channel 24

সর্বশেষ

  • সংঘাত নয়, রোহিঙ্গাদের ফেরাতে আলোচনা চলছে: প্রধানমন্ত্রী

  • মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ওপর নিপীড়ন আধুনিক সময়ের গণহত্যা...

  • নেদারল্যান্ডসের আন্তর্জাতিক আদালতে মামলার শুনানিতে গাম্বিয়া...

  • রোহিঙ্গা নির্যাতনের বিষয়ে মিয়ানমারের বক্তব্য মিথ্যা...

  • মিয়ানমারে রোহিঙ্গা গণহত্যা এখনও চলছে, রোধে ব্যবস্থা নিতে হবে

  • প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি: তারেক রহমান ও মির্জা ফখরুলসহ...

  • বিএনপির ১২ নেতার বিরুদ্ধে ফের মামলা

অপরিণত নবজাতক জন্মের শীর্ষ ১০ দেশের তালিকায় বাংলাদেশ

অপরিণত নবজাতক জন্মের শীর্ষ ১০ দেশের তালিকায় বাংলাদেশ

বিশ্ব অপরিণত নবজাতক দিবস আজ। এ সমস্যায় বাংলাদেশে প্রতি বছর ২০ হাজার শিশুর মৃত্যু হয়। এছাড়া, অপরিণত নবজাতক জন্মহারে বিশ্বে ঝুঁকিপূর্ণ শীর্ষ ১০ দেশের তালিকায়ও রয়েছে বাংলাদেশ। এ তথ্য জাতিসংঘের। শিশুদের জীবন বাঁচাতে 'ক্যাঙ্গারু মাদার কেয়ার' নামে এক চিকিৎসা পদ্ধতি উদ্ভাবন করেছেন চিকিৎসকরা।

নতুন শিশু। পৃথিবীতে নতুন প্রাণের স্পন্দন। আর এই শিশুকে নিয়ে আনন্দে মেতে ওঠে পুরো পরিবার। তবে পপি ও তার পরিবারের বাস্তবতা ভিন্ন। আর সবার মতো আনন্দে মেতে ওঠা হয়নি তাদের। ১৫ দিন আগে পপির কোল আলো করে আসে প্রথম সন্তান। সময়ের আগেই অর্থাৎ ৩৩ সপ্তাহে মাত্র ১ কেজি ৬০০ গ্রাম ওজন নিয়ে ভূমিষ্ঠ হয় তার সন্তান। অপরিণত সন্তানকে নিয়ে এখন হাসপাতালেই দিন কাটছে তার।

জাতিসংঘের হিসাব বলছে, প্রতি বছর দেশে প্রায় ৩০ লাখ শিশুর জন্ম হয়। এর মধ্যে ৬ লাখ ৩ হাজার ৭০০ অপরিণত। এ কারণে বছরে মৃত্যু হয় প্রায় ২০ হাজার শিশুর।

অপরিণত শিশুর প্রচলিত চিকিৎসা পদ্ধতি হলো শিশুকে হাসপাতালের ইনকিউবেটরে রাখা। যেটি বেশ ব্যয়বহুল। তাই গত ৬ বছর ধরে ক্যাঙ্গারু মাদার কেয়ার নামে একটি নতুন চিকিৎসা পদ্ধতি বাস্তবায়নের চেষ্টা করছেন দেশের চিকিৎসকরা।

প্রচলিত পদ্ধতিতে মা তার সন্তানকে কাছে পান খুব অল্প সময়ের জন্য। আর এ পদ্ধতিতে সন্তানকে পুরোটা সময় কাছে পান বলে মায়ের আত্মবিশ্বাসও বেড়ে যায় বহুগুণ।

অপরিণত নবজাতক শিশুর অকাল মৃত্যুরোধে জাতীয় নীতিমালা প্রণয়ন করেছে সরকার। যার আওতায় এরইমধ্যে সরকারি হাসপাতালগুলোয় ক্যাঙ্গারু মাদার কেয়ার পদ্ধতি চালু হয়েছে। এতে সরকারকে সহায়তা করছে সেভ দ্য চিলড্রেন।

ক্যাঙ্গারু মাদার কেয়ার হলো ৩৭ সপ্তাহের আগে এবং ২ কেজির কম ওজন নিয়ে জন্ম নেয়া শিশুদের মায়ের ত্বকের সাথে শিশুর ত্বক লাগিয়ে রেখে শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে আনা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্বাস্থ্য খবর