channel 24

সর্বশেষ

  • করোনায় দেশে নতুন করে শনাক্ত ২: আইইডিসিআর

  • করোনা উপসর্গ নিয়ে লক্ষ্মীপুরে বৃদ্ধের মৃত্যু

  • করোনা: আইডেশি ল্যাবে পিসিআর টেস্টের মাধ্যমে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে মিলবে ফল

  • করোনায় গত ২৪ ঘন্টায় নিউইয়র্কে ১৮ বাংলাদেশীর মৃত্যু

  • রাঙামাটিতে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

  • নওগাঁয় পুলিশের সাথে 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ২

  • পুলিশ হেফাজতে মৃত্যু: বরগুনার আমতলী থানার ওসির বিরুদ্ধে মামলা

  • ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের ৩৬ হাজার কর্মীকে বরখাস্তের ঘোষণা

  • 'এ মাসের মধ্যেই করোনার অ্যান্টিবডি পরীক্ষা সম্ভব'

  • সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান ডিলু মারা গেছেন

  • ইসরাইলের স্বাস্থ্য মন্ত্রী এবং তার স্ত্রী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

  • এশিয়ার বৃহত্তম বস্তিতে ১জনের মৃত্যু, ৭ জনকে কোয়ারেন্টিনে

  • যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে একদিনে রেকর্ড ১২৮২ জনের মৃত্যু

  • ইউরো, অলিম্পিকের পর এবার বাতিল উইম্বলডন

  • লকডাউনের অচেনা নগরীতে নেই ছিনতাইকারীর আতঙ্ক, প্রতিনিয়ত টহলে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী

বিজেপির দর্পচূর্ণ করে দিল্লির মসনদে কেজরিওয়ালের হ্যাটট্রিক

বিজেপির দর্পচূর্ণ করে দিল্লির মসনদে কেজরিওয়ালের হ্যাটট্রিক

ভারতের দিল্লিতে হ্যাটট্রিক জয় মাত্র ৮ বছর বয়সী আম আদমি পার্টির। ৭০ আসনের বিধানসভায় ৬৩টিতেই জয়ী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের দল। বিজেপি পেয়েছে মাত্র ৭ আসন। বিজয় ভাষণে দিল্লিবাসীকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে কেজরিওয়াল বলেন, বিভাজনের রাজনীতি প্রত্যাখান করেছে মানুষ। নতুন ধারার রাজনীতি শুরু হলো ভারতে।

ভোট গণনা শুরুর আধাঘন্টার মাথায়ই বোঝা যাচ্ছিলো দিল্লির বিধানসভার ফলের ট্রেন্ড। এ ট্রেন্ড দেখেই তৈরি হতে শুরু করে নয়া সমীকরণ।

নির্বাচনি প্রচারণার মাঠে মোদিসহ বিরোধী নেতাদের টার্গেটে পরিণত হন কেজরিওয়াল।

২০১৩ সালে বিজেপিকে রুখে দিয়ে দিল্লির মসনদে বসার পর থেকেই মোদির কড়া রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ আপ প্রধান।

এ পর্যন্ত ঘোষিত ফলে ৭০ আসনের মধ্যে ৫৮ টিতে এগিয়ে রয়েছে কেজরিওয়ালের দল। আর ১২ টিতে এগিয়ে বিজেপি।

নিজ আসনে হ্যাট্রিক জয়ের পথে আম-আদমি প্রধান। দিল্লিতে দলটির সদর দপ্তরের বাইরে উৎসবে মেতেছেন নেতাকর্মিরা। টেলিফোনে কেজরিওয়ালকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একে গণতন্ত্রের জয় আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, নাগরিকত্ব আইন এবং এনআরসি প্রত্যাখান করেছে, দিল্লিবাসী। ২০১৫ সালের দিল্লির ৭০ আসনের মধ্যে ৬৭ টিতে জয় পায় আম-আদমি।

অবশ্য, প্রচারণার মাঠে নেমে দিল্লিবাসীর জন্য কাজের নানা প্রতিশ্রুতি ছিলো কেজরিওয়ালের কণ্ঠে। বিপরীতপক্ষে জাতীয়তাবাদি প্রচার, নাগরিকত্ব আইন, শাহীনবাগের উত্থান নানা ইস্যুর ঘনঘটায় এবারের ভোট।

লোকসভায় দিল্লির ৭ আসনের ৭ টিতেই জয় পেয়েছিলো বিজেপি। এর আগে ২০১৫ সালের বিধানসভা ভোটেও আম আদমি স্রোতে ভেসে যায় বিজেপি।

কেজরিওয়ালকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বিজেপির এমপি গৌতম গাম্ভির।

মমতার দাবি, এ পরাজয়ের পর বিজেপির উচিত নাগরিকত্ব আইন এবং এনআরসি নিয়ে পিছু হটা। মানুষ বিভাজনের রাজনীতি প্রত্যাখান করেছে।

কেউ পোস্টার, কেউ ফুল, সবার হাতে দলের প্রতীক ঝাটা, কেউ আবার সন্তানকে কেজরিওয়াল সাজিয়ে হাজির অফিসে।

অনেকে অবশ্য বলতে শুরু করেছেন, ২০২৪ এর নির্বাচন হবে মোদি বনাম কেজরিওয়ালের। মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে হিংসার রাজনীতি করছে। এটা মেনে নেয়নি জনগন। সে কারণে মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, মহারাষ্ট্র, ঝাড়খাণ্ড ও দিল্লিতে একে একে  হারের মুখে বিজেপি।

লোকসভা নির্বাচনের পর এ যাবত সবগুলোই ভোটেই হেরেছে বিজেপি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর