channel 24

সর্বশেষ

  • জাতীয় দলের নির্বাচক হলেন আবদুর রাজ্জাক

  • ঐতিহ্যের লড়াইয়ে কাল মোহামেডান-আবাহনী মহারণ

  • সুনামগঞ্জে কিশোরীকে ধর্ষণ ঘটনায় মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার

  • কক্সবাজার সদর হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড, অর্ধশতাধিক আহত

  • এএফসি কাপে এক গ্রুপে পড়ার সম্ভাবনা বসুন্ধরা-আবাহনীর

  • ইনজুরির সাথে লড়াই করছেন সাইফুদ্দিন

  • বেনজির ভুট্টোর কন্যার বিয়েতে যাবেন না মরিয়ম

  • তিনি ছিনতাইকারী পুষতেন!

  • অব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে টঙ্গী ভেন্যুর যাত্রা শুরু

  • ওয়ানডে র‍্যাংকিংয়ের সেরা দশে মিরাজ-মোস্তাফিজ

  • সমালোচনাকারীদেরও টিকা নিতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

  • ফুলকপিতে ছত্রাকের আক্রমণ

  • সাবেক অর্থমন্ত্রী কিবরিয়া হত্যা মামলায় ৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ

  • করোনার প্রথম টিকা নিলেন নার্স রুনু কস্তা

  • টেকনাফে অসহায়দের খাবার, বস্ত্র ও চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে 'মারোত'

মাস্ক তৈরির কাজ করে স্বাবলম্বী তেহরানের একদল নারী

মাস্ক তৈরির কাজ করে স্বাবলম্বী তেহরানের একদল নারী

শতপ্রতিকূলতার ভেতরেও ইচ্ছেশক্তি আর কর্মদ্যোম তৈরি করে, আত্মনির্ভরশীলতার গল্প। বৈশ্বিক মহামারিতে ছন্দহীন জীবনে, তেহরানে তারই উদাহরণ একদল নারী। মাস্ক তৈরির কারখানায় কাজ করে স্বাবলম্বী হয়েছেন, ধরেছেন সংসারের হাল।

ইরানের তেহরানের সালেহাবাদ গ্রামের একদল নারীর ঘুরে দাঁড়ানোর গল্প এটি। বৈশ্বিক মহামারিতে কর্মহীন মানুষের দীর্ঘশ্বাসের ভিড়ে, আত্মনির্ভরশীল, একদল নারী।

কয়েকজন দাঁতের চিকিৎসকের উদ্যোগে গড়ে ওঠে, এই মাস্ক কারখানার মূল কারিগর ২০ জন নারীকর্মী। যাদের শ্রমে-ঘামে, রাজধানীর মাস্কের চাহিদা পূরণ হচ্ছে অনেকটাই।

গড়ে প্রতিদিন প্রায় ১০ হাজার মাস্ক তৈরি হয়, কারখানাটিতে। যাতে এক একজন কর্মীর দৈনিক আয় ১২০ ডলার। কারখানা একজন শ্রমিক বলেন, আমি গত আট মাস ধরে এখানে কাজ করছি। আমার পাঁচ বছরের একটি সন্তান আছে। আমার স্বামী আমাদের রেখে আরেকটি বিয়ে করে আফগানিস্তানে চলে গেছে। আমি আমার সন্তানকে নিয়ে এখন ভালোই চলছি। এমনকি আমি আমার স্বামীর দ্বিতীয় সংসারে অর্থ দিয়ে সাহায্য করছি।

উদ্যোক্তা জালাল আদেলি বলেন, যেকোনো দুর্যোগে সরকারকে যদি সাধারণ মানুষ সাহায্য করে, সেক্ষেত্রে অনেক দ্রুত ও ভালো ফল পাওয়া যায়। করোনা মহামারিও এর ব্যতিক্রম নয়।

বৈশ্বিক মহামারির প্রথমদিকে বিভিন্ন দেশ থেকে মাস্কসহ প্রয়েোজনীয় সরঞ্জাম কিনলেও, আর্থিক ও জ্বালানিখাতে নিষেধাজ্ঞার কারণে, বিল পরিশোধে জটিলতা পড়েছিল ইরান।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর