channel 24

সর্বশেষ

  • নওগাঁয় পুলিশের সাথে 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ২

  • পুলিশ হেফাজতে মৃত্যু: বরগুনার আমতলী থানার ওসির বিরুদ্ধে মামলা

  • ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের ৩৬ হাজার কর্মীকে বরখাস্তের ঘোষণা

  • 'এ মাসের মধ্যেই করোনার অ্যান্টিবডি পরীক্ষা সম্ভব'

  • সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান ডিলু মারা গেছেন

  • ইসরাইলের স্বাস্থ্য মন্ত্রী এবং তার স্ত্রী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

  • এশিয়ার বৃহত্তম বস্তিতে ১জনের মৃত্যু, ৭ জনকে কোয়ারেন্টিনে

  • যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে একদিনে রেকর্ড ১২৮২ জনের মৃত্যু

  • ইউরো, অলিম্পিকের পর এবার বাতিল উইম্বলডন

  • লকডাউনের অচেনা নগরীতে নেই ছিনতাইকারীর আতঙ্ক, প্রতিনিয়ত টহলে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী

  • চার দেয়ালের মাঝে কেমন কাটছে শিশুদের দিনলিপি?

  • বিশ্বে মৃত্যু ছাড়ালো ৪৪ হাজার, আক্রান্ত প্রায় ৯ লাখ

  • চট্টগ্রামে বেসরকারি উদ্যোগে অস্থায়ী হাসপাতাল হচ্ছে

  • চট্টগ্রামে লকডাউনের ভুতুড়ে পরিবেশে সুযোগ নিচ্ছে ছিনতাইকারী

  • নিম্নআয়ের মানুষের সহায়তায় এগিয়ে এসেছে বিভিন্ন সংগঠন-সংস্থা

করোনায় 'মৃত্যুকূপ' উহান-হুবেইতে বাড়ছে প্রাণহানি

করোনায় 'মৃত্যুকূপ' উহান-হুবেইতে বাড়ছে প্রাণহানি

চীনে করোনাভাইরাসে আরও একশো ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে প্রাণহানির সংখ্যা এক হাজার ছাড়ালো। মৃতের বেশিরভাগই হুবেই প্রদেশের। এছাড়া বেইজিং, হেনান ও তিয়ানজিংয়েও বেশ কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে। মোট আক্রান্ত ৪২ হাজার ছয়শোর বেশি। করোনার উৎপত্তিস্থল হুবেই প্রদেশের, স্বাস্থ্য কমিশনের সিনিয়র দুই কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।

এক দুই তিন করে হাজার ছাড়িয়েছে করোনায় মৃতের সংখ্যা। এক ভাইরাসের সামনে যেন অসহায় শক্তিশালি চীন। চোখের সামনে প্রিয়জনের মৃত্যু দেখা আর লাশের সংখ্যা গণনা করা ছাড়া আর কিছুই যেন করার নেই।

সবচেয়ে বেশি খারাপ অব্স্থা হুবেই প্রদেশে। তবে অন্যান্য রাজ্যের অবস্থাও ভয়াবহ। থেমে নেই নতুনভাবে আক্রান্তের সংখ্যাও। আশার বানী শোনাতে পারেনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মুখপাত্র তারিক জাসারেভিক বলেন, 'আক্রান্তের মধ্যে ৯৯ শতাংশই চীনা নাগরিক। বাকিরাও কোনো না কোনোভাবে সম্প্রতি চীন থেকে ঘুরে এসেছেন। আমরা দেখছি প্রতিনিয়তই মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে। যদিও চীন ভাইরাসটির বিস্তার রোধে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নিয়েছে। তবে তা কাজে আসছে না।'

চীনের বাইরেও আক্রান্ত বেড়েই চলেছে। নতুনভাবে আক্রান্তর সন্ধান মিলেছে যুক্তরাষ্ট্র ও থাইল্যান্ডে। হুমকির মুখে পড়েছে সিংগাপুর বিমান প্রদর্শনী। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ অংশ না নেয়ার কথা জানিয়েছে। এছাড়া সাড়া নেই দর্শনার্থীদের মধ্যে। তাই বড় ধরণের আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কা আয়োজকদের।

অ্যাসোসিয়েশন অব এশিয়া প্যাসিফিক এয়ারলাইনসের পরিচালক এন্ড্রু হার্ডম্যান বলেন, 'এয়ারশোতে বিশাল পরিমান অর্থ বিনিয়োগ করা হয়েছে। জানিনা শেষ পর্যন্ত প্রদর্শনীর আয়োজন করতে পারবো কিনা। যদিও আক্রান্তের সংখ্যা এখনো সিংগাপুরে তুলনামুলকভাবে কম।'

এদিকে জাপানে আটকা পড়া যাত্রীদের মধ্যে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে।

ডায়মন্ড প্রিন্স জাহাজের যাত্রী মাকিন নাগরিক গেই কার্টার বলেন, 'আমরা এখনো ভালো আছি। প্রতিদিন একধিকবার শরীরের তাপমাত্রা মেপে দেখা হচ্ছে। তবে যেকোনো সময় আক্রান্তের ভয়ে আছি।'

ভাইরাস রোধে রাতদিন এক করে চেলেছে চীন। তবে প্রতিষেধক নিয়ে এখনো আশা জাগানিয়া কোনে সংবাদ দিতে পারেনি দেশটির সরকার।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর