channel 24

সর্বশেষ

  • ভিয়েনায় এশিয়া-প্যাসিফিক গ্রুপের সভাপতির দায়িত্ব নিলেন মোহাম্মদ মুহিত

  • মহাখালীতে কৃষিবিদ ফাউন্ডেশন ফর হিউম্যানিটির উদ্যোগে সপ্তাহব্যপী খাবার বিতরণ

  • খ্যাতির মোহেই আলোচনায় থাকতেন হেলেনা: র‌্যাব

  • ব্যান্ডেজ খুলতে গিয়ে নবজাতকের আঙ্গুল কেটে ফেলল নার্স

  • এবার ১০ মিনিটে দু’বার টিকা নিয়ে ভাইরাল বাশারুজ্জামান

  • বেড না পেয়ে হাসপাতালের সামনে মৃত্যু

  • পলাশবাড়ীতে কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় ৪ সিএনজি যাত্রী নিহত

  • হেলেনা জাহাঙ্গীরের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

  • করোনায় বাড়ছে মৃত্যু, রাজধানীতে নেই সচেতনতা

  • মোবাইল চুরির অপবাদে হাত-পা বেঁধে শিশু নির্যাতন

  • একদিনে আরও ১৭০ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

  • উদ্দেশ্যহীন হেঁটেছিলেন বিদ্যা বালান!

  • গোবিন্দগঞ্জে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ২

  • ১ আগস্ট থেকে খুলছে রপ্তানিমুখী শিল্প-কারখানা

  • অনুমোদনহীন আইপি টিভির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে: তথ্যমন্ত্রী

রামেকে করোনায় প্রাণ গেল আরও ১৩ জনের

রামেকে করোনায় প্রাণ গেল আরও ১৩ জনের

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও মারা গেছেন ১৩ জন। এরমধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৬ জন, রাজশাহীর ৩ জন, নাটোরের ৩ জন ও নওগাঁর ১ জন রয়েছেন।

সোমবার (২১ জুন) এ তথ্য নিশ্চিত করেছে রামেক কর্তৃপক্ষ। রামেক কর্তৃপক্ষ আরও জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের দুই ল্যাবে  ৪৭৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২০৬ জনকে শনাক্ত করা হয়। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৪৩.১৮%।

এদিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দফায় দফায় ওয়ার্ড ও শয্যা সংখ্যা বাড়ানোর পরেও উপচে পড়ছে রোগীর সংখ্যা। করোনা ইউনিটে ২০টি আইসিইউসহ শয্যা সংখ্যা রয়েছে ৩০৯টি। এরমধ্যে রোগী ভর্তি রয়েছে ৪০২ জন আর গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৬২ জন।

এদিকে রাজশাহী জেলা প্রশাসন ঘোষিত রাজশাহী মহানগরীতে চলমান সর্বাত্মক লকডাউন দ্বিতীয় দফায় আরও ৭ দিন বৃদ্ধি করে আগামী ২৪ তারিখ মধ্যরাত পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: আলফাডাঙ্গার পর এবার বোয়ালমারী ছাত্রলীগ কমিটিও কাঠগড়ায়

সোমবার (২১ জুন) জেলা প্রশাসনের ঘোষণা অনুযায়ী আজ সোমবার ১১ম দিনের মত চলছে রাজশাহী মহানগরীতে সর্বাত্মক লকডাউন চলছে। এ সর্বাত্মক লকডাউন পরিস্থিতি সবসময় পর্যবেক্ষণ করছে প্রশাসন। কিন্তু প্রশাসনের নজরদারি থাকলেও রাজশাহী নগরীর মানুষের মাঝে লকডাউন মানার প্রবণতা বেশ কিছুটা কমেছে। তারা মাস্ক ব্যবহার করলেও মানছেন না অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি। এ কারণ হিসেবে আর্থিক প্রতিষ্ঠান অর্থাৎ ব্যাংক-বীমা, কাঁচা বাজার খোলা রাখা ও আম পরিবহন ও বিপণনের জন্য বেশ কিছু মানুষকে বিভিন্ন সময়ে বাহিরে চলাচল করতে দেখা যাচ্ছে। ফলে বেড়েছে রিক্সা ও অটো রিক্সাসহ বেশ কিছু যানবাহন।

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর