channel 24

সর্বশেষ

  • নারায়ণগঞ্জ জেলা সম্পূর্ণরূপে লকডাউন

  • বিশ্বে প্রাণহানি ৭৮ হাজার ছাড়ালো, জাপানে জরুরি অবস্থা জারি

  • অভিনব কায়দায় মাস্ক চুরি করলো যুক্তরাষ্ট্র!

  • করোনা আতঙ্কের মাঝে সুখবর দিলেন সাকিব ও মাহমুদউল্লাহ

  • ২২০টি করোনা শনাক্তের কিট দিলেন সাবেক এমপি রুহী

  • করোনায় আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি

  • জামালপুরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দুটি বিশেষ বাজার চালু

  • ঢাকার বাইরে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত নারায়ণগঞ্জবাসী, টাঙ্গাইল লকডাউন

  • করোনা উপসর্গ নিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে ৪ জনের মৃত্যু

  • চিকিৎসা না দিয়ে ফিরিয়ে দেয়ায় রাস্তায় নবজাতক প্রসব

  • কর্মহীন হয়ে পড়া খেটে খাওয়া মানুষদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন অনেকেই

  • বান্দরবানে নিজস্ব উদ্যোগে সুরক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে ম্রো জনগোষ্ঠি

  • বঙ্গবন্ধুর খুনি আব্দুল মাজেদ গ্রেপ্তারের পর কারাগারে

  • লকডাউনের মাঝেই জার্মানিতে বায়ার্ন মিউনিখের অনুশীলন শুরু

  • মারা গেলেন ফুটবল কোচ রাদোমির অ্যান্টিচ

গ্রেপ্তার নয়, কলকাতা পুলিশ কমিশনারকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে সিবিআই

গ্রেপ্তার নয়, কলকাতা পুলিশ কমিশনারকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে সিবিআই

সারদা কাণ্ড ইস্যুতে আপাতত গ্রেপ্তার নয়, কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজিব কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা (সিবিআই)।

কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজিব কুমারের বাড়িতে সিবিআই কর্মকর্তাদের অভিযান নিয়ে উত্তপ্ত পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার ও কেন্দ্র। সোমবার (৪ ফেব্রুয়ারি) বিষয়টি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় সিবিআই। মঙ্গলবার (৫ ফেব্রুয়ারি) মামলার শুনানীতে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন ৩ সদস্যের বেঞ্চ জানান, রাজিবকে গ্রেপ্তার নয় বরং শিলংয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

আরও: যে রোগ হলে মনে থাকে সব কিছু!

রাজধানীর উত্তরায় মাইক্রোবাস চাপায় স্কুলছাত্রী নিহত

স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া থামাতে গিয়ে প্রতিবেশী খুন

আদালতের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, আদালত ও গণমাধ্যমের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। সুপ্রিম কোর্ট আজ ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শুরু থেকেই আমরা বলে আসছিলাম কখনোই পুলিশ কমিশনারকে এভাবে গ্রেপ্তার করতে পারে না।

এদিকে, মমতা ও কেন্দ্রীয় সরকারের মুখোমুখি অবস্থানে কলকার্তার ধর্মতলা যেন এখন একখণ্ড সরকার বিরোধী মঞ্চ। ৩ দিন ধরেই গণতন্ত্র ও সংবিধান রক্ষার দাবিতে এখানে ধরনা কর্মসূচি পালন করছেন মমতা। যাতে একাত্ততা জানিয়েছে, প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসসহ অখিলেশের সমাজবাদি পার্টি, কেজরিওয়ালের আম আদমিসহ আঞ্চলিক কয়েকটি দল।

নয়াদিল্লি আম আদমি পার্টি নেতা ও মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার পশ্চিমবঙ্গে যা শুরু করেছে, তা নিরেট আইন ও সংবিধানের লঙ্ঘন। এমনকি এটা গণতন্ত্রেরও পরিপন্থী।

সিবিআই ইস্যুতে মমতার এ সরকার বিরোধী আন্দোলনের কড়া সমালোচনা করেছেন, ক্ষমতাসীন বিজেপি নেতারা।

আইনমন্ত্রী রবি শঙ্কর প্রসাদ বলেন, মাত্র ৫ বছর আগে রাহুল গান্ধী মমতার চিটফাণ্ডের ঘটনার তদন্ত দাবি করেছেন। এখন সেই রাহুল-ই তার পক্ষে মাঠে নেমেছেন। এটা কেমন রাজনীতি। দুর্নীতিবাজরা অন্য আরেক দুর্নীতিবাজকে রক্ষায় জোট বেধেছে। আজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আম আদমি নেতা কেজরিওয়ালের পথ অনুসরণ করে সরকারের বিরুদ্বে মাঠে নেমেছেন।

সিবিআই'র দাবি, কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের সরাসরি তত্ত্বাবধানে চিট ফান্ড কেলেঙ্কারি মামলা তদন্ত করে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ। কিন্তু তিনি আটককৃত ল্যাপটপ, মোবাইল থেকে যথাযথ তথ্য উদ্ধার করতে ব্যর্থ হন তিনি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক খবর