channel 24

সর্বশেষ

  • থমকে যাওয়া সেই নৌপথে আবারও দুরন্ত গতিতে ছুটবে জলযান

  • সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

  • দু'বছর ধরে লাইসেন্স ছাড়াই লাজ ফার্মার ব্যবসা

  • জাভি হার্নান্দেজই হচ্ছেন বার্সেলোনার কোচ: ক্লাব প্রেসিডেন্ট

  • আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলতে বাধা নেই ম্যান ইউ'র

  • টাকা চাইলেই পাওনাদারদের ওপর নামতো জেকেজির নির্যাতনের খড়গ

  • বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, ১০টি নদ-নদীর পানি বিপৎসীমার উপরে

  • হজ্জ্ব ক্যাম্পে কোয়ারেন্টিন শেষে বাড়ি ফিরলো ৯৬ কুয়েত প্রবাসী

  • সর্দিজ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্টে ৬ জনের মৃত্যু

  • ৭ মার্চকে 'জাতীয় ঐতিহাসিক দিবস' ঘোষণার প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় সম্মতি

  • লাজ ফার্মায় র‌্যাবের অভিযান

  • সাবরিনার কাছে রিমান্ডে মিলতে পারে ভুয়া করোনা সনদ বাণিজ্যের তথ্য

  • না ফেরার দেশে চলে গেলেন আর্চবিশপ মজেস এম কস্তা

  • পোলিও পায়ের শক্তি কেড়ে নিলেও দমে যাননি নড়াইলের গোপিনাথ

  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে কমিউনিটি সেন্টার খোলার দাবি বাবুর্চিদের

রোগী-ডাক্তার সম্পর্কটি হওয়ার কথা আন্তরিকতার, কিন্তু হয়ে উঠছে তিক্ততার

রোগী-ডাক্তার সম্পর্কটি হওয়ার কথা আন্তরিকতার, কিন্তু হয়ে উঠছে তিক্ততার

রোগী ও ডাক্তার। সম্পর্কটি হওয়ার কথা আস্থা ও আন্তরিকতার। কিন্তু, কখনো-কখনো অপেশাদার ও রুঢ় আচরণে তা হয়ে উঠছে অবিশ্বাস ও তিক্ততার। এতে যেমন প্রভাব ফেলছে সামগ্রিক চিকিৎসাসেবায়, তেমনি বিদেশমুখী করছে রোগীদের। সিনিয়র চিকিৎসকরা মনে করেন, বাড়তি রোগীর চাপ ও বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সংকট এই অবস্থার জন্য দায়ী। তবে চিকিৎসকদের মানবিক আচরণই পারে উভয়ের মাঝে দূরত্ব ঘোচাতে।

শাহাদত হোসেন। থাকেন রাজধানীর নিকেতনে। গত সপ্তাহে তার মা হঠাৎ নিম্ন রক্তচাপজনিত কারণে ভীষণ অসুস্থ হয়ে পড়লে চাঁদপুর থেকে চিকিৎসা নিতে আসেন ঢাকায়। শরণাপন্ন হন একটি বেসরকারি হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞের।

কিন্তু সুচিকিৎসার বদলে ওই ডাক্তারের দুর্ব্যবহার আরও বিপর্যস্ত করে ফেলে তাকে।

এদেশে ডাক্তার ও রোগীর সম্পর্ক যতোটা মধুর, অম্লও ততটায়। এই বাস্তবতায় উভয়ের মাঝে যে অনাস্থা তৈরী হয় তা অনেকসময়ই রোগীকে ঠেলে দেয় ভিন্ন দেশের পথে।

বিপুল জনসংখ্যার এই দেশে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সংখ্যা মাত্র ৭ সাত হাজার। তাই চিকিৎসকরা বলছেন, রোগীর অতিরিক্ত চাপ সামাল দিতে গিয়ে অনেকসময় মেজাজের ভারসাম্য ঠিক থাকে না। তবে, ইচ্ছে থাকলে তা অসম্ভব কিছু নয়।

চিকিৎসাখাতে নানা সংকট-সমস্যার মাঝেও অনেকেই আছেন, যারা রোগীর প্রতি আন্তরিক হতে এতটুকু কার্পণ্য করেন না। তেমনই একজন অধ্যাপক ডাক্তার এবিএম আব্দুল্লাহ। এই দূরত্ব দূর করতে তার পরামর্শ প্রাতিষ্ঠানিকভাবে রেফারাল পদ্ধতি চালু করার। পাশাপাশি দরকার চিকিৎসা শিক্ষার্থীদের মাঝে কাউন্সিলিং বাড়ানো।

ইতিবাচক সম্পর্ক তৈরীতে রোগীদের কাছেও দায়িত্বশীল আচরণ আশা করেন চিকিসৎকরা।

 

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্বাস্থ্য খবর