channel 24

সর্বশেষ

  • টিকা নেয়ার পরও আক্রান্ত, ২৭ দেশে ওমিক্রন শনাক্ত

  • গ্যাস সিলিন্ডারে দগ্ধ ভাই-বোন মারা গেছেন

  • অভিমানে চেয়ারম্যানের দেয়া উপহার আগুনে পোড়ালেন সমর্থক

  • বিজয় দিবসে দেশব্যাপী শপথ বাক্য পাঠ করাবেন প্রধানমন্ত্রী

  • করোনার টিকা নিতে হবে টানা কয়েক বছর: ফাইজার প্রধান

  • চার বছর পর হিলি দিয়ে কয়লা আমদানি শুরু

  • নারী কেলেঙ্কারি: নাচোলের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে থানায় এজাহার

  • টাঙ্গাইলে দক্ষিণ আফ্রিকাফেরত ৬ প্রবাসী হোম কোয়ারেন্টিনে

  • নির্ধারিত সময়ে ২৭ শতাংশ আয়কর রিটার্ন জমা

  • এবার মার্কিন পুলিশের গু লিতে প্রাণ হারালেন হুইলচেয়ারে বসা বৃদ্ধ

  • বাবরের একাদশে পাকিস্তানের চেয়ে ভারতের ক্রিকেটার বেশি

  • চাকরি দিচ্ছে বিকেএসপি

  • দাউদাউ করে জ্বলছে বিয়েবাড়ি, খেয়েই চলেছেন নিমন্ত্রিতরা (ভিডিও)

  • ঢাকার সঙ্গে উত্তরবঙ্গের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক

  • অভিবাসী প্রেরণে বিশ্বে ষষ্ঠ, রেমিটেন্স গ্রহণে অষ্টম বাংলাদেশ

বিশ্বের একশ প্রভাবশালী ব্যক্তির তালিকায় মোল্লা বারাদার

বিশ্বের একশ প্রভাবশালী ব্যক্তির তালিকায় মোল্লা বারাদার

২০২১ সালে টাইম ম্যাগাজিনের বিশ্বের ১০০ প্রভাবশালীর ব্যাক্তির তালিকায় নাম উঠে এসেছে তালেবানের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও আফগান সরকারের উপ-প্রধানমন্ত্রী মোল্লা আবদুল গানি বারাদারের নাম। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তালেবানের শান্তি চুক্তির সময় তালেবান যে নেতাকে নিয়ে বেশি আলোচনা হয়েছে, তিনি মোল্লা আবদুল গনি বারাদার।

টাইম ম্যাগাজিন ১০০ প্রভাবশালী ব্যক্তির প্রোফাইল প্রকাশ করেছে। সেখানে রাদারের বিষয়ে বলা হয়েছে,তালেবানের প্রতিষ্ঠাতাদের একজন তিনি। এ ছাড়া তালেবানের প্রভাবশালী সামরিক নেতাও তিনি।

টাইম ম্যাগাজিনে বারাদার সম্পর্কে আরও বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তালেবানের সমঝোতায় মুখ্য ভূমিকায় ছিলেন বারাদার। আর এ সমঝোতার ওপর ভিত্তি করেই আফগানিস্তানের ক্ষমতায় এখন বারাদার। তালেবানের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তগুলো নিয়ে থাকেন তিনি।

আফগানিস্তানের সাবেক সরকারি কর্মীদের জন্য যে সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করা হয়েছে, সেই সিদ্ধান্তও তিনি নেন। কাবুলে তালেবানের প্রবেশের সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ এড়াতে তার ভূমিকা ছিল অগ্রগণ্য। এ ছাড়া প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তান ও চীনের সঙ্গে তালেবানের যোগাযোগ ও সম্পর্ক উন্নয়নে তার মুখ্য ভূমিকা রয়েছে। আফগানিস্তানের ভবিষ্যৎ নির্ধারণে যারা কাজ করবেন, তাদের অন্যতম হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে বারদারকে।

তালেবান যাত্রার শুরু থেকেই গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন বারাদার। তালেবানের প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা ওমরের ভগ্নিপতি তিনি। আল-জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, উরুজগান প্রদেশে ১৯৬৮ সালে বারাদারের জন্ম। তিনি বেড়ে উঠেছেন আফগানিস্তানের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর কান্দাহারে। ১৯৮০ দশকে অন্যান্য তালেবান নেতার মতো তিনিও মুজাহিদিনে যোগ দেন। সোভিয়েত ইউনিয়নের সেনারা ফিরে গেলে তিনি কান্দাহারে ফিরে যান এবং মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেন। এরপর ১৯৯০ দশকের শুরুতে তালেবান প্রতিষ্ঠায় মোল্লা ওমরকে সাহায্য করেন তিনি।

এমকে

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর