channel 24

সর্বশেষ

  • কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার প্রতিবাদে আবারো উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র

  • ভারতে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ২ লাখ, মৃত্যু ১০২৭

  • মিশরে ট্রেন ও সড়ক দুর্ঘটনা নিহত ৩৬

  • লকডাউনে বিপাকে নিম্নআয়ের মানুষ

  • সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে আব্দুল মতিন খসরুর জানাজা সম্পন্ন

  • চলমান লকডাউনে দ্বিতীয় দিনেই রাস্তায় মানুষের চাপ

  • চট্টগ্রামে নিম্নআয়ের মানুষের নাগালের বাইরে টিসিবি পণ্য

  • গোবিন্দগঞ্জে কাভার্ডভ্যানের চাপায় একই পরিবারের তিনজনসহ নিহত ৪

  • চলমান লকডাউনের কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন জনস্বাস্থ্যবিদদের

  • দ্বিতীয় ঢেউয়ে আরও ভয়ংকর করোনা, হাসপাতালে মিলছে না কাঙ্ক্ষিত সেবা

  • লকডাউনে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে অনলাইন কেনাকাটা

  • লকডাউনে ম্লান ঢাকার ইফতার বাজার

  • বাংলা নববর্ষের প্রথম দিনটি ঘরে কাটলো বাঙালির

  • ময়মনসিংহে ব্রহ্মপুত্র নদে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু

  • আইপিএল থেকে ছিটকে গেলেন স্টোকস

মোদি ফ্যাসিবাদি, বর্ণবাদী: ইমরান

মোদি ফ্যাসিবাদি, বর্ণবাদী: ইমরান

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের পরও কথার লড়াই চলছে নয়াদিল্লি-ইসলামাবাদের মধ্যে।

গুচ্ছ টুইটে মোদিকে ফ্যাসিবাদি আর বর্ণবাদী আখ্যা দিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ইমরানের দাবি, বিজেপি সরকারের হাতে ভারতের পরমানু অস্ত্র সুরক্ষিত নয়। এ বিষয়ে সারা বিশ্বকে নজর দেওয়া উচিত।

পাক সীমান্তে দুই বেসামরিক নাগরিক হত্যার ঘটনায় ইসলামাবাদে নিযুক্ত ভারতের ডেপুটি হাই কমিশনারকে তলব করেছে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়।

১৪ দিন ধরেই থমথমে পরিস্থিতি পুরো কাশ্মীর জুড়ে। পথে পথে সেনা টহল। বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, দুই সপ্তাহে রাজনীতিবিদ, মানবাধিকারকর্মী, শিক্ষকসহ গ্রেপ্তার হয়েছেন অন্তত ৪ হাজার মানুষ।

নিরাপত্তার কড়াকড়ির উপেক্ষা করেই গত কয়েকদিনে বড় ধরনের বিক্ষোভ হয়েছে রাজধানী শ্রীনগরসহ কয়েকটি শহরে।

কারফিউর মধ্যেই আজ (সোমবার, ১৯ আগস্ট) থেকে চালু হয়েছে ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের সরকারি দপ্তর। কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুললেও শিক্ষার্থী উপস্থিতি নেই।

স্থানীয় প্রশাসনের দাবি, দু'সপ্তাহ পর সোমবার খুলে দেয়া হয় শ্রীনগরের সরকারি প্রতিষ্ঠান। উপত্যকার নয়শ স্কুলের মধ্যে ১৯৬টি সচল হয়েছে। শিক্ষকরা যোগ দিলেও শিক্ষার্থীর উপস্থিত ছিল না বললেই চলে। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হবে পরিস্থিতি।

তবে কাশ্মিরীরা জানান, মোবাইল নেটওয়ার্ক নেই। সড়কে গাড়ি নেই। কেউ স্বাধীনমতো চলাচল করতে পারছে না। যেনো থমকে আছে কাশ্মির।

তারা জানান, 'আমাদের সাথে পশুর মতো আচরণ করছে মোদি সরকার। পর্যাপ্ত খাবার নেই, ওষুধ নেই, নিত্যপ্রয়োজনীয় কোন দ্রব্য নেই। কারো সাথে যোগাযোগ করতে পারছি না। এমনকি মসজিদে গিয়ে নামাজ আদায়েরও উপায় নেই।'

যদিও প্রশাসন বলছে, ধীরে ধীরে ল্যান্ড লাইন চালু করে দেয়া হচ্ছে। তবে নিরাপত্তা নিশ্চিত হওয়ার পর চালু হবে ইন্টারনেট।

জম্মু কাশ্মীরের পরিকল্পনা কমিশনের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি রোহিত কানসাল বলেন, 'কাশ্মিরের জনজীবন ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয়ে আসবে। চলাচলে বাধা নিষেধ অনেকটাই শিথিল করা হয়েছে। শিগগিরই পুরো এলাকায় যোগাযোগ ব্যবস্থা এবং ল্যান্ডলাইন পুরোপুরি চালু হবে।'

নিউজটির ভিডিও প্রতিবেদন-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর