channel 24

সর্বশেষ

  • অনিশ্চিত হয়ে পড়ছে ইউরোপিয়ান সুপার লিগের ভবিষ্যৎ

  • বাংলাদেশকে ভ্যাকসিন দিতে দ্রুত সিদ্ধান্ত চায় চীন

  • ফুরিয়ে আসছে করোনার টিকা, বিকল্প উৎসের খোঁজে সরকার

  • হেফাজত নেতা কোরবান আলী ৭ দিনের রিমান্ডে

  • বাংলাদেশিদের ইউরোপ-আমেরিকা যাবার বাধা কাটলো

  • ঠাকুরগাঁওয়ের শিশু জান্নাত এখন পুরোপুরি সুস্থ

  • এবছর সর্বনিম্ন ফিতরা ৭০ টাকা

  • বিএনপিকে জনগণের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান কাদেরের

  • জয় দিয়ে জিম্বাবুয়ে সিরিজ শুরু পাকিস্তানের

  • ব্যর্থতার বৃত্ত ভেঙে আলোয় উজ্জ্বল শান্ত

  • বিদায় মুখ ঢেকে যায় বিজ্ঞাপনের কবি শঙ্খ ঘোষ

  • শান্তর সেঞ্চুরিতে রাঙানো ক্যান্ডি টেস্টের প্রথমদিন

  • জীবিকার তাগিদ বোঝে না করোনা আতঙ্ক, বোঝে না লকডাউন

  • সুপার লিগে ভাঙনের সুর, চুক্তি অনুযায়ী খেলতে বাধ্য- দাবি পেরেজের

  • ক্যারিয়ারের প্রথম শতক তুলে নিলেন শান্ত

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি মালিকানাধীন প্রথম বিশ্বিবিদ্যালয় উদ্বোধন

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি মালিকানাধীন প্রথম বিশ্বিবিদ্যালয় উদ্বোধন

যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন সংলগ্ন ভার্জিনিয়ায় উদ্বোধন হলো ইনোভেটিভ গ্লোবাল ইউনিভার্সিটির। এটি যুক্তরাষ্ট্রে কোন বাংলাদেশির মালিকানাধীন প্রথম ইউনিভার্সিটি। এই ইউনিভার্সিটির মালিক ও উদ্যোক্তা যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী বাংলাদেশী প্রকৌশলী আবুবকর হানিপ।

ইনোভেটিভ গ্লোবাল ইউনিভার্সিটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। উদ্বোধনকালে তিনি বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর ইতিহাসে আরেকটি অধ্যায়ের সংযোজন ঘটলো যুক্তরাষ্ট্রে এই ইউনিভার্সিটি চালুর মধ্য দিয়ে। তিনি আশা করেন, বহুজাতিক এ সমাজে প্রবাসীদের স্বপ্ন বাস্তবায়ন এবং বাংলাদেশি মেধাবিদের দক্ষ হিসেবে গড়ে উঠতে এ বিশ্ববিদ্যালয় অবদান রাখবে। এই প্রতিষ্ঠান বিদেশে উচ্চ বেতনে চাকরির পথ সুগম করবে বলেও উল্লেখ করেন ড. মোমেন।

মার্কিন মুল্লুকে বাঙালির স্বপ্ন-সারথী হয়ে আবির্ভূত হলো বলে-উল্লেখ করেন এই প্রতিষ্ঠানের এমিরিটাস প্রফেসর ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন।

ভার্সিটির মিলনায়তনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এ অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে আরো ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শহীদুল ইসলাম, টেলিকমিউনিকেশন বিশেষজ্ঞ মিজানুর রহমান, সামিট গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান ফরিদ খান, ভয়েস অব আমেরিকা বাংলা বিভাগের প্রধান রোকেয়া হায়দার। ভিডিওতে শুভেচ্ছা জানান, বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য ড. সাজ্জাদ হোসেন, জর্জিয়া স্টেট সিনেটর শেখ রহমান এবং প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার উপদেষ্টা ড. নীনা আহমেদ।

প্রধান অতিথির শুভেচ্ছা বক্তব্য দেয়ার পর স্বাগত বক্তব্য দেন ভার্সিটির চ্যান্সেলর এবং সিইও ইঞ্জিনিয়ার আবুবকর হানিপ। তিনি বলেন, গ্র্যাজুয়েশনের পর চাকরি পেতে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি কারিগরি শিক্ষাও দেয়া হবে প্রতিটি শিক্ষার্থীকে।

আবুবকর হানিফ বলেন, আইটি সেক্টরসহ অনেক দপ্তরেই পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়া চাকরি হয় না। এই ইউনিভার্সিটিতে সেই অভাব পূরণ হবে। বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের অবাধ ভর্তির সুযোগ থাকবে উল্লেখ করে, ইঞ্জিনিয়ার হানিফ বলেন, ২০০৮ সালে প্রতিষ্ঠিত এই ইউনিভার্সিটির তথ্য-প্রযুক্তি, ব্যবসা-প্রশাসন, প্রজেক্ট এবং হেলথ কেয়ার ম্যানেজমেন্ট কোর্স যথেষ্ট সুনাম কুড়িয়েছে।

এ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেনের নামে দুটি স্কলারশিপ ঘোষণা দেয়া হয়। বাংলাদেশ থেকে আসা ছাত্র-ছাত্রীর মধ্য থেকে একটি ব্যাচেলর এবং আরেকটি মাস্টার্স কোর্সের জন্য এই স্কলারশিপ দেয়া হবে।

ইউনিভার্সিটি পরিচালনা পর্ষদের চিফ ফাইন্যান্সিয়াল অফিসার ফারহানা হানিপ জানান, গত দেড় দশকে পিপল এন টেকের মাধ্যমে সংক্ষিপ্ত কোর্স দিয়ে মার্কিন আইটি সেক্টরে সাত হাজারের বেশি প্রবাসীকে উচ্চ বেতনে চাকরির পথ করে দেয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শহীদুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরাও যাতে এই প্রতিষ্ঠানে উচ্চতর ডিগ্রি নিয়ে আন্তর্জাতিক সংস্থাসমূহে ভালো বেতনে চাকরি পান সেজন্যে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দেয়া হবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর