channel 24

সর্বশেষ

  • নোয়াবের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় এ কে আজাদকে ফুলেল শুভেচ্ছা

  • চট্টগ্রামে রেলক্রসিংয়ে দুর্ঘটনার জন্য বাস চালক দায়ী: তদন্ত কমিটি

  • বিয়ের আগে যে বিষয়গুলো মাথায় রাখবেন

  • চাকরি দিচ্ছে বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আব্দুর রউফ পাবলিক কলেজ

  • অ স্ত্র প্রতিযোগিতা নয়, শান্তিপূর্ণ বিশ্ব গড়তে সম্পদ ব্যবহার করুন: প্রধানমন্ত্রী

  • নির্বাচন নিয়ে সহিংসতা দিনের পর দিন চলতে পারে না: নির্বাচন কমিশনার

  • পেগাসাস স্পাইওয়্যারের কার্যক্রম বন্ধে হাইকোর্টের রুল

  • ভাইকে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেই ফেঁসে গেল যুবক

  • স্বাস্থ্য সচিব-ডিজির বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল

  • নৌকার মনোনয়ন পাওয়ায় চেয়ারম্যানের ছেলের হাতবোমা বিস্ফোরণ করে উল্লাস

  • অর্থপাচারকারীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা তৈরিতে আইনের সংশোধন চায় দুদক

  • ঘূর্ণিঝড় ‘জাওয়াদ’: সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত

  • পুলিশ হেফাজত থেকে পালাল রোহিঙ্গা কালাম

  • বিমানবন্দরে আটকে দেয়া হলো জ্যাকুলিনকে

  • দেশের অর্থনৈতিক চাকা সচল রাখতে অবদান রাখছে নাভানা গ্রুপ

আঁচিল কেন হয় ও কীভাবে দূর করবেন

আঁচিল কেন হয় ও কীভাবে দূর করবেন

মানুষের দেহে এক অস্বস্তির নাম আঁচিল। সাধারণত মানুষের ঘাড়ে এর উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেলেও মুখের ত্বকেও দেখা দিতে পারে বিড়ম্বনাপূর্ণ এ ব্যাধি। আঁচিল আকারে ছোট, এক ধরণের বিনাইন টিউমার (যে সব টিউমার ক্যানসার সৃষ্টি করে না তাদের বিনাইন টিউমার বলা হয়। অর্থাৎ এই টিউমারগুলো আশেপাশের টিস্যুকে আক্রমণ করে না বা ছড়ায় না)। আঁচিল সাধারণত দীর্ঘস্থায়ী হয়। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ সেবন করলে আঁচিল থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তবে ওষুধ না খেয়েও কিছু ঘরোয়া উপায়ে আঁচিল দূর করতে পারেন।

আঁচিল কেন হয়?

আঁচিল ঠিক কি কারণে হয় তা এখনও জানা যায় নি। তবে কিছু উল্লেখযোগ্য কারণ লক্ষ্য করা যায়।

আঁচিল সাধারণত শরীরের ভাঁজে ভাঁজে অর্থাৎ যেখানে ত্বকে-ত্বকে অথবা কাপড়ের মাধ্যমে চামড়ায় ঘর্ষণ সৃষ্টি হয়, সে সব স্থানেই আঁচিল জন্মাতে দেখা যায়।

তুলনামূলকভাবে স্থূলকায় ব্যক্তিদের আঁচিল হওয়ার হার বেশি, কারণ তাদের শরীরের ভাঁজের সংখ্যাও বেশি।

আঁচিল এর সাথে ইনসুলিন নামক হরমোনের সম্পর্ক থাকতে পারে। গবেষণায় দেখা যায়, টাইপ-২ ডায়াবেটিস আক্রান্ত ব্যক্তিদের সুগার লেভেল বেশি থাকে এবং তাদের আঁচিল হওয়ার প্রবণতা বেশি হয়।

গর্ভবতী মায়েদের ক্ষেত্রে দ্বিতীয় ট্রাইমেস্টারে অর্থাৎ গর্ভকালীন সময়ের ১৩-২৭ সপ্তাহ বা চতুর্থ, পঞ্চম এবং ষষ্ঠ মাস পর্যন্ত সময় আঁচিল হতে দেখা যায়।

আঁচিল এর সাথে জিনগত একটা সম্পর্ক আছে। অর্থাৎ, একই পরিবারের অন্যান্য সদস্যেরও আঁচিল হতে দেখা যায়।

আঁচিল দূর করার ঘরোয়া উপায়

কলার খোসা
কলার খোসা ব্যবহার করে আঁচিল দূর করা যায়। কলার খোসার শুধু খোসার অংশটি বেটে দিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এরপর সেই পেস্ট আঁচিলের উপর লাগিয়ে রাতে শুয়ে পড়ুন। পরদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। কলার খোসায় অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আছে যা আঁচিল দূর করতে সাহায্য করে।

রসুন
রসুনের মাধ্যমেও সহজেই আঁচিল দূর করা যায়। কয়েকটি রসুনের কোয়া বেটে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি ত্বকের আঁচিলের উপর লাগিয়ে নিন। কিছুক্ষণ রেখে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। তবে বেশিক্ষণ রাখবেন না, ক্ষতি হতে পারে।

পেঁয়াজ
আঁচিল দূর করতে পেঁয়াজ বেশ কার্যকরী। পেঁয়াজ কুচি করে কেটে নিন। আধা চামচ লবণ মিশিয়ে সেই পেঁয়াজ কুচি সারাদিন ঢাকনা দিয়ে রেখে দিন। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এটি আঁচিলের উপর ব্যবহার করুন। পরদিন সকালে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। প্রতিরাতে এটি ব্যবহার করুন দেখবেন।

টি ট্রি অয়েল
ত্বকের যে কোন ইনফেকশন দ্রুত দূর করতে টি ট্রি অয়েলে বেশ কার্যকর। প্রথমে কিছু তুলো পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। এবার তুলো টি ট্রি অয়েলে ভিজিয়ে নিয়ে আঁচিলের উপর লাগান। কয়েক ঘন্টা এভাবে রেখে দিন। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি দিনে তিনবার ব্যবহার করলে উপকার পাওয়া যাবে।

অ্যালোভেরা জেল
অ্যালোভেরা জেলের উপকারিতার কথা বলে শেষ করা যাবে না। বলাই বাহুল্য এটি ত্বকের জন্যও বেশ উপকারী। আঁচিলের উপর কিছু পরিমাণ অ্যালোভেরা জেল লাগিয়ে ম্যাসাজ করুন। ত্বকে জেল শুকিয়ে না যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এরপর ধুয়ে ফেলুন। এভাবে দিনে তিনবার ব্যবহার করুন।

বেকিং পাউডার ও ক্যাস্টর অয়েল
ক্যাস্টর অয়েল এবং বেকিং পাউডারের একটি মিশ্রণ তৈরি করে ফেলুন। মিশ্রণটা আঁচিলের উপর ভালো করে লাগিয়ে বেঁধে রাখুন জায়গাটা। সারারাত এভাবে রাখুন। দু-তিন দিন পর থেকেই ফল পেতে শুরু করবেন। ক্রমশ আঁচিল অদৃশ্য হয়ে যাবে।

এই ঘরোয় উপায়গুলো প্রয়োগ করার পরও পরও আঁচিল না যায় তবে চর্মরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।

এসিএন/

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

লাইফস্টাইল খবর