channel 24

সর্বশেষ

  • গাদ্দাফির ছেলের প্রার্থিতা বৈধ বললেন আদালত

  • কুয়েটে এখনও থমথমে পরিস্থিতি বিরাজমান

  • মহেশ বাবুর অস্ত্রোপচার

  • করোনা নিয়ে মিথ্যাচার করায় ‘চীনা নেটওয়ার্ক’ মুছে দিলো ফেইসবুক, ইনস্টাগ্রাম

  • দুর্গাপুরে চিনামাটির পাহাড়ে নেই টুরিজম ফ্যাসিলিটি

  • ঠেলা দিয়ে বিমান সরাচ্ছে যাত্রীরা, ভিডিও ভাইরাল

  • শ্রেণিকক্ষে ঢুকে পড়ল বাঘ, শিক্ষার্থীকে আক্রমণ (ভিডিও)

  • বিশ্বে আবারও বাড়লো করোনায় আক্রান্ত ও মৃ ত্যুর সংখ্যা

  • টিকা নেয়ার পরও আক্রান্ত, ২৭ দেশে ওমিক্রন শনাক্ত

  • গ্যাস সিলিন্ডারে দগ্ধ ভাই-বোন মারা গেছেন

  • অভিমানে চেয়ারম্যানের দেয়া উপহার আগুনে পোড়ালেন সমর্থক

  • বিজয় দিবসে দেশব্যাপী শপথ বাক্য পাঠ করাবেন প্রধানমন্ত্রী

  • করোনার টিকা নিতে হবে টানা কয়েক বছর: ফাইজার প্রধান

  • চার বছর পর হিলি দিয়ে কয়লা আমদানি শুরু

  • নারী কেলেঙ্কারি: নাচোলের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে থানায় এজাহার

অভিনন্দনকে নিয়ে বানোয়াট গল্প শোনাচ্ছে ভারত: পাকিস্তান

অভিনন্দনকে নিয়ে বানোয়াট গল্প শোনাচ্ছে ভারত: পাকিস্তান

আকাশযুদ্ধে সাহসী ভূমিকা রাখার কারণে ভারতের তৃতীয়-সর্বোচ্চ সম্মানে ভূষিত করা হলো পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে। ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার আকাশযুদ্ধে সাহসী ভূমিকা রাখার কারণে এ পদক দেয়া হয় তাকে। 

ওই সময় সেই আকাশযুদ্ধে পাকিস্তানের এফ-১৬ যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার দাবি তোলে ভারত। সোমবার অভিনন্দন বর্তমানকে পদক দেয়ার একদিন পর মঙ্গলবার ভারতের এমন দাবিকে ‘পুরোপুরি ভিত্তিহীন’ বলে তা প্রত্যাখ্যান করেছে পাকিস্তান।

ভয়েস অব আমেরিকা এক প্রতিবেদনে এ খবর দিয়েছে। তাতে বলা হয়, পারমাণবিক শক্তিধর ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে আকাশপথে যুদ্ধ হয়। ওই যুদ্ধে ভারতের পাইলট অভিনন্দন বর্তমান পাকিস্তানি এফ-১৬ যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার দাবি করা হয়। এ জন্য তাকে পদক প্রদান করা হয় সোমবার।

অনুষ্ঠানে ভারতের প্রেসিডেন্ট রাম নাথ কোবিন্দ বলেন, প্রতিপক্ষের মোকাবিলায় ব্যতিক্রমী সংকল্পবদ্ধ হয়ে একটি সাহসী এবং মর্যাদার সঙ্গে সমস্যার সমাধান করেছেন তিনি। নয়া দিল্লিতে এই পদক প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তারা।

আরও পড়ুন : কাঁদতে কাঁদতে থানায় বৃদ্ধা, মা ডেকে অভিযোগ আমলে নিলেন ওসি

ভারতের এমন দাবির জবাবে মঙ্গলবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একটি বিবৃতি দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, দেশের ভিতরে দেশবাসীকে খুশি করতে এবং নিজেদের লজ্জা ঢাকার জন্য ভারত যে বানোয়াট ও পুরো ফ্যান্টাসি সাজায়, তার একটি ক্লাসিক উদাহরণ হলো- পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে ভারতীয় পাইলটের বিমান বিধ্বস্ত করার দাবি।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মঙ্গলবার তার বিবৃতিতে আরো বলেছে, ওইদিন পাকিস্তানি কোনো এফ-১৬ যুদ্ধবিমান গুলি করে ভূপাতিত করা হয়নি বলে এরই মধ্যে নিশ্চিত করেছেন আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞরা ও যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা। তারা দেখেছেন পাকিস্তানের স্টকে থাকা কোনো এফ-১৬ যুদ্ধবিমান খোয়া যায়নি। তাই বীরত্বের কাল্পনিক কৃতিত্বের জন্য সামরিক সম্মান প্রদান সামরিক আচরণের প্রতিটি নিয়মের পরিপন্থী। ভারতের শত্রুতা সত্ত্বেও শান্তির জন্য পাকিস্তানের যে আকাঙ্ক্ষা তার সাক্ষ্য দেয় অভিনন্দন বর্তমানকে দেশে ফেরত পাঠানোর ঘটনা।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে ওই আকাশপথের যুদ্ধের সময় ভারতীয় বিমান বাহিনীর কর্মকর্তারা বলেছিলেন, ২৭ ফেব্রুয়ারি আকাশপথে পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের যুদ্ধ হয়।

সে যুদ্ধে ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন বর্তমান পাকিস্তানের একটি যুদ্ধবিমান এফ-১৬ গুলি করে ভূপাতিত করেন। এরপর তার নিজের যুদ্ধবিমানে একটি ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত করে। তবে তিনি নিরাপদে তার ভিতর থেকে পাকিস্তান শাসিত কাশ্মীর অঞ্চলে অবতরণ করতে সক্ষম হন।

সে সময়েই ভারতের এ দাবিকে প্রত্যাখ্যান করে ইসলামাবাদ। অন্যদিকে ভারতীয় এই পাইলটকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে যায় পাকিস্তানি সেনারা। দুই দেশ যুদ্ধের কিনারা থেকে ফেরার প্রতিশ্রুতি দেয়ার দু’দিন পরে মুক্তি দেয়া হয় ভারতীয় পাইলট অভিনন্দনকে।

টি

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর