channel 24

সর্বশেষ

  • সার্জিক্যাল মাস্ক উৎপাদন ও বাজারজাত করছে মিনিস্টার

  • ঈদের পর অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট দলের বাছাই

  • যে ভাবে খুন হন পাঠাও'র সহ-প্রতিষ্ঠাতা ফাহিম সালেহ

  • ২১ নভেম্বর শুরু ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ

  • করোনায় সাবেক নৌপ্রধানের মৃত্যু

  • গভর্নর পদে ফজলে কবিরের মেয়াদ বাড়ল আরও ২ বছর

  • দল বদলায়, বদলায় সরকার; কিন্তু সাহেদ-রা থাকে ক্ষমতার বলয়ে

  • সরকারি বরিশাল কলেজের নাম পরিবর্তন, পক্ষে-বিপক্ষে গণস্বাক্ষর

  • শূন্য হাতে এসে বনে যান জাদুর শহরের বনেদি ক্লাবের সদস্য

  • ঈদে গণপরিবহন বন্ধ থাকার খবর নিয়ে বিভ্রান্তি; সিদ্ধান্ত কাল: কাদের

  • সাহেদের হাতে প্রতারিত অনেকের র‍্যাব সদরদপ্তরে ভিড়

  • আশুলিয়ায় করোনা জয়ী পুলিশ সদস্যদের সংবর্ধনা

  • চট্টগ্রাম বন্দরের কেমিক্যাল শেডে আগুন

  • মেঘনার ভাঙনে দিশেহারা নোয়াখালী ও লক্ষ্মীপুরের লাখো মানুষ

  • ঢাকা মেডিকেলে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে ডিবি কার্যালয়ে সাহেদ

করোনায় ইতালিতে একদিনে মৃত্যু ৬৮৩, বিশ্বে প্রাণহানি ২১ হাজার ছাড়ালো

করোনায় ইতালিতে একদিনে মৃত্যু ৬৮৩, বিশ্বে প্রাণহানি ২১ হাজার ছাড়ালো

করোনা ভাইরাসে ২৪ ঘন্টায় ইতালিতে মারা গেছে ৬৮৩ জন। এ নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাড়ালো ৭ হাজার ৫০৩ জনে। আর প্রাণহানিতে ইতালির পর এবার চীনকেও ছাড়িয়েছে স্পেন।

দেশটিতে একদিনে প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ৭৩৮ জন। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ৩ হাজার ৬৪৭ জনে। বিশ্বজুড়ে প্রাণহানি ২১ হাজার ছাড়িয়েছে; আক্রান্ত ৪ লাখ ৬৭ হাজারের বেশি।

ইতালিতে নতুন আক্রান্তে সংখ্যা কিছুটা কমলেও ঠেকানো যাচ্ছে না প্রাণহানি। বাড়ি বাড়ি গিয়ে লাশ উদ্ধার করছে দেশটির সেনাবাহিনী। স্পেনেও পরিস্থিতি উন্নতির কোনো লক্ষণ নেই।

বলা হচ্ছে, চীন আর ইতালির পর করোনার নতুন কেন্দ্র হতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। নিউইয়র্ক, ওয়াশিংটনের অবস্থা সবচেয়ে ভয়াবহ। যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা সাতশো ছাড়িয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার শঙ্কা, করোনার পরবর্তী কেন্দ্রস্থল হতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। যদিও ট্রাম্পের দাবি, শিগগিরই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে।

ভারতজুড়ে চলছে ২১ দিনের লকডাউন। দেশটির একশ ত্রিশ কোটি মানুষকে ঘরে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। মোতায়েন হয়েছে বাড়তি পুলিশ। করোনা মোকাবেলায় প্রস্তুতি পর্যবেক্ষণে পশ্চিমবঙ্গে বিভিন্ন হাসপাতাল ঘুরে দেখেন মমতা বন্দোপাধ্যায়।

তবে ভিন্ন চিত্র চীনে। প্রায় দুই মাস পর স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে দেশটির জনজীবন। উহান ছাড়া প্রায় সব শহর থেকে তুলে নেয়া হচ্ছে বিধি-নিষেধ। স্বাভাবিক হচ্ছে যান চলাচল। খুলছে দোকান-পাট। নিজ বাড়িতে ফিরতে শুরু করেছেন চিকিৎসা কর্মীরাও।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর