channel 24

সর্বশেষ

  • অবসর নয়, টেস্ট দলে ফেরার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে: মাহমুদুল্লাহ

  • ভারতের পশ্চিম ও মধ্যাঞ্চলের ৫ রাজ্যে পঙ্গপালের হানা

  • মাধবপুরে জমি দখল নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১০

  • যমুনা নদীতে নৌকাডুবিতে দুজনের মরদেহ উদ্ধার

  • আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মুশফিকের ১৫ বছর

  • করোনায় মানবতার সেবায় দৃষ্টান্ত চাঁদপুরের চিকিৎসক দম্পতি

  • করোনায় ডেপুটি স্পিকারের স্ত্রী আনোয়ারা রাব্বীর মৃত্যু

  • করোনা আতঙ্কে ঘর থেকেই বের হননি রাজধানীর বেশিরভাগ মানুষ

  • লাদাখে মুখোমুখি ভারত ও চীনের সেনাবাহিনী

  • দুর্যোগে জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে সরকারের বিরুদ্ধে বিষোদগার করছে বিএনপি: কাদের

  • করোনায় দেশে আরও ২১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১১৬৬

  • নিজের কিট দিয়ে করোনা পজিটিভ ডা. জাফরউল্লাহ

  • মানসিক অবস্থা ভালো হলেও শারীরিকভাবে সুস্থ নন খালেদা জিয়া

  • ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত খুলনার কয়রাসহ ৫ উপজেলার মাছ চাষী

  • দেশে রেকর্ড চাল উৎপাদনের আশা, উঠে আসবে বিশ্বের তিন নম্বরে

করোনা টেস্ট না হওয়ার চেয়ে ভুল টেস্ট আরও ভয়ঙ্কর

করোনা টেস্ট না হওয়ার চেয়ে ভুল টেস্ট আরও ভয়ঙ্কর

করোনা টেস্ট না হওয়ার চেয়ে ভুল টেস্ট আরও ভয়ঙ্কর- বলছেন চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা। বিশেষ ল্যাবে পিসিআর পদ্ধতিতে নমুনা পরীক্ষা অত্যন্ত সংবেদনশীল। দক্ষ টেকনিশিয়ান দিয়ে এই পরীক্ষাটি না করা হলে ভুল ফল মারাত্মক পরিণতি ডেকে আনতে পারে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। একইসাথে র‍্যাপিড টেস্ট কিটের মাধ্যমে রক্তের এন্টিবডি পরীক্ষা করা ও চিকিৎসা গবেষণার জন্য জরুরি বলে মত তাদের।

বিদেশ ভ্রমণের অভিজ্ঞতা, বিদেশফরত কারও সংস্পর্শে আসা এবং অবশ্যই করোনার লক্ষণ দেখা না দিলে আপাতত পরীক্ষা করছে না স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

শুধু বাংলাদেশ নয়, বিশ্বের বহু দেশ এই তিনটি বিষয় মাথায় রেখেই টেস্ট করছে। কভিড পরীক্ষায় সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য পদ্ধতি পলিমারেজ চেইন রিয়েকশন বা পিসিআর। বিশেষ ধরণের নিরাপত্তাসুবিধা থাকা ল্যাবে এই পরীক্ষাটি করা হয়।

সরকারের সিদ্ধান্তে আইইডিসিআর ছাড়াও ঢাকা মেডিকেলজ, আইসিডিডিআরবি, আইদেশি ও রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহসহ বেশ কিছু জায়গায় করোনার নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা করা হচ্ছে। চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা বলছেন, এই পরীক্ষা খুবই সংবেদনশীল। তাই সতর্কতা নিশ্চিত করা দরকার।

করোনা শনাক্তে আরো এক ধরণের পরীক্ষা করছে চীন, দক্ষিণ কোরিয়া, যুক্তরাজ্যসহ বেশ কয়েকটি দেশ। র‍্যাপিড টেস্ট কিটের মাধ্যমে রক্তের ইমিউনোগ্লোবিউলিন জি ও এম পরীক্ষা করা হয়। এজন্য দেশগুলো র‍্যাপিড টেস্ট কিটের সংগ্রহ বাড়াচ্ছে।

তবে এক্ষেত্রেও কিছু সতর্কতা দরকার। কেন না সম্প্রতি চীনের ত্রুটিপূর্ণ র‍্যাপিড টেস্ট কিট স্পেন ও চেক রিপাবলিক ফেরত দিয়েছে। তাই এগুলো অনুমোদনের ক্ষেত্রেও সতর্ক থাকার পরামর্শ এই বিশেষজ্ঞের।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্বাস্থ্য খবর