channel 24

সর্বশেষ

  • কুষ্টিয়ায় ট্যাংকের বিষক্রিয়ায় ২ শ্রমিকের মৃত্যু

  • ফেনীতে মাদ্রাসাছাত্রীকে জবাই: চাচাতো ভাই আটক

  • সার্কভুক্ত দেশগুলোতে ব্যাপকহারে বাড়ছে আক্রান্ত ও প্রাণহানি

  • দেশে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির পেছনে দক্ষিণ আফ্রিকান ভ্যারিয়েন্ট

  • সাকিব-মোস্তাফিজকে ছাড়াই শুরু টাইগারদের অনুশীলন

  • রাজধানী ছাড়ছে মানুষ, দুই ঘাটে উপচেপড়া ভিড়

  • ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণে নষ্ট ১৫০ কোটি চিংড়ি পোনা

  • জুমাতুল বিদায় মসজিদে মুসল্লিদের ঢল

  • খুলে দেয়া হলো হলিডে মার্কেট

  • প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে উঠতে পারছেন না হতদরিদ্ররা

  • বিধিনিষেধের মধ্যেই রাজধানী ছাড়ছে মানুষ

  • করোনায় ভালো নেই মা হাজেরা ও তার পথশিশুরা

  • ধুঁকছে মানিকগঞ্জের হাসপাতালগুলো, বাড়ছে দুর্ভোগ

  • চারদিন পরে নিভল সুন্দরবনের আগুন

  • বাংলাদেশের দেয়া চিকিৎসা সামগ্রী উপহার গেল ভারতে

চিকিৎসক, যন্ত্রপাতিসহ নানা সংকটে শেরপুর সদর হাসপাতাল

চিকিৎসক, যন্ত্রপাতিসহ নানা সংকটে শেরপুর সদর হাসপাতাল

চিকিৎসক, যন্ত্রপাতিসহ নানা সংকটে শেরপুর জেলার স্বাস্থ্য খাত। সদর হাসপাতালে ৩৬ জন চিকিৎসক থাকার কথা থাকলেও আছেন মাত্র ১৯ জন। নেই রেডিওলজিস্ট ও প্যাথলজিস্ট। করোনার নমুনা সংগ্রহেও আছে ভোগান্তি। আইসিইউ নেই পুরো জেলায়।

দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট নিতে হচ্ছে সেবা প্রত্যাশীদের। আর টিকিট মিললেও চিকিৎসক পর্যন্ত যেতে লাগে আরও ২-৩ ঘণ্টা।
শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে এ চিত্র নিত্যদিনের। এ হাসপাতালে ৩৬ জন চিকিৎসক থাকার কথা থাকলেও আছেন মাত্র ১৯ জন। নেই রেডিওলজিস্ট ও প্যাথলজিস্ট।

এছাড়াও পঞ্চম তলার শিশু ওয়ার্ডের ৪ নম্বর কক্ষে চারটি ফ্যানের তিনটিই নষ্ট। বৈশাখের গরমে এই ভোগান্তি মাথায় নিয়েই ভর্তি রয়েছেন ৬ জন।

করোনার নমুনা সংগ্রহেও আছে ভোগান্তি। রোগীদের জন্য পঞ্চাশ শয্যা বরাদ্দ থাকলেও পর্যাপ্ত সেবা না পেয়ে থাকতে হচ্ছে হোম আইসোলেশনে। পুরো জেলায় নেই আইসিইউ। জনবল সংকটসহ নানা সমস্যার কথা স্বীকার করে মন্ত্রণালয়ে চাহিদা পাঠানোর কথা জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. একেএম আনোয়ারুর রউফ।

জেলার বাকি চার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৭৭জন চিকিৎসকের বিপরীতে আছেন মাত্র ৪২ জন। সংকট আছে অন্যান্য পদেও।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর