channel 24

সর্বশেষ

  • সাইফের ব্যাটে শেখ জামালকে হারাল প্রাইম দোলেশ্বর

  • শিশুর ঘাড়ে ভাই হত্যার দায় চাপানো দুঃখজনক: হাইকোর্ট

  • সারা দেশেই কাজুবাদাম ও কফির ব্যাপক চাষ হবে: কৃষিমন্ত্রী

  • তামিমকে ছাড়িয়েও দলকে জেতাতে পারলেন না হাসানুজ্জামান

  • আগামীকাল থেকে আবারো ৭ জেলায় লকডাউন

  • এক মাসে ১১টি কিশোর গ্যাংয়ের ৬২ জন আটক

  • বন্ধ হচ্ছে না ব্যবহৃত অবৈধ মোবাইল হ্যান্ডসেট

  • নখের কিছু সমস্যা, যা হতে পারে করোনার উপসর্গ

  • খুলনায় এক সপ্তাহ বাস-ট্রেন চলাচল বন্ধ

  • বাবার কাছে ক্ষমা চাইলেন রিয়া চক্রবর্তী

  • মেগা প্রকল্প নিয়ে মেগা মিথ্যাচারে নেমেছে বিএনপি: কাদের

  • আকস্মিক বন্ধ ইরানের একমাত্র পারমানবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র

  • জোরপূর্বক স্বীকারোক্তি আদায় দুঃখজনক: হাইকোর্ট

  • লোহার কাঁচামালের কন্টেইনারে এলো অজগর!

  • মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের ধরপাকড়, ১০২ বাংলাদেশি আটক

কানাডায় মুসলিম বিদ্বেষী হামলায় নিহতদের জানাজা সম্পন্ন

কানাডায় মুসলিম বিদ্বেষী হামলায় নিহতদের জানাজা সম্পন্ন

জানাজা সম্পন্ন হয়েছে কানাডার অন্টারিওতে মুসলিম বিদ্বেষী হামলায় নিহত একই পরিবারের চার সদস্যের। উপস্থিত ছিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোসহ বিভিন্ন ধর্মের মানুষ। ন্যক্কারজনক এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তাপ ছড়ায় দেশটির পার্লামেন্টেও।

ইসলামবিদ্বেষী হামলায় পাকিস্তান বংশোভূত একটি পরিবারের চারজনকে হত্যার ঘটনায় শোকে স্তব্ধ কানাডার অন্টারিও। লন্ডন শহরে চলছে তিনদিনের রাষ্ট্রীয় শোক।

এ ঘটনায় ভয় আর আতঙ্ক দেখা দিয়েছে স্থানীয় মুসলিমদের মধ্যে।

ইসলামিক সুপ্রিম কাউন্সিল, কানাডার প্রতিষ্ঠাতা সৈয়দ সোহরাওয়ার্দী বলেন, আজ এই পরিবারটির সাথে এমন হয়েছে। কাল আমার, আপনার সাথেও হতে পারে। কানাডাজুড়ে ইসলামোফোবিয়া, বর্ণবিদ্বেষ, ঘৃণা, সহিংসতার ঘটনা বেড়েছে। কানাডার সরকার এর বিরুদ্ধে কঠোর না হলে এসব থামবে না।

এরইমধ্যে নিহতদের জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে এতে ঢল নামে মানুষের। উপস্থিত ছিলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোও।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, ইসলাম বিদ্বেষ থেকে সুন্দর একটি পরিবারের তিন প্রজন্মকে শেষ করে দেয়া হয়েছে। নয় বছরের যে শিশুটা বেঁচে গেছে তার প্রশ্নের উত্তর আমাদের কারো কাছে নেই।

মুসলীম পরিবারের ওপর হামলার ঘটনায় উত্তাপ ছড়ায় কানাডার পার্লামেন্টেও। হাউস অব কমন্সে রাখা ভাষণে এ ঘটনাকে সন্ত্রাসী হামলা অভিহিত করেন ট্রুডো। ঘৃণা, বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে কঠিন পদক্ষেপের আশ্বাস দেন তিনি। 

ডেমোক্রেটিক পার্টির নেতা জগমিত সিং বলেন, মুসলিমদের মধ্যে ভয় আর আতঙ্ক ছড়াতেই এ হামলা হয়েছে। এ ঘটনায় ভয় পেলে চলবে না, মোকাবিলা করতে হবে। আমরা মুসলিম হিসেবে গর্ববোধ করি। মুসলিম ভাই বোনদের বলছি, মাথা উঁচু করে অন্যায়ের প্রতিবাদ করুন।

রোববার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় লন্ডন শহরের একটি রাস্তায় ট্রাক চাপা দিয়ে হত্যা করা হয়, পাকিস্তান বংশোভূত একটি পরিবারের চার সদস্যকে। এ ঘটনায় আটক করা হয়, ২০ বছরের যুবক নাথানিয়েল ভেল্টম্যানকে।

তথ্য বলছে, কানাডায় মুসলিম বিদ্বেষী হেইট ক্রাইমের সংখ্যা বাড়ছে। ২০১৮ তে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে ১৬৬ টি। আর ২০১৯ এ হেইট ক্রাইমের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ১৮১ টি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর