channel 24

সর্বশেষ

  • রাতে ঘুমানোর আগে কেন দুধ খাবেন

  • টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর্দা উঠছে আজ

  • নিজেকে কংগ্রেসের ‘স্থায়ী’ সভাপতি ঘোষণা সোনিয়ার

  • জয় দিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মিশন শুরু করতে চায় বাংলাদেশ

  • ইন্দোনেশিয়ায় মাঝারি মাত্রার ভূমিকম্পে প্রাণ গেল ‍তিন জনের

  • ৯১ জনকে চাকরি দিচ্ছে পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়

  • টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সাকিবকে নিয়ে অসাধারণ ভবিষ্যদ্বাণী কোয়েতজারের

  • মাগুরার জগদল এখন আতঙ্কের জনপদ

  • ফখরুলের বক্তব্যেই প্রমাণিত কুমিল্লার ঘটনায় বিএনপির ইন্ধন: তথ্যমন্ত্রী

  • সন্তানের ওজন অতিরিক্ত কম হলে কী খাওয়াবেন

  • দিল্লির পর কলকাতা প্রেস ক্লাবে হচ্ছে বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার

  • আমি কাজ নিয়ে সব সময় সিরিয়াস: নিরব হোসেন

  • জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে ক্লাস শুরুর তারিখ ঘোষণা

  • আঁচিল কেন হয় ও কীভাবে দূর করবেন

  • ইভ্যালির ওয়েবসাইট-অ্যাপ বন্ধ

টিআইবির প্রতিবেদন প্রত্যাখান সিইসির

টিআইবির প্রতিবেদন প্রত্যাখান সিইসির

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে টিআইবির প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা। বুধবার (১৬ জানুয়ারি) কমিশনে নতুন নিয়োগ পাওয়া কর্মীদের প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

সংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, 'টিআইবির প্রতিবেদন ভিত্তিহীন। আমরা পুরোপুরি প্রত্যাখ্যান করছি। পত্রপত্রিকায় এ ধরনের কোনও অনিয়মের তথ্য দেখা যায়নি'।

আপনারা কেবল পত্রপত্রিকার ওপর নির্ভর করেছেন কিনা? এমন প্রশ্নের জবাবে কে এম নুরুল হুদা বলেন, 'মাঠ পর্যায়ে আমাদের কর্মকর্তা, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ যারা কাজ করেছে সবার কাছ থেকে তথ্য নিয়েছি। এ ধরনের অভিযোগের কোনও সত্যতা পাওয়া যায়নি।'

চাঁদে বীজ অঙ্কুরোদগম ঘটালো চীন

৫০ ডিগ্রি তাপমাত্রা, বাদুড়, সাপ খেয়ে টিকে থাকতে হয় এ ভয়ঙ্কর ম্যারাথনে

মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) টিআইবি বলেছিল, নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা ছিল লজ্জাকর? এর উত্তরে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, 'অসৌজন্যমূলক মন্তব্য। এ ধরনের মন্তব্য করা ঠিক হয়নি।'

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) 'একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন প্রক্রিয়া পর্যালোচনা' শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশ করে টিআইবি। প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, ৩০০ আসনের মধ্যে দৈবচয়নের ভিত্তিতে ৫০টি আসন নির্ধারণ করেছিল টিআইবি। ৫০টির মধ্যে ৪১টি আসনে জাল ভোট, ৪২টি আসনে প্রশাসন ও আইন প্রয়োগকারী বাহিনীর নীরব ভূমিকা, ৩৩টি আসনে নির্বাচনের আগের রাতে ব্যালটে সিল, ২১টি আসনে আগ্রহী ভোটারদের হুমকি দিয়ে তাড়ানো বা কেন্দ্রে প্রবেশে বাধা, ৩০টি আসনে বুথ দখল করে প্রকাশ্যে সিল মেরে জাল ভোট, ২৬টি আসনে ভোটারদের জোর করে নির্দিষ্ট মার্কায় ভোট দিতে বাধ্য করা, ২০টিতে ভোট গ্রহণ শুরু হওয়ার আগেই ব্যালট বাক্স ভরে রাখা, ২২টিতে ব্যালট পেপার শেষ হয়ে যাওয়া, ২৯টিতে প্রতিপক্ষের পোলিং এজেন্টকে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে না দেওয়া ইত্যাদি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আচরণবিধি ব্যাপকভাবে লঙ্ঘনের অভিযোগ নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

একাদশ জাতীয় নির্বাচন খবর