channel 24

সর্বশেষ

  • জামিন পেলেন লঙ্কান ক্রিকেটার কুশল মেন্ডিস

  • প্লেব্যাক সম্রাট এন্ড্রু কিশোর

  • বানের পানিতে তলিয়েছে ৫০ হাজার হেক্টর জমির ফসল

  • প্রস্তুতির জন্য অন্তত তিন সপ্তাহ সময় চান সৌম্য সরকার

  • কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী এন্ড্রু কিশোর আর নেই

  • লাইসেন্সবিহীন রিজেন্ট হাসপাতালকে করোনা চিকিৎসায় সরকারি অনুমোদন

  • দ্বিতীয় দফার সংক্রমণে বেহাল দশা যুক্তরাষ্ট্র, চীন, নিউজিল্যান্ড ও ইরানের

  • ইংলিশ লিগে আজ মুখোমুখি এভারটন ও টটেনহ্যাম

  • সূচক কিছুটা গতিশীল হলেও বড় পরিবর্তন নেই লেনদেনে

  • রংপুর অঞ্চলে আউশের আবাদে রেকর্ড

  • ইংল্যান্ডে দু'দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছেন পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা

  • করোনার ভুয়া টেস্ট রিপোর্ট দিতো রিজেন্ট হাসপাতাল

  • রিজার্ভ থেকে ঋণ নিয়ে উন্নয়ন কাজে লাগানো যায় কিনা, তা ভেবে দেখার পরামর্শ

  • আর্থিক সংকটে পাইওনিয়ার লিগ খেলা ফুটবলাররা

  • খুলনার সেই সালামকে মুক্তির নির্দেশ আদালতের

সুশান্ত এবং ভ্যান গগ দু'জনেই কেন একপথে হাঁটলেন

সুশান্ত এবং ভ্যান গগ দু'জনেই কেন একপথে হাঁটলেন

রাতের আকাশ মুগ্ধ করতো তাকে। ঘন্টার পর ঘন্টা তাই টেলিস্কোপে চোখ রাখতেন সুশান্ত সিং রাজপুত। রাতের আকাশের শনির বলয় তাকে কাছেও টানতো খুব। সুশান্তের টুইটার কাভার ফটোতে ভিনসেন্ট ভ্যান গগের স্ট্যারি নাইট। স্রেফ আকাশ প্রেম নাকি সে ছবিতেই লুকিয়ে অবসাদের ক্লু। দশ দিন পেরিয়ে গেলেও এখনও বলিউড অভিনেতার মৃত্যুর কুলকিনারা পায়নি মুম্বাই পুলিশ।

ভিনসেন্ট ভ্যান গগের আঁকা শ্রেষ্ঠ ছবিটি স্ট্যারি নাইট। যা পেয়েছে অগণিত মানুষের ভালোবাসা। অনেক চিত্রবোদ্ধাদের মতে, এটিই তার জীবনের সেরা কাজ। মৃত্যুর ঠিক এক বছর আগে ১৮৮৯ সালে জুন মাসে এ ছবিটি আঁকেন ভ্যান গগ। এ ছবি আকার পর হতাশা ঘিরে ধরে এ শিল্পীকে। ঠিক এক বছরের মাথায় মাত্র ৩৭ বছর বয়সে আত্মহত্যা করেন বিখ্যাত চিত্রকর ভ্যান গগ।

তবে ভ্যানগগের ছবি আবার আলোচনায় এসেছে বলিউডের আত্মহত্যা করা অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুরে কারনে। হতাশা অবসাদ একাকীত্বে তলিয়ে যাওয়া সুশান্তের অ্যাখান ঘাটতে ঘাটতে হঠাৎই উঠে আসে ভ্যানগগের এই ছবি। সুশান্তের টুইটারে কাভার ফটোতে এখনও জ্বল জ্বল করছে ভ্যানগগের স্ট্যারি নাইট। আশ্চর্য সমাপতন। তিনিও যে আত্মহত্যা করেছেন ভ্যানগের মতই।

স্ট্যারি নাইটসের শিল্পী যেমনভাবে অন্ধকারের অবসাদে তলিয়ে গিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছেছিলেন সুশান্তও তাই করেছেন। মানুষ অবসাদের তলিয়ে যেতে যেতে ক্রমশ নেতিবাচক হয়ে যায়। যা দেখে যাকে দেখে তাকে অনুকরন করার চেষ্টা করে। ভ্যানগগের এই ছবিটাও কি সুশান্তের সেই প্রবণতার লক্ষণ।

তাহলে কি নিজেকে আইসোলেটেড ফিল করতেন সুশান্ত সিং রাজপুত। দক্ষিণ ফ্র্যান্সের একটি হাসপাতালে ভর্তি থাকার সময় স্ট্যারি নাইটস ছবিটি একেছিলেন ভ্যানগগ। তখন ১৮৮৯ সাল। বিশেষজ্ঞরা বলেন স্ট্যারি নাইটস ছবিটি সম্পূর্ণ ভ্যানগগের কল্পনাপ্রসুত। দক্ষিণ ফ্র্যান্সের যে হাসপাতাল থাকার সময় ভ্যানগগ এই ছবিটি আঁকেন সেখান থেকে এমন কোন দৃশ্য দেখাই যেত না। যে ভ্যানগগে ছবিতে মোলায়েম উষ্ন রংয়ের ব্যবহার দেখা যেত, সেই ভ্যানগগের হাতে এমন ঘন গাঢ় রংয়ের ব্যবহার চমকে দিয়েছিলে।

সুশান্তের বাড়ীটাও অদ্ভুত, ফ্ল্যাটজুড়ে ঐতিহাসিক চিত্রকর্ম। আর একটা টেলিস্কোপ। তারা দেখতেন আকাশের। জমি কিনেছিলেন চাঁদে। ভারতের প্রথম কোন অভিনেতা যখন চাঁদে জমি কিনেছেন। তা বুঝে পাওয়ার আগেই নিজেই যে তারা হয়ে গেছেন তিনি।

অনেকেই বলেন অবসাদে ডুবতে থাকা ভ্যানগগের মনের প্রতিফলন রয়েছে এই স্ট্যারি নাইটসে। সুশান্তের প্রোফাইলে স্ট্যারি নাইটসে ছবি তাই আরও অনেকগুলো প্রশ্ন তুলে দেয়।

মুম্বাইয়ের আকাশে মুখ ভার করে যেদিন বৃষ্টি হয় সেদিনও সত্যিই স্ট্যারি নাইটস নেমে আসে সুশান্তের অভিনয়ে মুগ্ধ হওয়া মানুষেদের। হাসিমুখের ছেলেটিও পাড়ি দিয়েছে সেই মেঘের দেশে। যার হাসির গভীরে এত বিস্বাদ বোঝেনি কেউই। এটা যে আনটোল্ড স্টোরি। ওপারে হয়তো ভ্যানগগের সাথে নতুন করে তারা দেখতে বসবেন সুশান্ত।

চারকাদাম যে আর এ পৃথীবিতে চলাই হবে না সুশান্তের। আর মৃত্যু রহস্যটাও যে আর জানা হবে না ঠিক ভাবে। কারন বলিউডের কোন আত্মহত্যা এখনও কুল কিনারা হয়নি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিনোদন খবর