channel 24

সর্বশেষ

  • জোর করে আফগান নারীকে বিয়ে করা যাবে না: তালে বান

  • নাটোরের অপহৃত স্কুলছাত্রী উদ্ধার, যুবক আটক

  • আলো স্বল্পতায় বন্ধ তৃতীয় সেশনের খেলা

  • স্বাধীনতা বিরোধী চক্র এখনও তৎপর: কৃষিমন্ত্রী

  • শিক্ষকের মৃত্যু: কুয়েট ছাত্রলীগের সম্পাদকসহ ৯ ছাত্র বহিষ্কার

  • ইহুদিদের ভুল শোধরাতে হিব্রু ভাষায় কোরআন

  • রাজধানীতে আজ আকাশ মেঘলা থাকলেও বৃষ্টি হতে পারে কাল

  • লাল কার্ড নিয়ে রাস্তায় শিক্ষার্থীরা

  • ভিডিও ভাইরাল: চেয়ারম্যান আব্দুল কাদেরকে বহিষ্কার দাবি

  • টেস্টের এক ইনিংসে ১০ উইকেট তুলে নিয়ে এজাজ প্যাটেলের রেকর্ড

  • মালিতে বাসে জ ঙ্গি হামলা, ৩১ যাত্রীর প্রাণহানি

  • মিরপুরে বৃষ্টির হানা, বন্ধ বাংলাদেশ-পাকিস্তান টেস্ট

  • মেসির ৩০০ কোটির হোটেল ভেঙে ফেলার নির্দেশ

  • প্রয়াত টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারদের স্মরণে আইটিইটির সভা ও দোয়া মাহফিল

  • সৌদিতে থাকা সবার জন্য বুস্টার ডোজ বাধ্যতামূলক

স্ত্রীর ইচ্ছাপূরণে ১৯ লাখ টাকার গহনা দান করে দিলেন স্বামী

স্ত্রীর ইচ্ছাপূরণে ১৯ লাখ টাকার গহনা দান করে দিলেন স্বামী

বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন সময় একেক ঘটনায় অবাক হই আমরা। আর এমন অবাক করার মতো ঘটনা ঘটেই চলেছে প্রতিনিয়ত। যেমন ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের এক মন্দিরে। 

ভারতীয় বার্তা সংস্থা পিটিআই’র খবর অনুযায়ী, ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যের এক ব্যক্তি মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের এক মন্দিরে স্ত্রীর সমস্ত গহনা দান করে দিয়েছেন। 

মন্দিরের কর্মকর্তারা মঙ্গলবার জানান, মধ্যপ্রদেশের উজ্জয়ন জেলার মহাকালেশ্বর মন্দিরে ১৭ লাখ টাকার সোনার গহনা দান করেছেন ওই স্বামী। মূলত স্ত্রীর শেষ ইচ্ছা রক্ষা করতেই এই কাজ করেছেন তিনি।

তার স্ত্রীর নাম রাশমি প্রভা। তিনি বেশ কিছুদিন হলো মারা গেছেন। রাশমি মহাকালেশ্বরের ভক্ত ছিলেন এবং নিয়মিত মন্দিরটিতে পূজা দিতে যেতেন।

মন্দির পরিচালনায় যুক্ত গণেশ কুমার ধাকড় জানিয়েছেন, রাশমি দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থতায় ভুগছিলেন। তিনি তার মৃত্যুর আগে নিজের সব গহনা মন্দিরটিতে দান করে দেয়ার শেষ ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন।

তার সেই ইচ্ছার পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার মৃত রাশমির স্বামী ঝাড়খণ্ডের বোকারোর বাসিন্দা সঞ্জীব কুমার ও তার মা (রাশমির শাশুড়ি) মিলে মন্দিরটিতে আসেন। সেখানে সঞ্জীব তার স্ত্রীর চুড়ি, হার, কানের দুলসহ প্রায় ৩১০ গ্রাম সোনার গহনা দান করেন।

এই পরিমাণ সোনার বাজারমূল্য ১৭ লাখ রুপি বা সাড়ে ১৯ লাখ বাংলাদেশি টাকা। মন্দিরের এক সেবায়ত জানিয়েছেন, মহাকালেশ্বর মন্দির ভারতের ১২টি জ্যোতির্লিঙ্গর মধ্যে অন্যতম।

যদিও ভক্তবৃন্দ থেকে মন্দিরটির আয় খুব একটা কম নয়। প্রতি মাসেই টিকিট, লাড্ডু, অন্যান্য পূজা সামগ্রী বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা আয় করে মন্দিরটি। আর প্রণামি বাক্সের টাকা তো আছেই।

মন্দির কমিটি গত সপ্তাহে জানায়, চলতি বছরের ২৮ জুন থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত ২৪ কোটি টাকা আয় হয়েছে মন্দির কর্তৃপক্ষের। ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের পর ভক্তদের জন্য ২৮ জুন থেকে খুলে দেয়া হয় মন্দিরটি।

টি

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর