channel 24

সর্বশেষ

  • ঢাকা সিটি নির্বাচন: ৩১ জানুয়ারি রাত ১২টা থেকে ১ ফেব্রুয়ারি...

  • সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সব যানবাহন এবং ৩০ জানুয়ারি রাত ১২টা থেকে...

  • ২ ফেব্রুয়ারি ভোর ৬টা পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা: ইসি

  • হালনাগাদকৃত খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ...

  • সারা দেশে মোট ভোটার যুক্ত ৫৩ লাখ ৬৬ হাজার ১০৫ জন...

  • বর্তমানে ভোটার সংখ্যা ১০ কোটি ৯৬ লাখ ৬ হাজার ১৮৭...

  • এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ কোটি ৫৩ লাখ ২৫ হাজার ২৯২...

  • নারী ভোটার ৫ কোটি ৪২ লাখ ৮০ হাজার ৫৪২ এবং হিজড়া ৩৫৩ জন

  • ১৬ বছরের ওপরে যাদের বয়স, তাদেরও জাতীয় পরিচয়পত্র দেবে ইসি

  • সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগে...

  • ১৪ জেলার ঘোষিত ফলাফল ৬ মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট

  • যশোরের পুলেরহাটে ১১ কেজি স্বর্ণসহ ৩ জন আটক

  • নাইমুল আবরারের মৃত্যু: হাইকোর্টে প্রথম আলো সম্পাদকের আগাম জামিন...

  • আনিসুল হকসহ ৫ জনকে গ্রেপ্তার বা হয়রানি না করার নির্দেশ

  • সিপিবির সমাবেশে বোমা হামলা: ১০ জনের মৃত্যুদণ্ড; খালাস ২

  • ১৯৮৮ সালের চট্টগ্রাম গণহত্যা মামলায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

উদ্ধার অভিযান নিয়ে সেলুলয়েডে নির্মিত হল দ্যা কেইভ

উদ্ধার অভিযান নিয়ে সেলুলয়েডে নির্মিত হল দ্যা কেইভ

সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মান করা হয়েছে দ্যা কেইভ চলচিত্র। থাইল্যান্ডের গুহায় আটকে যাওয়া কিশোর ফুটবলার ও তাদের উদ্ধার অভিযানের গল্পে গিয়ে ছবির মূল ঘটনা। ছবিটি নিয়ে সম্প্রতি ঢাকায় এসেছেন নির্মাতা টম ওয়ালার। চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের ক্যামেরায় কথা বললেন তিনি। আর গল্প-আড্ডায় জানালেন ছবির অল্প কিছু গল্প।

২৩ জুন ২০১৮ সালে গুহায় ঘুরতে গিয়ে নিখোঁজ হন কোচসহ ১২ কিশোর ফুটবলার। হঠাৎ ভারি বৃষ্টিতে গুহায় পানি ঢুকলে আটকা পড়ে তারা। ৯ দিন পর গুহার ২ কিলোমিটার ভেতরে তাদের সন্ধান পান দেশি-বিদেশি উদ্ধারকারীরা। উদ্ধার অভিযানে অক্সিজেন দিয়ে ফেরার পথে প্রাণ হারান এক ডুবুরি।

অবশেষে ১৭ দিনের রুদ্ধশ্বাস অপেক্ষার অবসান। থাইল্যান্ডের থাম লুয়াং গুহা থেকে একে একে বের করে আনা হয় আটকে পড়া ১২ কিশোর ফুটবলার ও তাদের কোচ এক্কাপোল জানথাওং-কে।

সেসময় পত্রিকার শিরোনামে থাকা এই উদ্ধার অভিযানকে সেলুলয়েডে তুলে ধরেছেন নির্মাতা টম ওয়ালার। চলচ্চিত্রটির নাম দ্যা ক্যাভ। যে ছবিটি এবার আমন্ত্রিত ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে।

নির্মাতা টম ওয়ালার বলেন, সময়ের সাথে মানুষ সব কিছুই ভুলে যায়। আমি চেয়েছি এই সত্য ঘটনাকে চলচ্চিত্রের মাধ্যমে ধরে রাখতে। এবং বিশ্বের কাছে ফুটিয়ে তুলতে চেয়েছি সেই সময়ের বাস্তব চিত্র।

টম ওয়ালার জানান, সিনেমাটি তৈরি করতে গিয়ে বেশ বেগ পেতে হয়েছে তাকে। সকলের জানা একটি ঘটনাকে চিত্রনাট্যে রূপ দেয়াটা বেশ কঠিন। দ্বোভাষির সহায়তা নেয়া হয়েছে প্রতিটি চরিত্রের জন্য। সিনেমাটিতে মূলত দুইটি গল্প বলার চেষ্টা করেছেন তিনি। কিশোরদের পাশাপাশি চিত্রনাট্যে রয়েছে উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়া মানুষের ত্যাগ। ইতিবাচক ভাবনার প্রয়োগের চেষ্টা করা হয়েছে বলে জানান নির্মাতা টম ওয়ালার।       

উৎসব সংশ্লিষ্টদের প্রত্যাশা প্রজন্মের মনোভাবে নিশ্চয়ই দাগ কাটবে এই ছবিটি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিনোদন খবর