channel 24

সর্বশেষ

  • বাড়ির ছাদে শাটলারদের পাঠশালা

  • ইতালিয়ান সিরি আয় রাতে নামছে জুভেন্টাস

  • লা লিগায় বার্সেলোনার প্রতিপক্ষ ওসাসুনা

  • বুন্দেসলিগায় হাইভোল্টেজ ম্যাচে রাতে মুখোমুখি বায়ার্ন-ডর্টমুন্ড

  • নওগাঁয় বিদ্যুতের মিটার চুরির হিড়িক

  • দেশি পেঁয়াজে সয়লাব চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জ

  • আবারো সচল ঢাকার চারপাশে নদীরক্ষা প্রকল্পের কাজ

  • ফেনীতে হঠাৎ বিস্ফোরণে মা-মেয়েসহ দগ্ধ ৩

  • ২০ ঘণ্টা পেরোলেও স্বাভাবিক হয়নি কুষ্টিয়ার রেল চলাচল

  • জয়পুরহাটে নিষিদ্ধ পপির আবাদে ঝুঁকছেন অনেকে

  • আসন্ন নির্বাচনে 'নন্দীগ্রাম' থেকে প্রার্থীতার ঘোষনা দিলেন মমতা

  • নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে চাপের মুখে মিয়ানমারের জান্তা সরকার

  • বিমান বাংলাদেশের বহরে যুক্ত হলো 'শ্বেতবলাকা'

  • ব্যর্থতা ঝেড়ে ধারাবাহিক সফল হতে চান নাজমুল শান্ত

  • ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরতে চান মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা

কৃষক আন্দোলনে উত্তাল নয়াদিল্লি

কৃষক আন্দোলনে উত্তাল নয়াদিল্লি

প্রজাতন্ত্র দিবসে নয়াদিল্লিতে কৃষকদের নজিরবিহীন প্রতিবাদ দেখলো ভারত। ট্রাক্টরসহ রাজধানীর কয়েকটি এলাকায় ঢুকে পড়েন আন্দোলনরতরা। ঐতিহাসিক লালকেল্লায় উড়ানো হয় কৃষক সংগঠনের পতাকা। বিক্ষোভকারীদের হটাতে রীতিমত রণক্ষেত্রে পরিণত হয় রেডফোর্ড। দীনদয়াল মার্গ এলাকায় পুলিশ-কৃষক সংঘর্ষে প্রাণ গেছে একজনের।

রাজধানীর রাইসিনা হিলে কুচকাওয়াজে শ্রদ্ধা গ্রহণে যখন ব্যস্ত প্রধানমন্ত্রী মোদি। সেসময় বিভিন্ন রাজ্যের কৃষকরা ট্রাক্টর নিয়ে রওনা হয়েছেন লালকেল্লা অভিমুখে।

পুলিশের নির্দেশনা ছিলো দুপুর ১২ টা নাগাদ কৃষক শোভাযাত্রা নির্দিষ্ট ৩ টি রুটে গিয়ে ফের উৎসবস্থলে ফিরে আসবে। এসবের কিছুই তোয়াক্কা করেননি আন্দোলকারীরা।

পুলিশি বাধা উপেক্ষা করে একদল কৃষক ঢুকে পড়ে লালকেল্লায়। নিজেদের সংগঠনের পতাকা টঙিয়ে দেয়া হয় কেল্লায়। বেলা বাড়ার সঙ্গেই সহিংস রুপ নেয় কৃষকদের প্রজাতন্ত্র র‍্যালী।

পুলিশ-কৃষক সংঘর্ষ বাধে দিল্লির আইটিও চত্বর, নাংলোই এলাকায়। কৃষকদের অভিযোগ, দীনদয়াল মার্গে ঢোকার পথে তাদের গতিরোধ করা হয়। এখানে গুলিতে মারা যান আন্দোলনকারী।

এক আন্দোলনকারী বলেন, 'শান্তিপূর্ণভাবে কর্মসূচি পালন করছিলাম। হঠাৎ করেই পুলিশ আমাদের উপর টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে, লাঠিচার্জও করেছে।'

আরেক আন্দোলনকারীর ক্ষোভ 'প্রধানমন্ত্রী, এটা কৃষকদের রাষ্ট্র। আমাদের কথা শুনতে হবে। জোর করে আমাদের ওপর কোনো আইন চাপিয়ে দেয়া যাবে না।'

সহিংসতার পর, সিন্ধু, গাজিপুর, টিকরি, মুকার্বা চক, নাঙ্গলোই এলাকায় সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয় ইন্টারনেট। কৃষকদের শান্তি বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতারাও।

বিতর্কিত ৩ কৃষি আইনের বিরুদ্ধে ৩ মাস ধরেই উত্তপ্ত ভারত। কেন্দ্রীয় সরকারের সাথে ১১ দফা বৈঠকের পরও মেলেনি সমাধান।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর