channel 24

সর্বশেষ

  • বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত করেছে জাতিসংঘ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি খুনে মাফিয়াদের বিচার চান স্বজনরা

  • বাসভাড়া বৃদ্ধি মরার উপর খাড়াঁর ঘা

  • সীমিত পরিসরে সেবার নামে বাসভাড়া ৮০ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব

  • চট্টগ্রামে এবার চিকিৎসা পেলেন না স্বাস্থ্য পরিচালকের মা!

  • কক্সবাজারে নতুন করে ২৬ জন করোনায় আক্রান্ত

  • ভার্চুয়াল শপথ নিলেন ১৮ বিচারপতি

  • করোনাকালে অসহায়দের পাশে 'ওল্ড ল্যাবরেটরি অ্যাসোসিয়েশন'

  • মেহেরপুরে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন তিন চিকিৎসক

  • রিয়াল বেতিস-সেভিয়া ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফিরছে লা লিগা

  • প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা ছাড়া কোনো রোগীকে ফেরত দেওয়া যাবে না

  • সোমবার শুরু হচ্ছে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চলাচল

  • কাল শুরু হচ্ছে সীমিত আকারে ট্রেন চলাচল

  • চট্টগ্রামে ১০ দিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুন

  • চলে গেলেন সাবেক তারকা ফুটবলার গোলাম রব্বানী হেলাল

করোনায় ঘরবন্দি কোটি কোটি মানুষ, বাড়ছে পারিবারিক সহিংসতা

করোনায় ঘরবন্দি কোটি কোটি মানুষ, বাড়ছে পারিবারিক সহিংসতা

করোনা বদলে দিয়েছে সকল সমীকরণ। শুধু মৃত্যুর মিছিলই ভারি হচ্ছে না। ভেঙে যাচ্ছে চিরায়ত পারিবারিক বন্ধনও। কর্মহীন এ সময়টায় ঘরে থাকায় মনস্তাত্বিক দুরত্ব বাড়ছে স্বামী-স্ত্রীর; আর এতে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে দাম্পত্য জীবনে।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলো বলছে, দেশে দেশে লকডাউন আর কোয়ারেন্টিনে ঘরবন্দি কোটি কোটি মানুষ লকডাউন আর কোয়ারেন্টিন লাইফে পারিবারিক সহিংসতা অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি এখন বিশ্বজুড়ে।

বলা হচ্ছে, শুধু যুক্তরাষ্ট্রের সানফ্রানসিসকো রাজ্যে পারিবারিক কলোহের মামলা বেড়েছে প্রায় ৬০ শতাংশ।

লা কাসা দে লাস মাদ্রেসের নির্বাহী পরিচালক ক্যাথি ব্ল্যাক বলছেন, 'মূলত এক ঘরে অনেকদিন বন্দিদশায় থাকার কারণে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ছে অনেক দম্পতি। কেউই এক স্থানে থাকতে চান না। এ অবস্থায় শারীরিক, মানসিক নিপীড়নও বেড়ে চলছে।' 

যুক্তরাজ্যেও ভয়াবহ রূপ নিয়েছে পারবারিক সংঘাত। দাতব্য সংস্থা-রিফিউজি কমিউনিকেশনের পরিচালক লিসা কিং বলছেন, 'কেবল আমাদের প্রতিষ্ঠানের হেল্পলাইনের কল বেড়েছে ২৫ শতাংশ। এই সংখ্যাটা ভয়াবহ। কারণ পারিবারিক কলোহের কারণে ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে প্রতি সপ্তাহে দুই জন নারী প্রাণ হারান।'

অবশ্য, সবচেয়ে বাজে অবস্থা লাতিন আমেরিকার দেশগুলোতে। নারী নিপীড়ন পর্যবেক্ষণকারী দেশটির সংস্থা কাসা দেল এনকুয়েন্ত্রো জানায়, কেবল গেলো এক সপ্তাহেই আর্জেনিয়ায় নিপীড়নে মারা গেছে ১২ নারী। মূলত কোয়ারেন্টিন অবস্থাতেই পারিবারিক সহিংসতা বেড়েছে ৩০ শতাংশ।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল আর্জেন্টিনা জানায়, সবচেয়ে বেশি ৬০ শতাংশ বুয়েন্স আয়ার্সে। চিলিতে সংঘাত বেড়েছে ৭০ শতাংশ।

জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেন, 'নারীরা যখন নিজের বাড়িতেই নিরাপদ নয় তখন হুমকির মাত্র অনেক বেড়ে যায়। তাই আমি বিশ্বের সকল মানুষের কাছে আহবান জানাই পারিবারিক কলহ থেকে বিরহ থাকুন।'

 ফ্রান্স জুড়ে পারিবারিক সহিংসতা বেড়েছে ৩২ শতাংশ। এর মধ্যে কেবল প্যারিসে এক সপ্তাহেই সহিংসতার হার ৩৬ শতাংশ। রাশিয়ার চিত্রটাও একই ধরনের।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর