channel 24

সর্বশেষ

  • ফুটবল ক্যাম্পে প্রথমবার যোগ দিলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তারিক কাজি

  • প্রেসিডেন্টস কাপে তরুনদের পারফরম্যান্সে মুগ্ধ র‍্যাডফোর্ড

  • রাজবাড়ীতে ১৫০ বছরের পুরানো মঠ ভেঙে পড়েছে

  • কুমিল্লা বাখরাবাদ গ্যাস ফিল্ডের ৬৩ জনকে একযোগে বদলি

  • অফিসে নারী-পুরুষের পোশাক নিয়ে নোটিশ দেয়ায় জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটকে শোকজ

  • রায়হান হত্যা: পুলিশ সদস্য হারুন ও এলাহী রিমান্ডে

  • দেশে করোনায় আক্রান্তের ২৩৬তম দিনে প্রাণহানি ২৫

  • খুলনায় রাশিদুল গাজী হত্যা মামলায় ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

  • নরসিংদীতে মাদ্রাসা থেকে পালাতে গিয়ে পাইপে আটকা পড়লো শিক্ষার্থী

  • বাংলাদেশের চাল উৎপাদন ২.৫ শতাংশ কমতে পারে: বিশ্বব্যাংক

  • ফিটনেস টেস্টে পাস করলেই কর্পোরেট টি-টোয়েন্টিতে খেলতে পারবেন সাকিব

  • ডিজিটাল তথ্যের নিরাপত্তায় নতুন আইনের কথা ভাবছে সরকার

  • বুটের ডালের পুষ্টিগুণ

  • ট্র্যাক্টর চালিত 'সিডবেড প্ল্যানটার' দিয়ে বীজতলা তৈরি

  • যুবতী রাধে গান বিতর্ক: এবার মামলা করবে সরলপুর ব্যান্ড

তল্লাশি না করতে র‌্যাবকে ১০ কোটির প্রস্তাব দেন জি কে শামীম

তল্লাশি না করতে র‌্যাবকে ১০ কোটির প্রস্তাব দেন জি কে শামীম

যুবলীগ নেতা ও প্রভাবশালী ঠিকাদার গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জি কে শামীমের নিকেতনের অফিস শুক্রবার ভোর থেকেই ঘিরে রাখে র‌্যাব। র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম নিকেতনে এলে একপর্যায়ে শুরু হয় অভিযান ও তল্লাশির প্রস্তুতি।

এসময় জি কে শামীম র‌্যাব কর্মকর্তাদের অভিযান ও তল্লাশি করতে বারণ করেন। অভিযান না করার পরিবর্তে র‍্যাবের এক কর্মকর্তাকে ১০ কোটি টাকা ঘুষ দেওয়ার প্রস্তাব দেন। তবে র‌্যাব তার প্রস্তাবে রাজি না হয়ে অভিযান চালায়। জব্দ করা হয় নগদ টাকা, সরঞ্জাম, এফডিআরসহ মাদক।

র‌্যাবের লিগ্যাল ও মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. সারওয়ার-বিন-কাশেম বলেন, ‘জি কে শামীম তার অফিস ও বাসায় অভিযান না চালাতে এবং গ্রেফতার এড়াতে আমাকে ১০ কোটি টাকার ঘুষ প্রস্তাব করেছিলেন। প্রস্তাব আমলে না নিয়ে আমরা জি কে শামীমের কার্যালয়ে অভিযান চালাই, তাকেসহ তার সাত দেহরক্ষীকে গ্রেফতার করি।’

তিনি আরও বলেন, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, মানি লন্ডারিংয়ের সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়। আদালত অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জি কে শামীমকে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। তিনি এখন ডিবি হেফাজতে রয়েছেন।

রিমান্ডে নেয়ার আগে শামীমকে জিজ্ঞাসাবাদে করে র‌্যাব। দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, জিজ্ঞাসাবাদের পর শামীম গণপূর্ত অধিদফতরের ২০ জন সাবেক সরকারি কর্মকর্তার নাম বলেছেন, যাদের মাসে ২-৫ লাখ টাকা দিতেন তিনি। সরকারি কর্মকর্তারা টাকার বদলে শামীমকে ঠিকাদারির কাজের টেন্ডার পেতে সাহায্য করতেন।

র‌্যাব সূত্র জানায়, ক্ষমতাসীন দলের ভুয়া পরিচয় দিয়ে চলাফেরা করতেন শামীম। তিনি একসময় বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাসের 'ডান হাত' হিসেবে পরিচিত ছিলেন। যুবদল ঢাকা মহানগরের সহ-সম্পাদকও ছিলেন তিনি। তবে ক্ষমতার পালাবদলে শামীমও তার পরিচয় বদলে ফেলেন। রাতারাতি ভোল পাল্টে আওয়ামী লীগ ও যুবলীগে ভিড়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর