channel 24

সর্বশেষ

  • পরিসংখ্যানে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা লড়াই

  • নতুন গান 'হাবিবি' নিয়ে আসছে নুসরাত ফারিয়া

  • রাজারবাগ পীরের সম্পদের তথ্য নিয়ে আপিলের শুনানি আজ

  • আগামীকাল আদালতে নেয়া হবে সম্রাটকে

  • শিশু ধর্ষণের অভিযোগে কিশোর আটক

  • ভারত-পাকিস্তান মহারণ: পরিসংখ্যান কি বলছে?

  • বিয়েতে গড়িমসি করায় প্রেমিকের জিহ্বা কেটে দিলেন প্রেমিকা

  • আজ জাতিসংঘ দিবস

  • চুরি করতে গিয়ে নুরুল দম্পতিকে হত্যা করে রিকশা চালক: পিবিআই

  • স্বপ্নের পায়রা সেতু উদ্বোধন আজ

  • বাবরদের ভারত বধের টোটকা দিয়েছেন ইমরান খান

  • মুহিবুল্লাহ হত্যা: আদালতে আজিজুলের স্বীকারোক্তি

  • প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি পোস্ট ফেসবুকে শেয়ার, ক‌লেজ শিক্ষক আটক

  • নিয়ন্ত্রণে বাড্ডার আগুন

  • আপেল যখন বিপদের কারণ!

বিছানায় সাপ ফেলে স্ত্রীকে হত্যা, যুবকের দুবার যাবজ্জীবন

বিছানায় সাপ ফেলে স্ত্রীকে হত্যা, যুবকের দুবার যাবজ্জীবন

বিছানায় বিষধর সাপ ছেড়ে দিয়ে নিজ স্ত্রীকে হত্যা করে ভারতের এক যুবক। আর এই হত্যাকাণ্ডের দায়ে সুরুজ কুমার নামে ওই যুবককে দুবার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন ভারতের একটি আদালত।

ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ঘুমানোর সময় স্ত্রী উথরার বিছানায় গোখরো সাপ ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগে সুরুজকে গত সোমবার দোষী সাব্যস্ত করে ওই দণ্ডাদেশ দেন আদালত।

আদালতে যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের সময় এটিকে ‘বিরল ঘটনার মধ্যেও বিরল’ বলে উল্লেখ করেন সরকারি কৌঁসুলি (পিপি)। তিনি সুরুজকে মৃত্যুদণ্ড দেয়ার দাবি করেন। এটি যে একটি বিরল ঘটনা, সে বিষয়ে বিচারকও একমত হন। তবে সুরুজকে দুবার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন তিনি। একই সঙ্গে পাঁচ লাখ রুপি জরিমানা করেন।

আরও পড়ুন : বিশ্বজুড়ে বেড়েছে মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা

পুলিশের তদন্তে জানা যায়, সুরুজ যৌতুকের জন্য স্ত্রী ও তার পরিবারকে হয়রানি করছিলেন। গত বছরের মে মাসে ২৫ বছর বয়সী উথরাকে নিজ বাড়িতে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। উথরার মৃত্যুতে তার পরিবার সুরুজের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ আনে। অভিযোগ পেয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ 

বিছানায় একটি কোবরা উথরাকে দংশন করে। এটিকে হত্যাকাণ্ড বলে সন্দেহ হয় তার পরিবারের সদস্যদের। এর আগেও একবার সাপের কামড়ে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন তিনি। সাপের কামড়ের দুটি ঘটনার পেছনেই সুরুজের হাত ছিল বলে পুলিশের তদন্তে উঠে আসে।

এসব সাপ সংগ্রহে সুরুজকে সাহায্য করা এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তারের পর তিনি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলে রহস্যের জট খোলে। এ হত্যাকাণ্ড নিয়ে পুলিশ আদালতে হাজার পৃষ্ঠার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে। ওই প্রতিবেদনে হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনা ও তা বাস্তবায়নের কাহিনী বিস্তারিত তুলে ধরা হয়।

টি

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর