channel 24

সর্বশেষ

  • রাজধানীতে গৃহবধূর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

  • ২০২২ সালের মধ্যে দেশের ৮০ শতাংশ মানুষকে টিকা দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

  • আফগানিস্তান ইস্যুতে বাতিল হল সার্ক পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক

  • নেতাকর্মীদের সাথে ৫ম দিনের মতো বৈঠকে বিএনপি

  • ১০ মাসেই রাজশাহী মেডিকেলের চেহারা বদলেছেন ব্রি. জে. শামীম ইয়াজদানী

  • খুলনায় যৌতুক মামলায় সিআইডি কর্মকর্তা কারাগারে

  • চাঁদপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালকসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

  • সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে পদ্মার ইলিশ

  • আইনি কাঠামোতে আসছে ই-কমার্স খাত

  • মহেশখালিতে রিটার্নিং কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ফল পাল্টে দেয়ার অভিযোগ

  • সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য কমিশনকে সর্বাত্মক ক্ষমতা দেয়া হবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

  • ভোটার তালিকায় নেই লোকমান, অর্ধশতাধিক নতুন মুখ

  • একাধিকবার গর্ভপাত, মাতৃত্বের স্বাদ বঞ্চিত গৃহবধূর আদালতে মামলা

  • পরিবারে বাল্য বিয়ে থাকলে ভিজিডি নয়: সংসদীয় কমিটি

  • চ্যানেল 24 ও সমকাল কার্যালয়ে এমপি নিক্সন

পুলিশ কর্মকর্তা সেজে প্রতারণার দায়ে যুবক আটক

পুলিশ কর্মকর্তা সেজে প্রতারণার দায়ে যুবক আটক

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার কচাকাটা থানার কেদার ইউনিয়নের চর বিষ্ণপুর গ্রামের আমির আলীর ছেলে আতানুর রহমান। মোবাইল ফোনে কখনো পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা, কখনো থানার ওসি, কখনো মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আবার কখনো জনপ্রতিনিধি পরিচয়ে পুলিশের উপর প্রভাব খাটাতো আবার কখনো জনসাধারণের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিত।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) রাত সাড়ে ৮টার দিকে বিষ্ণপুর মন্ডলের বাজার থেকে তাকে আটক করে কচকাটা থানা পুলিশ। 

পুলিশ এসময় তার কাছ থেকে দুইটি মোবাইল ফোন ও তিনটি সিমকার্ড উদ্ধার করে। এছাড়া তার উদ্ধারকৃত মোবাইলে বিভিন্ন পর্ণগ্রাফিও পাওয়া গেছে।

পুলিশ জানায়, আতানুর দীর্ঘদিন ধরে পুলিশের কর্মকর্তা সেজে দেশের বিভিন্ন থানার অফিসারদের ফোন দিয়ে বিভ্রান্ত করে আসছিল। কখনো এসআই সেজে ফোনে ভয়ভীতি দেখিয়ে জনসাধারণের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিত। কখনো জনপ্রতিনিধি সেজে পুলিশের উপর প্রভাব খাটাতো।

আরও পড়ুন: করোনায় বিভিন্ন জেলায় আরও ৯৭ জনের মৃত্যু

পুলিশ আরও জানায়, গত ডিসেম্বর মাসে প্রতারক আতানুর কচাকাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহাবুব আলমের মোবাইলে ফোন দিয়ে উপজেলার বেরুবাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পরিচয় দিয়ে প্রভাব খাটানোর চেষ্টা করে। সে সময় দুটি ফোন নম্বর ব্যবহার করে আতানুর। পরে ওই দুটি নম্বরের বিপরীতে একটি জিডি করেন ওসি। আটক আতানুরের কাছে পাওয়া তিনটি সিমের মধ্যে একটি নম্বরের সাথে জিডি করা মোবাইল নম্বরের মিল পাওয়া গেছে।

এছাড়া আতানুর সম্প্রতি কচাকাটা থানার এক এসআইয়ের পরিচয়ে ফোনে কচাকাটা বাজারের এক ব্যবসায়িকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ৫ হাজার টাকা ও একটি জিডির তদন্তকারী কর্মকর্তা সেজে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার একজনের কাছ থেকে ২ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়।

কচাকাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহাবুব আলম জানান, আতানুরের কাছ থেকে উদ্ধার হওয়া মোবাইল ফোনের কল রেকর্ড থেকে জানা গেছে সে দেশের বিভিন্ন থানায় ফোন দিয়ে পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রভাব খাটানোর চেষ্টা করেছে ও জনসাধারণকে প্রতারণারও প্রমান মিলেছে। এছাড়া গত ডিসেম্বর মাসে দুটি নম্বর থেকে আমাকে ফোন দিয়ে চেয়াম্যান পরিচয়ে প্রভাব খাটানোর চেষ্টা করেছে।

তিনি আরও জানান, আতানুরের বিরুদ্ধে একটি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ও একটি মোবাইল ফোনে পর্ণগ্রাফি রাখার অপরাধে মোট দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এএ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর