channel 24

সর্বশেষ

  • মধ্যরাত থেকে যেসব এলাকায় মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ

  • যশোরে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীদের হামলায় নৌকার ২০ কর্মী আহত

  • পান্থপথে ময়লার গাড়ির ধাক্কায় মৃত্যু : ডিএনসিসির সেই চালক গ্রেপ্তার

  • রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ক্রমবর্ধমান সহিংসতা সীমান্তের বাইরেও ছড়িয়ে পড়তে পারে: প্রধানমন্ত্রী

  • আমতলীতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান রাফেজা বেগম

  • ২২ কোটি টাকা লোকসানের বোঝা মাথায় নিয়ে আখ মাড়াই শুরু

  • শেরপুরে আ.লীগ নেতাকে বহিষ্কারের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ

  • করোনার নতুন ধরন ‘ভয়ংকর’, দেশে দেশে সতর্কতা

  • আকর্ষণীয় বেতনে চাকরি দিচ্ছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

  • নতুন সময়ে মাঠে গড়াবে দ্বিতীয় দিনের খেলা

  • সন্ত্রাসীদের কোনো ধর্ম নেই: ভারতের হাইকমিশনার

  • চরের অবশিষ্ট মানুষকে দ্রুত বিদ্যুৎ দিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

  • যাদের কারণে হুমকির মুখে শোয়েবের ১৮ বছরের রাজত্ব

  • পাকিস্তান ম্যাচ শুরুর আগে ভয়ে কাঁপছিলেন কোহলিরা: ইনজামাম

  • মারা গেলেন পৃথিবীর প্রবীণতম নারী

গোপনে ক্লাস করছে আফগান মেয়ে শিক্ষার্থীরা!

গোপনে ক্লাস করছে আফগান মেয়ে শিক্ষার্থীরা!

আগের বারের চেয়ে এবার ভিন্ন কিছু করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল গত আগস্টে আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখল করে নেয়া তালেবানরা। তবে মসনদে বসার পর আগের রূপেই ফিরতে দেখা গেছে তাদের। শুরুতে নারী ও মেয়ে শিশুদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফিরতে দেয়া হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিলেও নিজেদের অবস্থান থেকে সরে আসে তালেবান।

কিন্তু তারপরও দমে থাকার নয় আফগানিস্তানের নারী ও মেয়ে শিক্ষার্থীরা। তালেবানের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই গোপনে ভার্চুয়াল ক্লাসে যোগ দিচ্ছে তারা। তালেবানরা ১২ বছরের বেশি বয়সী মেয়ে শিশুদের স্কুলে ফেরার অনুমতি না দেয়ার পর এই বিকল্প পন্থা বের করেছে একটি এনজিও।

আল আরাবির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লার্ন আফগানিস্তান নামের একটি এনজিও চলতি মাসে এই স্কিম চালু করেছে। এখন পর্যন্ত ১০০ শিক্ষার্থী এই স্কিমের অংশ হয়েছে। ভার্চুয়াল এই স্কুলে মূলত বিজ্ঞান, প্রযুক্তি, ইঞ্জিনিয়ারিং এবং গণিত শেখানো হয়।

শিক্ষার্থী ও এনজিও কর্মীদের নিরাপত্তার স্বার্থে তাদের পরিচয় বা এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু প্রকাশ করা হয়নি। সপ্তাহে তিনদিন ক্লাস হয় ভার্চুয়াল এই স্কুলে। এসব ক্লাসে তথ্যপ্রযুক্তির বিভিন্ন দক্ষতা যেমন প্রোগ্রামিং, গ্রাফিক ডিজাইন ও ওয়েবসাইট তৈরির মতো বিভিন্ন বিষয় শেখানো হয়।

স্কিমের একজন শিক্ষিকা নাজিফা রাহমাতি বলেন, আমরা সবাই খুব উদ্বিগ্ন, বিশেষ করে নারীদের শিক্ষা নিয়ে। ২৫ বছর বয়সী এই শিক্ষিকা বলেন, আর এ জন্যই এই প্রোগ্রাম খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমি কম্পিউটার সায়েন্সে স্নাতক করেছি। আমি এ ধরনের কোনো কোর্স করতে পারিনি। তাই আমার কমিউনিটিকে সেবা দিতে পরবর্তী প্রজন্মের মেয়েদের এই সুযোগ করে দিতে পেরে আনন্দিত।

এইউ

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর