channel 24

সর্বশেষ

  • বিদেশে বাংলাদেশিদের প্রাণহানি একশো ছাড়ালো

  • বিশ্বে প্রাণহানি ৭০ হাজার ছাড়ালো, যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর মিছিল শুধু দীর্ঘই হচ্ছে

  • করোনায় রুটি-রুজি হারানো মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন অনেকেই

  • ঝালকাঠিতে ইউপি সদস্যের বাসা থেকে ত্রাণের আড়াই টন চাল জব্দ

  • প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা প্যাকেজ শুভংকরের ফাঁকি: রিজভী

  • চট্টগ্রামে আরও ২৪ জন হোম কোয়ারেন্টিনে

  • ভারতে লকডাউনে থাকা আরও ৪৪ বাংলাদেশি দেশে ফিরেছেন

  • চট্টগ্রাম মহানগরে প্রবেশপথ বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ

  • করোনায় সংক্রমিত এলাকা ও আশপাশ সম্পূর্ণ লকডাউনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • কোন এলাকায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা কত

  • সব দোকানপাট সন্ধ্যা ৭টার মধ্যে বন্ধ করার নির্দেশ

  • সহায়তায় বাড়ছে ক্রীড়া তারকাদের অংশগ্রহণ

  • লিচু ফুল থেকে উৎপাদিত মধু বিক্রি করতে না পেরে বিপাকে মৌখামারীরা

  • ঢাকায় করোনায় আক্রান্ত ৬৪ জন

  • হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্ক নিজেরা তৈরি করে বিতরণ করছে রাজবাড়ী পুলিশ

মিয়ানমারে ফেরত যাবার বিষয়ে রোহিঙ্গাদের বোঝানোর চেষ্টা চলছে: পররাষ্ট্র সচিব

মিয়ানমারে ফেরত যাবার বিষয়ে রোহিঙ্গাদের বোঝানোর চেষ্টা চলছে: পররাষ্ট্র সচিব

২২ আগস্ট থেকে রোহিঙ্গারা ফেরা শুরু করবে নিজ দেশে। কিছুদিন আগে মিয়ামানের প্রত্যবাসন মন্ত্রীর বরাত দিয়ে এমন খবর দিয়েছিল বার্তা সংস্থা রয়টার্স। গত বছরের (২০১৮ সাল) ঠিক এই সময়টাতেই রোহিঙ্গাদের ফেরত যাবার তড়িঘড়ি দেখা গিয়েছিল, যদিও আজ অব্দি ফেরেননি একজনও। ফলে সত্যিকার অর্থেই কি হতে ফেরত যাচ্ছে রোহিঙ্গারা! এমন ধোয়াশার মাঝে চট্রগ্রামের অতিরিক্ত কমিশনার জানান, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সর্বোচ্চ প্রস্তুত বাংলাদেশ।

প্রত্যাবাসান চুক্তির প্রায় তিন বছর হতে চললেও অগ্রগতি সামান্যই। রোববার (১৮ আগস্ট) ঢাকায় বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্রাটেজিক স্টাডিসে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক জানান, রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরাতে ইউএনএইচসিআর এবং বাংলাদেশ সরকার এক সাথে কাজ করছে। তবে, ২২ আগস্ট  থেকে ফিরবে কি না এমন প্রশ্নের জবাব এড়িয়ে যান সচিব।

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, প্রত্যাবাসন বাংলাদেশের কাছে সবসময় অগ্রাধিকার বিষয়ে। বাংলাদেশ এ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। অনেকে রোহিঙ্গা সমস্যাকে বাংলাদেশ বনাম মিয়ানমারের সমস্যা বলে বর্ণনা করে। কিন্তু বিষয়টি তেমন নয়। এটি প্রকৃতপক্ষে মিয়ানমার এবং তাদের লোকদের মধ্যে সমস্যা।

তিনি আরও বলেন, পর্দার অন্তরালে অনেক কিছুই হচ্ছে। অনেক চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে সব চেষ্টা যে সফল হবে এমন নয়। আগামী কয়েক সপ্তাহে আমরা রোহিঙ্গাদের উৎসাহিত করবো, যাতে তারা নিজ দেশে ফিরে যায়।

একই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমানের দাবি, রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিকভাবে ব্যর্থ হয়েছে। তিনি বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান তিনটি। প্রথমটি প্রত্যাবাসন, পরেরটি পুনর্বাসন এবং সবশেষটি সমাজে আত্মস্থ করে নেওয়া।

ড. মিজানুর রহমান আরও বলেন, বাংলাদেশকে এ বিষয়ে আরও সচেষ্ট হতে হবে।

এদিকে রোবরার দুপুরে পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ে মিয়ানমার সরকার গঠিত তদন্ত কমিশনের একটি প্রতিনিধি দল দেখা করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমনের সাথে।

নিউজটির ভিডিও প্রতিবেদন-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর