channel 24

সর্বশেষ

  • রাষ্ট্রীয় ব্যস্ততার কারণেই ভারত যাননি স্বরাষ্ট্র-পররাষ্ট্রমন্ত্রী: কাদের

  • খালেদা জিয়াকে জামিন না দেয়ার সিদ্ধান্ত আদালতের নয়, সরকারের: রিজভী

  • কেরাণীগঞ্জের প্লাস্টিক কারখানার অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ আরও ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

  • ব্রিটেনের নির্বাচনে টিউলিপসহ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ৪ নারীর জয়

  • যুক্তরাজ্যে নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেল কনজারভেটিভ পার্টি

৩৪ বছর পর প্রকাশ পেল হেলাল হাফিজের দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ

৩৪ বছর পর প্রকাশ পেল হেলাল হাফিজের দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ

প্রথম কাব্যগ্রন্থ 'যে জলে আগুন জ্বলে'র ৩৪ বছর পর প্রকাশ পাচ্ছে যার দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ 'বেদনাকে বলেছি কেঁদো না'! পাঠকের অপেক্ষার প্রহর কাটিয়ে একুশে বইমেলায় আসছে কবির দ্বিতীয় এই মৌলিক কাব্যগ্রন্থটি। তিনি হলেন কবি হেলাল হাফিজ। এবার শুনবো বহু কাঙ্ক্ষিত সেই বই নিয়ে চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের সাথে কবির আলাপচারিতা।

১৯৮৬ থেকে ২০১৯ মাঝখানের এই সময়ে এভাবেই কবি বুনেছেন তাঁর দ্বিতীয় কাব্যের পংক্তিমালার জাল। বেদনার নীলে যে কাব্য পেয়েছে নাম 'বেদনাকে বলেছি কেঁদো না'।

যে জ্বলে আগুন জ্বলে থেকে বেদনাকে বলেছি কেঁদো না, হাতের কর বলছে, এর মাঝে পেরিয়েছে প্রায় ৩ যুগ। অবধারিতভাবেই হৃদয় অলিন্দে প্রশ্ন জাগে বই এর রঙিন মলাটে নিজেকে সঁপে দিতে কেনো এই দীর্ঘ অপেক্ষা।

এরই মাঝে অবশ্য বেরিয়েছে 'কবিতা একাত্তর' ও এক জীবনের জন্মজখম' শিরোনামের দুটি বই, মৌলিক বিচারে কবির কাছে যদিও তা হিসেবের বাইরে। কবির এই দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ প্রকাশ পেয়েছে দিব্য প্রকাশ থেকে বেদনার যে পংক্তিমালার উৎসর্গপত্রে খোদাই করা আছে মা আর বাবার প্রতি ভালোবাসার নিবেদন।

কাব্যের কাব্যিকতায় হাঁটতে চান কবি। আরো কিছুটা সময় আর এরপরই পা রাখতে চান গদ্যের উঠোনে। যেখানে কালিকলমে আঁকবেন তিনি বর্ণময় জীবনের প্রতিচ্ছবি।

জীবনের খেরোখাতায় কবিতার একজন ফেরিওয়ালা হয়ে আজীবন রয়ে যাবেন হেলাল হাফিজ এমনটাই মনে করেন কবির কাব্য অনুরাগীরা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিনোদন খবর