channel 24

সর্বশেষ

  • শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি বাড়লো ৩১ জুলাই পর্যন্ত

  • জেনে নিন অ্যাসিডিটি থেকে বাঁচার কয়েকটি ঘরোয়া উপায়

  • স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার জন্য টাকা পেলেন মেসি

  • রাজ আমাকে জোর করে চুমু খেয়েছিল: শার্লিন চোপড়া

  • হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় অভিযান চালাচ্ছে র‌্যাব

  • অলিম্পিক ভিলেজে ৩ অ্যাথলেটসহ করোনা আক্রান্ত ২৪

  • ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যবহারে বাংলাদেশ ব্যাংকের সতর্কতা

  • ইংল্যান্ডে সিরিজ হারায় বোর্ড কর্তাদের ধুয়ে দিলেন ওয়াসিম

  • রাতে আসছে সিনোফার্মের আরও ৩০ লাখ ডোজ টিকা

  • সাগর পাড়ে আগুন ধরালেন বাঙ্গালী ললনা

  • কিউকমে পাওয়া যাবে রানারের মোটরসাইকেল

  • নিবন্ধনের পর আড়াই কোটি টাকা ভ্যাট দিল ফেসবুক

  • খাগড়াছড়িতে অসুস্থ রোগীর চিকিৎসায় সেনাবাহিনীর সহায়তা

  • কঠোরতম লকডাউনের পঞ্চম দিনে রাজধানীতে গ্রেপ্তার ৫৬৮

  • করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় ২৩৯ জনের মৃত্যু

দিন দিন নাজুক হচ্ছে ভারতের করোনা পরিস্থিতি

দিন দিন নাজুক হচ্ছে ভারতের করোনা পরিস্থিতি

দিন দিন নাজুক হচ্ছে ভারতের করোনা পরিস্থিতি। ধারণক্ষমতা হারিয়েছে হাসপাতালগুলো। কাঠের গুড়ি আর আগুনের ধোঁয়ায় ছেয়ে গেছে শ্মশান। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনার ভয়াল থাবা থেকে দেশকে রক্ষা করতে ব্যর্থ হয়েছে মোদি সরকার।

করোনায় ক্রমেই বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল। গেলো কয়েক সপ্তাহ ধরে ভারতের দিল্লিসহ বিভিন্ন রাজ্যের চিত্র এমন।

বিশ্বের ফার্মেসী খ্যাত ভারতের এমন নাজেহাল পরিস্থিতি হবে, আগে হয়তো কেউ ভাবেনি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, এক সপ্তাহে বিশ্বে আক্রান্তের ৪৬ শতাংশ ও মৃত্যুর ২৫ ভাগই ভারতের।

দিল্লিসহ দেশটির অর্ধেকেরও বেশি রাজ্যে চলছে লকডাউন। যদিও জাতীয় লকডাউনের পথে হাঁটছে না মোদি সরকার। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এভাবে চললে দেশটিতে শিগগিরই আঘাত হানবে করোনার তৃতীয় ঢেউ।

আশিষ ঝা, জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ আশিষ ঝা বলেন, আমি ভারতের বেশ কয়েকজন নীতিনির্ধারকের সাথে আলোচনা করেছি। তাদের ধারণা, কয়েকদিন পর এই করুণ পরিস্থিতির সমাপ্তি ঘটবে। তবে আমি বলেছি, এভাবে চলতে থাকলে আগামী কয়েকসপ্তাহর অবস্থা হবে আরও ভয়াবহ।

ভারতের যেসব রাজ্যে চলছে লকডাউন:
দিল্লি               রাজস্থান
বিহার              গোয়া
ওড়িশা             ছত্তিশগড়
উত্তরপ্রদেশ        মহারাষ্ট্র
হরিয়ানা            তামিলনাড়ু
কর্নাটক            কেরালা  
ঝাড়খণ্ড            হিমাচল

করোনায় এই বেহাল দশার কারণ আসলে কী? অনেক রাজনৈতিক বিশ্লেষক বিজেপির নির্বাচনী প্রচারণার সমালোচনা করেছেন। এছাড়া টিকা দেয়ার ধীরগতিকেও দুষছেন কেউ কেউ। এপর্যন্ত মাত্র ৩ শতাংশ মানুষকে টিকা দিতে পেরেছে দেশটি।

ভারতে করোনার উর্ধ্বগতির কারণ:
►টিকাদানে ধীরগতি
►নির্বাচনী জনসমাবেশ
►নিউ ভ্যারিয়েন্ট

রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও লেখক নীলাঞ্জন মুখোপাধ্যায় বলেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ভয়াবহতার জন্য দায়ী মোদি সরকারের অদূরদর্শিতা ও অক্ষমতা। মি. মোদি করোনা নিয়ন্ত্রণে মাথা না ঘামিয়ে একের পর এক নির্বাচনী প্রচার ও নিজের ভাবমূর্তি তৈরিতে ব্যস্ত ছিলেন। দুর্ভাগ্যবশত, গেলো সাত বছর যাবৎ, এই সরকারের সফলতার চেয়ে ব্যর্থতাই বেশি।

বেঙ্গালুরু ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব সায়েন্সের একটি গবেষণা বলছে, আসছে জুনের ১১ তারিখ করোনায় মৃতের সংখ্যা হবে চারলাখ চার হাজারে। আর জুলাইয়ে এই সংখ্যা দাড়াবে ১০ লাখ ১৮ হাজারে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর