channel 24

সর্বশেষ

  • বাংলাদেশের কোয়ারেন্টিন ইস্যুতে এখনো ধোঁয়াশায় লঙ্কান ক্রিকেট

  • 'ব্যক্তি নয়, টিম হিসেবেই চলছে ফেডারেশন'

  • প্রচারণায় সরগরম বাফুফে নির্বাচন

  • এবার ১৪ বছর কনডেম সেলে থাকা আসামিকে খালাস

  • করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বই আকারে সংরক্ষণ

  • অর্থনীতি সচল রেখে করোনার দ্বিতীয় ওয়েভ মোকাবিলা করা হবে

  • তরুণীর করা মামলায় নুরের বিরূদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • কুড়িগ্রামে কাঠমিস্ত্রি হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড

  • এবার স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের স্ত্রী-সন্তানের সম্পদের খোঁজে দুদক

  • উচ্চ পুষ্টিমান ও ঔষধি গুণসম্পন্ন মাশরুম

  • চট্টগ্রামে করোনায় নতুন করে আক্রান্ত ৫৬

  • মাঝারি বর্ষণ পানিবন্দী চট্টগ্রামের বেশ কিছু এলাকা

  • চট্টগ্রাম বন্দরে কম্পিউটার অপারেটর পদে কোটা না মানার অভিযোগ

  • নুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণ-ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার প্রতিবেদন ১৩ অক্টোবর

  • চট্টগ্রামে দোকান কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যায় মামলা দায়ের, আটক ২

বন্দরের গুদামে মজুদ 'অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট' থেকেই কি বিস্ফোরণ?

বন্দরের গুদামে মজুদ 'অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট' থেকেই কি বিস্ফোরণ?

লেবাননের ভয়াবহ বিস্ফোরণের কারণ এখনো স্পষ্ট নয়। দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর দাবি, বন্দরের একটি গুদামে ছয় বছর ধরে মজুদ ছিল ২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট। সেখান থেকেই বিস্ফোরণ ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে দাবি করেছে তারা।

লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব বলেছেন, বৈরুত বন্দরের একটি গুদামে বিপুল পরিমাণ অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট মজুত ছিল। সেখান থেকেই দুর্ঘটনা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, গত ছয় বছর ধরে ওই গুদামে দুই হাজার ৭৫০  ম্যাট্রিক টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট মজুত করে রাখা হয়েছিল। ২০১৪ সালে একটি মালবাহী জাহাজে করে ওই রাসায়নিক এসেছিল। কাগজপত্রে ঝামেলা থাকায় বন্দর কর্তৃপক্ষ জাহাজের সরঞ্জাম বাজেয়াপ্ত করে। তারপরই ওই রাসায়নিক গুদামে মজুত রাখা হয়। কথা ছিল, পরে নিলামের মাধ্যমে ওই রাসায়নিক বাজারে ছেড়ে দেওয়া হবে। তবে গত ছয় বছরে সে কাজ করা যায়নি। শুধু তাই নয়, এই পরিমাণ রাসায়নিক যেখানে মজুত ছিল, সেখানে যথেষ্ট নিরাপত্তার ব্যবস্থা ছিল না।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট জমিতে সারের কাজে লাগে। খনিতে কাজে লাগে। আবার বোমা তৈরিতেও ব্যবহার করা হয়। সহজেই এর থেকে বিস্ফোরণ হতে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, যাঁদের গাফিলতিতে এই ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটেছে, তাদের সবাইকে কঠোরতম শাস্তি দেওয়া হবে। তবে আপাতত আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করাই সরকারের প্রথম এবং প্রধান লক্ষ্য।

এদিকে লেবাননের বিস্ফোরণের ঘটনাকে ‘ভয়াবহ হামলা’ উল্লেখ করে লেবাননের জনগণকে সমবেদনা জানিয়েছেন ট্রাম্প। সেই সঙ্গে তিনি তাদের জন্য সহায়তা পাঠানোর ঘোষণা দেন। ট্রাম্প বলেন, লেবাননের সঙ্গে আমেরিকার সুসম্পর্ক রয়েছে। আমেরিকার তাদের পাশে থাকবে।

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে যে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে এতে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ২১ সদস্য আহত হয়েছেন। তারা বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজ বিএনএস বিজয়ে অবস্থান করছিলেন। বিস্ফোরণে জাহাজটিও সামান্য ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলে জানা গেছে। লেবাননের যে স্থানে বোমা বিস্ফোরন হয়েছে, সেখানে তিন থেকে চার হাজার বাংলাদেশি থাকেন। এর মধ্যে দুজনের মৃত্যু খবর নিশ্চিত করেছে দূতাবাস। একজন ব্রাক্ষণবাড়িয়ার মেহেদি ও অপরজন শরীয়তপুরের মিজান। আরও কয়েকজনের মৃত্যুর খবর যাচাই-বাছাই করছে দূতাবাস।

উল্লেখ্য, লেবাননের রাজধানী বৈরুতে মঙ্গলবার (স্থানীয় সময়) সন্ধ্যায় জোড়া বিস্ফোরণে কমপক্ষে ৭৮ জন নিহত এবং প্রায় চার হাজার মানুষ আহত হয়েছে। পরপর দুটি বিস্ফোরণে মুহূর্তেই ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয় বৈরুত বন্দর। ধসে পড়ে আশপাশের বেশ কিছু ভবন। বিস্ফোরণ স্থলের ১০ কিলোমিটার দূরের বাড়িঘরের কাঁচও ভেঙ্গে পড়ে। প্রচন্ড ধোয়ায় ছেড়ে যায় গোটা এলাকা। বিস্ফোরণের মাত্রা এতোটাই প্রকোট ছিল যে কয়েক মাইল দূরের এলাকাও কেঁপে ওঠে। ধ্বংসস্তুপের নিচে এখনো আটকে আছে বহু মানুষ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর