channel 24

সর্বশেষ

  • বঙ্গবন্ধু জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপ: দ্বিতীয় রাউন্ডে যশোর-চুয়াডাঙ্গা-ভোলা-কুড়িগ্রাম

  • কৌশলে বুরুন্ডির অগোছালো রক্ষণের সুযোগ নিবে বাংলাদেশ

  • প্রেমিকের বাসায় গিয়ে তরুণীর আত্মহত্যার অভিযোগ

  • ছাত্রীকে উত্যক্তের অভিযোগে বাকৃবির ৪ শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার

  • পরিকল্পিতভাবে অস্ত্র ও ডিম নিয়ে হামলা করা হয়েছে: তাবিথ

  • বাংলাদেশ-পাকিস্তান টি টোয়েন্টি সিরিজের টিকিট বিক্রি শুরু লাহোরে

  • নিরাপদ সবজির গ্রাম

  • আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে তাপসকে সতর্ক করেছেন ম্যাজিস্ট্রেট

  • ক্যাপসিকাম বা মিষ্টি মরিচের গুণাগুণ

  • ড্রোন দিয়ে ঠেকানো হচ্ছে অপরিকল্পিত রাসায়নিকের ব্যবহার

  • নির্বাচন নিয়ে বিএনপির অভিযোগ তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেবে ইসি

  • বিপিএলের পারফরম্যান্স ধরে রাখলে পাকিস্তানে সিরিজ জয় সম্ভব: মাহমুদউল্লাহ

  • রকিবুলের হ্যাটট্রিকে যুব বিশ্বকাপে বাংলাদেশের দুর্দান্ত জয়

  • ধর্ষণ মামলায় সহযোগিতা করতে গিয়ে পুলিশের সামনেই মারধরের শিকার যুবক

  • স্যার আবেদ একটি প্রেরণা, জনকল্যাণের রোল মডেল: হোসেন জিল্লুর

দেশে মানবদেহের কিডনি প্রতিস্থাপন আইন ত্রুটিপূর্ণ ও সংকীর্ণ: ডা. জাফরুল্লাহ

দেশে মানবদেহের কিডনি প্রতিস্থাপন আইন ত্রুটিপূর্ণ ও সংকীর্ণ: ডা. জাফরুল্লাহ

দেশে মানবদেহের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সংযোজন আইন ত্রুটিপূর্ণ ও সংকীর্ণ। রাজধানীতে সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ। বলেন, সারা বিশ্বে বিকল কিডনি রোগীদের প্রতিস্থাপন সহায়ক আইন রয়েছে। তবে দেশে নিকট আত্মীয় ছাড়া অঙ্গ প্রতিস্থাপন সম্ভব হয় না। দাতাদের ক্ষেত্রে এটি আরও উন্মুক্ত করার দাবি জানিয়েছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রসহ কিডনি রোগীরা।

কিডনি ডায়ালাইসিসের ব্যয়, হাসপাতালে যাওয়া আসার ঝক্কি, সময় সবকিছুর সাথে আর কুলিয়ে উঠতে পারছেন না ৪০ বছর বয়সী জাহিদুর রহমান। খুব করে চান কিডনি প্রতিস্থাপন করতে। কিন্তু বাধা আইন। অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সংযোজন আইন অনুযায়ী নিকট আত্মীয়, আইনানুগ উত্তরাধিকারী ছাড়া প্রতিস্থাপন সম্ভব নয়। তাই দেশে না পেরে জাহিদুর রহমান সিদ্ধান্ত নেন পাশের দেশে গিয়ে কিডনী প্রতিস্থাপন করাবেন।

দেশে কিডনি রোগে ভোগা বেশিরভাগই চান প্রতিস্থাপন আইনটি সংশোধন করা হোক। তাহলে সপ্তাহে তিনবার চার ঘন্টার ডায়ালাইসিসের যন্ত্রণা আর খরচ থেকে বেঁচে যেতেন।

এই আইনের ত্রুটি-বিচ্যুতি নিয়ে গণস্বাস্থ্য ডায়ালাইসিস সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সংযোজন আইনটি সংকীর্ণ। ইউরোপ, অ্যামেরিকা এমনকি এশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো যেখানে কিডনি প্রতিস্থাপনে উৎসাহিত করে সেখানে বাংলাদেশে উল্টো।

ডা. জাফরুল্লাহর হিসাবে দেশের বাইরে গিয়ে কিডনি প্রতিস্থাপন করতে বছরে ৮০০ কোটি টাকা চলে যাচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পক্ষ থেকে বলা হয়, যত দ্রুত আইনটি সংশোধন হবে কিডনী রোগীদের কষ্ট, ব্যয় তো কমবেই। উন্নতি হবে দেশের চিকিৎসা খাতেরও।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্বাস্থ্য খবর