channel 24

সর্বশেষ

  • নোয়াবের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় এ কে আজাদকে ফুলেল শুভেচ্ছা

  • চট্টগ্রামে রেলক্রসিংয়ে দুর্ঘটনার জন্য বাস চালক দায়ী: তদন্ত কমিটি

  • বিয়ের আগে যে বিষয়গুলো মাথায় রাখবেন

  • চাকরি দিচ্ছে বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আব্দুর রউফ পাবলিক কলেজ

  • অ স্ত্র প্রতিযোগিতা নয়, শান্তিপূর্ণ বিশ্ব গড়তে সম্পদ ব্যবহার করুন: প্রধানমন্ত্রী

  • নির্বাচন নিয়ে সহিংসতা দিনের পর দিন চলতে পারে না: নির্বাচন কমিশনার

  • পেগাসাস স্পাইওয়্যারের কার্যক্রম বন্ধে হাইকোর্টের রুল

  • ভাইকে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেই ফেঁসে গেল যুবক

  • স্বাস্থ্য সচিব-ডিজির বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল

  • নৌকার মনোনয়ন পাওয়ায় চেয়ারম্যানের ছেলের হাতবোমা বিস্ফোরণ করে উল্লাস

  • অর্থপাচারকারীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা তৈরিতে আইনের সংশোধন চায় দুদক

  • ঘূর্ণিঝড় ‘জাওয়াদ’: সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত

  • পুলিশ হেফাজত থেকে পালাল রোহিঙ্গা কালাম

  • বিমানবন্দরে আটকে দেয়া হলো জ্যাকুলিনকে

  • দেশের অর্থনৈতিক চাকা সচল রাখতে অবদান রাখছে নাভানা গ্রুপ

আইফোন ১২’র পরিবর্তে এলো ভিম বার ও পাঁচ টাকা

আইফোন ১২’র পরিবর্তে এলো ভিম বার ও পাঁচ টাকা

শখ করে আইফোন কিনতে চেয়েছিলেন নুরুল আমিন। আর তাই ৭০ হাজার ৯০০ রূপি মূল্যের একটি আইফোন ১২ অর্ডার করেন ই-কমার্স সাইট অ্যামাজনে।

তিনদিন পর ডেলিভারি আসার পর দেখা গেল আইফোনের প্যাকেটের মধ্যে ভরে দেয়া হয়েছে থালা-বাসন ধোয়ায় ব্যবহৃত ভিম বার ও একটি পাঁচ রূপির কয়েন।

সম্প্রতি ভারতের কেরালা রাজ্যে এ ঘটনা ঘটেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

আরও পড়ুন : ইরানে ভয়াবহ সাইবার হামলা, দেশজুড়ে গ্যাস সংকট

খবরে বলা হয়, গত ১২ অক্টোবর ওই অর্ডারটি করেন নুরুল আমিন নামে এক প্রবাসী ভারতীয়। অ্যামাজন পে কার্ড ব্যবহার করে পুরো মূল্য পরিশোধ করেছিলেন তিনি।

তিন দিন পর, অর্থাৎ গত ১৫ অক্টোবর ফোনের প্যাকেট তার হাতে পৌঁছায়। নুরুল আমিন আগে থেকেই জানতেন, অনলাইনে কেনাকাটায় কী পরিমাণ প্রতারণা হয়ে থাকে। এ কারণে ডেলিভারিম্যানকে সামনে রেখেই প্যাকেট খোলার ভিডিও শুরু করেন তিনি।

শেষপর্যন্ত প্যাকেট খুলে ভিম বার ও একটি পাঁচ রুপির কয়েন পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে অ্যামাজন কাস্টমার কেয়ারে ফোন করেন নুরুল। পুলিশের কাছেও অভিযোগ দেন। 

অভিযোগ পেয়ে তদন্তে নামে স্থানীয় সাইবার পুলিশ টিম। তারা প্যাকেটের গায়ে থাকা আইএমইআই নাম্বার পরীক্ষা জানতে পারেন, ওই ফোনটি গত ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে ঝাড়খণ্ডের এক ব্যক্তি ব্যবহার করছেন। অথচ নুরুল ওই ফোনের অর্ডার দিয়েছিলেন অক্টোবর মাসে।

তদন্তকারী টিমের এক কর্মকর্তা বলেন, আমরা অ্যামাজন কর্তৃপক্ষ এবং তেলেঙ্গানা-ভিত্তিক বিক্রেতার সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। বিক্রেতা জানিয়েছেন, ওই ফোনের স্টক শেষ হয়ে গেছে এবং নুরুলের অর্থ ফেরত দেয়া হবে।

টি

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর