channel 24

সর্বশেষ

  • বিড়াল উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিস!

  • মুজিব বর্ষ উপলক্ষ্যে সুপ্রিমকোর্টে ক্ষণ গণনার ঘড়ি উদ্বোধন

  • করোনা ভাইরাস: শাহজালাল বিমানবন্দরে বসানো হয়েছে স্ক্যানিং মেশিন

  • শেষ হল নারী ফুটবল লিগের দলবদল

  • নড়াইলে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী ষাঁড়ের লড়াই

  • মৌলভীবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে তিনদিন ধরে সার্ভারে সমস্যা

  • এক নারীকে নির্যাতনের পর পিকআপ থেকে ফেলে দেয়ার অভিযোগ

  • মিথ্যা ঘোষণায় আনা ১ কন্টেইনার সিগারেট জব্দ

  • বাংলাদেশকে অন্ধকার থেকে আলোতে এনেছে আ.লীগ: পরিকল্পনামন্ত্রী

  • কলেজছাত্রী হত্যা মামলায় প্রভাষকের মৃত্যুদণ্ড, এডভোকেটের যাবজ্জীবন

  • তেঁতুলিয়ায় শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে নিহত ১, আহত অর্ধশতাধিক

  • হামলা-মামলার বিষয়ে কূটনীতিকদের অবহিত করলো বিএনপি

  • নিখুঁতভাবে কৃষিকাজ করছে রোবট

  • ইলিশের পুষ্টিগুণ, ডিমছাড়া নাকি ডিমওয়ালা ইলিশটি বেশি স্বাদের?

  • মাছকে খাবার দিবে যন্ত্র! দেশেও শুরু হয়েছে এই প্রযুক্তি

দৃষ্টিনন্দন স্থাপত্যশৈলীর কেন্দ্রবিন্দু সিঙ্গাপুর

দৃষ্টিনন্দন স্থাপত্যশৈলীর কেন্দ্রবিন্দু সিঙ্গাপুর

মানচিত্রে ছোট্ট একটি দেশ সিঙ্গাপুর। তাই সাগরে মাটি ভরাট করে এর পরিধি বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়া হয় সাড়ে ৫ দশক আগে। তাতে বিগত সময়ে ভূখন্ডটির আয়তন বেড়েছে ২৫ শতাংশ বা ১শ ৩০ বর্গকিলোমিটার। আর এই জায়গার বড় একটি অংশই কাজে লাগানো হয়েছে পর্যটন শিল্পের বিকাশে। যার অন্যতম মেরিনা বে এলাকা। দৃষ্টিনন্দন স্থাপত্যশৈলীর কারণে যে জায়গাটি সিঙ্গাপুরের পর্যটনের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে।

১৯৬৫ সালে স্বাধীনতা লাভের পর সিঙ্গাপুরের আয়তন ছিল মাত্র ৬শ বর্গকিলোমিটার। তাই শুরু হয় সাগর ভরিয়ে দ্বীপ রাষ্ট্রটির পরিধি বাড়ানোর কাজ। তাতে গেল সাড়ে ৫ দশকে যোগ হয়েছে প্রায় ১শ ৩০ বর্গকিলোমিটার এলাকা।

সীমা বাড়িয়ে ভূমিকে লাগানো হয় নানা কাজে। যার অন্যতম পর্যটন খাত। আর সিঙ্গাপুরের পর্যটনে কথা আসলে সামনে চলে আসে মেরিনা বে'র নাম। সাগর ভরাট করা মেরিনা বে এলাকায় ঠায় দাঁড়িয়ে আছে বিষ্ময়কর স্থাপত্যশৈলীর ইমারত মেরিনা বে স্যান্ড হোটেল। তার একপাশে বাগান। যার সৌন্দর্যে বিমোহিত পর্যটকরা।   

বাগানটি নিয়মিত মুখর থাকে পর্যটকদের পদচারণায়। যেখানে নেই নিরাপত্তার কোন সমস্যা। আরেক পাশে মার্লিয়ন পার্ক। কৃত্রিম হ্রদের পাড়ে সিঙ্গাপুরবাসীর ভরসার প্রতীক সিংহ মৎসের জল ছিটানোর দৃশ্য মন কাড়ে যে কারও। দৃষ্টি কাড়ে আশপাশের ছবিও।

নান্দনিকতায় রাতের মেরিনা বেও কম যায় না। লেজার শোতে জলের কনায় কনায় কেবল। আলোর বিচ্ছুরণ। যা অবাক করে দর্শনার্থীদের।   

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর