channel 24

সর্বশেষ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি খুনে মাফিয়াদের বিচার চান স্বজনরা

  • বাসভাড়া বৃদ্ধি মরার উপর খাড়াঁর ঘা

  • সীমিত পরিসরে সেবার নামে বাসভাড়া ৮০ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব

  • চট্টগ্রামে এবার চিকিৎসা পেলেন না স্বাস্থ্য পরিচালকের মা!

  • কক্সবাজারে নতুন করে ২৬ জন করোনায় আক্রান্ত

  • ভার্চুয়াল শপথ নিলেন ১৮ বিচারপতি

  • করোনাকালে অসহায়দের পাশে 'ওল্ড ল্যাবরেটরি অ্যাসোসিয়েশন'

  • মেহেরপুরে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন তিন চিকিৎসক

  • রিয়াল বেতিস-সেভিয়া ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফিরছে লা লিগা

  • প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা ছাড়া কোনো রোগীকে ফেরত দেওয়া যাবে না

  • সোমবার শুরু হচ্ছে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চলাচল

  • কাল শুরু হচ্ছে সীমিত আকারে ট্রেন চলাচল

  • চট্টগ্রামে ১০ দিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুন

  • চলে গেলেন সাবেক তারকা ফুটবলার গোলাম রব্বানী হেলাল

  • করোনায় দেশে আরও ২৮ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৭৬৪

করোনা নির্ণয়ে পিসিআর পদ্ধতির ফল নিয়ে সংশয়

করোনা নির্ণয়ে পিসিআর পদ্ধতির ফল নিয়ে সংশয়

পলিমারেজ চেইন রিঅ্যাকশন বা পিসিআর পদ্ধতিতে নির্ণয় করা হচ্ছে কোভিড-১৯। কিন্তু এই পদ্ধতিতে প্রাপ্ত ফলাফল নিয়ে কেউ কেউ প্রশ্ন তুলেছেন। ভাইরাস বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নমুনা সংগ্রহ থেকে গবেষণাগারে পরীক্ষা করা পর্যন্ত যেকোন ধাপে কিঞ্চিৎ নিয়মের ব্যতয় হলেই ফলাফলে ভিন্নতা আসতে পারে।

আইইডিসিআর বলছে, বিষয়টা অস্বাভাবিক না, তবে অফিসিয়ালি এমন কোন অভিযোগ এখনও পাননি। বিশিষ্ট চিকিৎসক এ বি এম আবদুল্লাহর পরামর্শ, আতঙ্কিত না হয়ে, ফলাফল নিয়ে কারো সন্দেহ তৈরি হলে আইইডিসিআরের মাধ্যমে আবার পরীক্ষা করিয়ে নিতে হবে।

করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় এখনো টালমাটাল গোটা বিশ্ব। বাংলাদেশেও দিনদিন বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। নতুন বিতর্ক উস্কে দিয়েছে শনাক্তকরণ পরীক্ষার ফলাফলের সঠিকতা।

এমন বিভ্রান্তির বিষয় উঠে আসে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একজন চিকিৎসকের স্ট্যাটাসে, একজন আক্রান্ত রোগীর নমুনা সংগ্রহ করায় ১১ এপ্রিল তাকেও পরীক্ষা করার ৩ দিন পরে করোনা আক্রান্ত হিসেবে রিপোর্ট দেয়া হয়। এরপর তার স্বামীকেও বলা হয় পরীক্ষা করতে। তবে কৌতুহলবশত চার দিনের মাথায় আবারও পরীক্ষা করালে এবার ফলাফল আসে উল্টো অর্থাৎ তার শরীরে করোনার উপস্থিতি মেলেনি।

কিন্তু কেন এমন হয় তার একটি ব্যাখ্যা দিলেন ভাইরোলজিস্টরা। বলেন, পিসিআর পদ্ধতিতে সমস্যা নেই। আইইডিসিআর বলছে, পরীক্ষায় ত্রুটির কোনো অভিযোগ আনুষ্ঠানিকভাবে তারা পায়নি। তবে এটা অস্বাভাবিক কিছু না।

ফলাফল নিয়ে সন্দেহ হলে আইইডিসিআরের মাধ্যমে আবারো পরীক্ষা করে দেখার পরামর্শ দিয়েছেন ডাক্তার এবিএম আবদুল্লাহ। তবে কোনভাবেই আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্বাস্থ্য খবর