channel 24

সর্বশেষ

  • আবারও জুটি বাঁধছেন যশ-নুসরাত

  • পাওয়ার প্লেতে বিবর্ণ বাংলাদেশ

  • মৌলভীবাজারে বিশেষ সংহতি সভা অনুষ্ঠিত

  • ভারত-পাকিস্তান সিরিজ আয়োজনে সৌরভ-রমিজ আলোচনা

  • লিটনের পর ফিরলেন মেহেদি

  • বাংলাদেশ-ভারত নৌ সচিব পর্যায়ের বৈঠক বুধবার

  • জীবন পেয়ে কাজে লাগাতে ব্যর্থ লিটন

  • দেড় বছর পর খুলল চবি, প্রাণ ফিরেছে ক্যাম্পাসে

  • মৌলভীবাজারে ক্ষতিগ্রস্ত পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার

  • ধর্ম নিয়ে যেন কেউ বাড়াবাড়ি না করে: প্রধানমন্ত্রী

  • ডেঙ্গুতে আরও ১৫১ জন হাসপাতালে

  • ফরিদপুরে আওয়ামী লীগের সম্প্রীতি সমাবেশ

  • শেখ রাসেলের জাপান ভ্রমণের ছবি পোস্ট করে জন্মদিনের শুভেচ্ছা

  • টসে জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

  • সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে চট্টগ্রামে আজও মানববন্ধন

অতিরিক্ত কাজে বছরে প্রায় ২০ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়: গবেষণা

অতিরিক্ত কাজে বছরে প্রায় ২০ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়: গবেষণা

প্রতিবছর প্রায় ২০ লাখ মানুষ কর্ম সংক্রান্ত কারণে মারা যায়। এর মধ্য দীর্ঘক্ষণ কাজ এবং বায়ু দূষণজনিত সমস্যা সম্পৃক্ত। শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক গবেষণার বরাত এসব তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) ও ইন্টারন্যাশনাল লেবার অর্গানাইজেশনের (আইএলও) গবেষণা বলছে, ২০১৬ সালে এ ধরনের গবেষণা প্রথম করা হয়। তখন দেখা গেছে, ১৯ লাখ মানুষের মৃত্যুর জন্য কাজ সংশ্লিষ্ট রোগ দায়ী।

ডব্লিউএইচও-এর মহাপরিচালক ডা. তেদ্রোস আধানোম গেব্রেয়াসুস বলেছেন, প্রকৃত অর্থেই অনেক লোক চাকরি দ্বারা হত্যা হয়।

গবেষণায় ১৯টি পেশাগত ঝুঁকির কারণ দেখানো হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে দীর্ঘক্ষণ কাজ বা অতিরিক্ত কাজ, কর্মক্ষেত্রে বায়ু দূষণ, হাঁপানি, কার্সিনোজেন এবং শব্দ দূষণ। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া এবং পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগর অঞ্চলের শ্রমিকদের মধ্যে ৫৪ বছরের বেশি বয়সী কর্মীদের মধ্যে কর্ম সংক্রান্ত মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে বলে তুলে ধরা হয়েছে প্রতিবেদনে।

ডব্লিউএইচও-এর গবেষণার উপর ভিত্তি করে আরও বলা হয়েছে, দীর্ঘক্ষণ কাজের জন্য স্ট্রোক এবং হৃদরোগের মাধ্যমে বছরে প্রায় ৭ লাখ ৪৫ হাজার মানুষ হত্যা হয়েছে।

শুক্রবার প্রকাশ হওয়া ওই গবেষণা প্রতিবেদনে আরও দেখা গেছে, কর্মক্ষেত্রে মৃত্যুর জন্য আরও একটি বড় সমস্যা হচ্ছে বায়ু দূষণ। যেমন গ্যাস এবং ধোঁয়া। এছাড়া শিল্প নির্গমনের সঙ্গে যুক্ত ক্ষুদ্র কণাও মৃত্যুর জন্য দায়ী। ২০১৬ সালে বায়ু দূষণজনিত কারণে ৪ লাখ ৫০ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে এবং ৩ লাখ ৬০ হাজার মানুষ আহত হয়েছেন বলেও তুলে ধরা হয়েছে প্রতিবেদনে।

২০০০ সাল এবং ২০১৬ সালের মধ্যে ইতিবাচক বিষয় হলো, জনসংখ্যার তুলনায় কর্ম সংক্রান্ত মৃত্যুর সংখ্যা ১৪ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। আর এটি সম্ভব হয়েছে কেবল কর্মক্ষেত্রের স্বাস্থ্য এবং নিরাপত্তার উন্নতির জন্য।

সূত্র : রয়টার্স

এস/

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর