channel 24

সর্বশেষ

  • নতুন মেয়াদে সভাপতি হওয়ার পর বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শেখ হাসিনার শ্রদ্ধা

  • বিজয় রুখতে বিএনপি প্রার্থীদের ওপর হামলা চালাচ্ছে আ.লীগ: ফখরুল

  • হবিগঞ্জে গাছের সাথে বাসের ধাক্কায় ৩ জনের প্রাণহানি

  • সৌদিতে নবেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী চিহ্নিত

  • আইসিজের আদেশ: মেনে নেওয়ার আহবান গাম্বিয়ার; মায়নমারের প্রত্যাখ্যান

  • পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের শুভ সূচনা

রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলার শুনানিতে অংশ নিতে নেদারল্যান্ডসের পথে সু চি

রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলার শুনানিতে অংশ নিতে নেদারল্যান্ডসের পথে সু চি

আন্তর্জাতিক আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যার মামলার শুনানিতে অংশ নিতে নেদারল্যান্ডসের পথে রয়েছেন মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি।

স্থানীয় সময় রোববার সকাল ১০টায় থাইল্যান্ডে পৌঁছায় সু চি নেতৃত্বাধীন প্রতিনিধি দল। সেখান থেকে বেলা ১২টায় নেদারল্যান্ডসের উদ্দেশে বিশেষ ফ্লাইটে রওয়ানা দেন তারা।

এর আগে, নেপিদোতে গতকাল বিকেলে চীনের স্টেট কাউন্সিলর ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ইর সাথে বৈঠক করেন সু চি। অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও বাণিজ্য সম্প্রসারণ নিয়ে আলোচনা করেন তারা।

চীনের স্টেট কাউন্সিলর জানান, বেইজিং-নেপিদো অর্থনৈতিক করিডোর তৈরিতে আগ্রহী চীন।

রোহিঙ্গা গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিসে (আইসিজে) মামলা করে গাম্বিয়া। জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালতে দায়ের করা মামলায় অবিলম্বে রোহিঙ্গা নিপীড়ন বন্ধে আন্তর্জাতিক আদালতকে ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানানো হয়।

২০১৭ সালে রাখাইনে রোহিঙ্গাগোষ্ঠীকে নির্মূলে এমন ভয়াবহ অভিযানে নামে দেশটির সামরিক বাহিনী। জ্বালিয়ে দেয়া হয় বসতবাড়ি, চলে গণহত্যা ও ধর্ষণ। নিপীড়নের মুখে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয় ৭ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা।

চুক্তির পর দফায় দফায় দিনক্ষণ চূড়ান্ত হলেও এখনও শুরু হয়নি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন।

এ অবস্থায় রোহিঙ্গাদের ওপর চলা গণহত্যার দায়ে ইসলামি দেশগুলোর জোট-ওআইসির পক্ষে সোমবার মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালতে মামলা করে গাম্বিয়া।

গাম্বিয়া আইনমন্ত্রী আবুবাকার মারি তামবাদউ বলেন, 'নিজ দেশের নাগরিকদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর পরিকল্পিত গণহত্যা ও নির্মমতার ঘটনায় জড়িতদের বিচারের আওতায় আনতেই আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে এ মামলা। মূলত ওআইসির পক্ষ থেকে গাম্বিয়া মামলাটি করেছে। এর মাধ্যমে মিয়ানমার ও বিশ্ববাসীকে স্পষ্ট বার্তা দিতে চাই, চোখের সামনে গণহত্যা হলেও, বিশ্ব সম্প্রদায় কিছুই করেনি। এটা এ প্রজন্মের জন্য লজ্জা।'

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর