে যখন সড়কে অস্থিরতা, তখন কয়েক হাজার নিষিদ্ধ হাইড্রোলিক হর্ন ধ্বংসের মধ্য দিয়ে, রাজারবাগ পুলিশ লাইনে ট্রাফিক সচেতনামূলক পক্ষের উদ্বোধন হয়। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্লাহ বলেন, পরিবহন খাতে অরাজতা সৃষ্টির করছে একটি মহল।

তিনি আরও বলেন, পরিবহন সেক্টরকে অশান্ত করে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিল করার জন্য একটি মহল তৎপর। আমি মালিক এবং শ্রমিক ভাইদেরকে অনুরোধ করবো এ ধরণের গুজবে আতংকিত হবেন না।

এ সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, পরিবহন শ্রমিকদের ৯ দফা দাবি সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হয়েছে। তিনি বলেন, আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রায়শই বলে থাকেন এবং তিনি নির্দেশনা দিয়েছেন। একটা চালক আট ঘণ্টা গাড়ি চালানোর পর তাকে বাধ্যতামূলক বিশ্রাম নিতে হবে। মহসড়কে বিভিন্ন জায়গায় চালকদের বিশ্রামের জন্য বিশ্রামাগার তৈরির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা রয়েছে।

আর সড়কে আইন প্রয়োগে পুলিশকে ধৈর্যশীল আচরণের পরামর্শ দেন আইজিপি। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক স্বীকৃত রুলস হল দেশের ২৫% রাস্তা হতে হবে। আমাদের দেশে যার সংখ্যা মাত্র ৮%।

এদিকে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে দলটির সম্মেলন উপলক্ষে সাংস্কৃতিক উপকমিটির সভায় সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানোই সরকারের লক্ষ্য।

সড়ক পরিবহন আইন প্রয়োগে বিধিমালা তৈরির কাজ চলছে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর