channel 24

সর্বশেষ

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সহিংসতায় পুড়েছে ১০ ধরনের টিকা, ব্যাহত হচ্ছে টিকাদান

  • শিবচরে লুডু খেলা নিয়ে সংঘর্ষে একজনের মৃত্যু

  • কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার প্রতিবাদে আবারো উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র

  • ভারতে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ২ লাখ, মৃত্যু ১০২৭

  • মিশরে ট্রেন ও সড়ক দুর্ঘটনা নিহত ৩৬

  • লকডাউনে বিপাকে নিম্নআয়ের মানুষ

  • সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে আব্দুল মতিন খসরুর জানাজা সম্পন্ন

  • চলমান লকডাউনে দ্বিতীয় দিনেই রাস্তায় মানুষের চাপ

  • চট্টগ্রামে নিম্নআয়ের মানুষের নাগালের বাইরে টিসিবি পণ্য

  • গোবিন্দগঞ্জে কাভার্ডভ্যানের চাপায় একই পরিবারের তিনজনসহ নিহত ৪

  • চলমান লকডাউনের কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন জনস্বাস্থ্যবিদদের

  • দ্বিতীয় ঢেউয়ে আরও ভয়ংকর করোনা, হাসপাতালে মিলছে না কাঙ্ক্ষিত সেবা

  • লকডাউনে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে অনলাইন কেনাকাটা

  • লকডাউনে ম্লান ঢাকার ইফতার বাজার

  • বাংলা নববর্ষের প্রথম দিনটি ঘরে কাটলো বাঙালির

করোনায় বছর ব্যবধা বদলে গেছে মধ্যপ্রাচ্যের চিত্র

করোনায় বছর ব্যবধা বদলে গেছে মধ্যপ্রাচ্যের চিত্র

বছর ব্যবধানে চিত্র বদলেছে মধ্যপ্রাচ্য, দক্ষিণ আফ্রিকা আর লাতিন আমেরিকার দেশগুলোতেও। করোনা সতর্কতায়, মুসলিমদের হজ থেকে শুরু করে নানা পর্যায়ে, এখনও বিধিনিষেধ জারি রেখেছে মধ্যপ্রাচ্য। আর ঘুরে দাঁড়াতে দেশে দেশে টিকা কর্মসূচি চললেও, পিছিয়ে আর্থিক মন্দায় থাকা দেশগুলো।

গেল বছর বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস পাল্টে দেয় মসজিদুল হারামের চেনা দৃশ্য। ২০২০ সালের ২৯ জানুয়ারী মধ্যপ্রাচ্যে প্রথম করোনা শনাক্ত হয়, সংযুক্ত আরব আমিরাতে। দেড় মাসের ব্যবধানে ছড়িয়ে পড়ে, ওই অঞ্চলের ১৬ দেশে। বিপাকে পড়ে কুয়েত, কাতার, ইরানসহ সবগুলো দেশ। ৩ দফা লকডাউনে ৯০ দিনের বেশি অচলাস্থায় থাকে সৌদি আরব। দেশটিতে প্রথম ৬ হাজার প্রাণহানির হাজারখানেকই ছিলেন, বাংলাদেশি প্রবাসী। অর্থনৈতিক বিপর্যয়ে মধ্যপ্রাচ্য ছাড়তে বাধ্য হন, লাখো প্রবাসী শ্রমিক।

গত ডিসেম্বর উপসাগরীয় দেশ সৌদি, কুয়েতসহ ৪ দেশে শুরু হয় গণটিকাদান কার্যক্রম। নানা দোলাচলের মাঝেই ফাইজার আর সিনোফার্মার টিকায় ভরসা করে দেশগুলো। কিন্তু টিকা প্রাপ্তির দৌড়ে পিছিয়ে পড়ে যুদ্ধ বিধ্বস্ত ইয়েমেন ও সিরিয়া। পশ্চিমা টিকায় ভরসা নেই জানালেও, শেষমেশ রাশিয়ার টিকা স্পুটনিক প্রয়োগের অনুমোদন দেয়, ইরান।

অন্যদেশগুলোর তুলনায়, দেরিতে প্রকোপ বাড়লেও; এখন সবচেয়ে বিপাকে রয়েছে, দক্ষিণ আফ্রিকা। করোনা নতুন ধরন আটকাতে পারছে না, টিকার সুরক্ষাও। প্রাহানি ছাড়িয়েছে, ৫০ হাজার। এমন পরিস্থিতিতে অর্থনৈতিক মন্দার কবলে রয়েছে, দেশটি।

মার্কিন খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন-এফডিএর অনুমোদনের আগেই, গত ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা প্রয়োগ শুরু করেছে, দক্ষিণ আফ্রিকা। লক্ষ্য, এ বছরের মধ্যে দুই তৃতীয়াংশ জনগণকে টিকা দেয়া।

এবার নজর দেয়া যাক, লাতিক আমেরিকার দিকে। গেল বছরের ২৬ ফেব্রুয়ারি শনাক্তের পর ব্রাজিলে প্রাণহানি ছাড়িয়েছে, ২ লাখ ৬৫ হাজার। এর মাঝে গত ২০ ডিসেম্বর থেকে করোনার নতুন ধরনের ছোবলে পরিস্থিতি আরও জটিল আকার ধারণ করেছে। এতে গত ১৮ জানুয়ারি থেকে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিশিল্ড ও চীনের সিনোভ্যাকের টিকা প্রয়োগ শুরু করেছে, দেশটি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর