channel 24

সর্বশেষ

  • ময়মনসিংহ মেডিকেলে একদিনে আরও ২২ জনের মৃত্যু

  • ব্যাংক বন্ধ আজ

  • আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর বাসায় হামলা, নিহত ৪

  • লকডাউনে কর্মস্থ‌লে আসতে বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্দেশ, ব্যবস্থা নিল পুলিশ

  • অবকাঠামো উন্নয়নের অভাবে রাজস্ব হারাচ্ছে ভোমরা স্থল বন্দর

  • অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম জয়ে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

  • তবুও পা মাটিতেই রাখছেন মাহামুদউল্লাহ

  • আফগানিস্তানে ৭৭ তালেবান যোদ্ধাকে হত্যা

  • পথেঘাটে থাকেন বৃদ্ধ বাবা-মা, তিন ছেলে আটক

  • করোনাকালে রেমিট্যান্স ছাড়া অর্থনীতির সব ক্ষেত্রেই নেতিবাচক ধারা: সিপিডি

  • টি টোয়েন্টিতে অজিদের বিরুদ্ধে টাইগারদের প্রথম জয়

  • হিলিতে দ্বিগুন বেড়েছে কাচামরিচের দাম

  • রেকর্ড গড়া জয়ে অবশেষে মিলল সোনার হরিণের দেখা

  • ঢাবি প্রশ্নফাঁস: বহিষ্কৃত ছাত্র শাশ্বত কুমার ঘোষ গ্রেপ্তার

  • অস্ট্রেলিয়াকে হারাল বাংলাদেশ

ফরিদপুরে ঈদের উপহার নিয়ে বীরাঙ্গনা মায়ার বাড়ীতে ডিসি

ফরিদপুরে ঈদের উপহার নিয়ে বীরাঙ্গনা মায়ার বাড়ীতে ডিসি

আষাঢ়ের ঘন বাদল দিনে বৃষ্টিভেজা দুপুরে ফরিদপুরের বীরঙ্গনা মায়ার নব নির্মিত দুয়ারে তার খোঁজ নিতে হাজির হলেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার। করোনাকালীন ঈদ উৎসবে বিপন্ন মানুষে উৎসাহ উদ্দীপনা আর মনোবল বাড়াতে এ উদ্যোগ।

নতুন ঘরে উঠে আনন্দে উদ্বেলিত হয়ে কেদে উঠেন বীরাঙ্গনা মায়া রানী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘হাসিনা আমার আজীবনের বান্ধব, তার জন্য এই বুড়া বয়সে নিজের ঘরে থাকতে পারলাম’ । প্রধানমন্ত্রী ও দেশের সকল নাগরিকের জন্য দোয়া করেন এই বীরাঙ্গনা।

জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীরমুক্তিযোদ্ধাসহ নানা শ্রেণির মানুষের দুয়ারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার-মানবিক সহায়তা  আর ত্রাণ তৎপরতার অব্যাহত অংশ হিসেবে জেলা প্রশাসক  ফরিদপুর পৌরসভার শোভারামপুর এলাকার বাসিন্দা নিঃসন্তান মায়া রানীর খোঁজ-খবর নেন। এ সময় তিনি তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান এবং  প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পৌছে দেন।  এ সময় ফরিদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুম রেজা, ফরিদপুর সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান  আব্দুর রাজ্জাক মোল্যা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশব্যাপী ভূমিহীন গৃহহীনদের জন্য ভূমি প্রদান ও গৃহ নির্মান কার্যক্রম গ্রহণ করেছেন, তারই অংশ হিসেবে উপজেলা পরিষদের রাজস্ব তহবিল থেকে একটি ঘর করে দিতে পেরেছি। তিনি জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। তিনি আমাদের বীরঙ্গনা। আমরা এই ঘর দিয়ে শুরু করলাম। ভবিষ্যতে তার জন্য আরো ভাল কিছু করার চেষ্টা করবো। তার যেন থাকা খাওয়া সমস্যা না হয় সেজন্য সব সময়ই আমাদের প্রশাসন যোগযোগ করবে।

আরও পড়ুন: ঈদের দিনে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

ফরিদপুর জেলা প্রশাসনের তৎপরতায় গত বছর  জেলার প্রথম বীরাঙ্গনা হিসেবে মায়া রানী স্বীকৃতি পেলেও তার ছিলনা কোনো থাকার ঘর। সম্প্রতি তার জরাজীর্ণ আবাসস্থল সেমি পাকা ভবনে রূপান্তরে  উদ্যোগ নেন জেলা প্রশাসক অতুল সরকার। বর্তমানে নির্মান কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এখন মায়ারানী তার নিজ ঘরে বাস  করছেন।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর