channel 24

সর্বশেষ

  • লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবি, ৩৩ বাংলাদেশি উদ্ধার

  • ন্যায়বিচার পাওয়ার আশ্বাস আইনমন্ত্রীর

  • কোয়ারেন্টিন শেষে অনুশীলনে সাকিব-মোস্তাফিজ

  • নরসিংদীর রায়পুরায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ৩

  • করোনাকালেও সোয়া দুই লাখ কোটি টাকার এডিপি!

  • খিলক্ষেত ফ্লাইওভারে ‘বন্দুকযুদ্ধে দুই ছিনতাইকারী’ নিহত

  • বাংলাদেশের ভ্যাক্সিন তৈরিতে কিউবা বা ইরানের মডেল ফলো

  • নেত্রকোনায় বজ্রপাতে ৭ জনের মৃত্যু

  • রোজিনার মুক্তি দাবি সাংবাদিক অধিকার সংগঠন সিপিজের

  • দপ্তর বদল করা হয়েছে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপসচিবের

  • করোনাভাইরাসে দেশে আরও ৩০ মৃত্যু

  • আমলার মামলায় কারাগারে সাংবাদিক রোজিনা

  • রাঙ্গামাটিতে প্রাণহানি রোধে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা চিহ্নিত প্রশাসনের

  • চট্টগ্রাম বন্দরে বাড়ছে কন্টেইনার খালাসের সংখ্যা

  • বান্দরবানে পাহাড়িদের ৭০ বসতঘর পুড়ে ছাই

'ক্ষুধা লাগলে খেয়ে যান'

'ক্ষুধা লাগলে খেয়ে যান'

'ক্ষুধা লাগলে খেয়ে যান' এমন প্রতিপাদ্যে যশোরে খোলা হয়েছে ফ্রি খাবার বাড়ি। পথ শিশু আর ভবঘুরে ব্যক্তিরা যখন ইচ্ছে, বিনাপয়সায় খেতে পারছেন এখানে। দুই মানবিক মানুষের হাত ধরে চলছে এই উদ্যোগ।

যশোরের মটর মিস্ত্রী মিজানুর রহমান মিজান। করোনা প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকে অসহায়দের খাবার দিচ্ছেন। সেই থেকে এখনও চলছে তার এই কার্যক্রম।

মিজানের এই কাজে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন একই এলাকার নার্সারি ব্যবসায়ী বাদল হোসেন। তার নার্সারিতেই খোলা হয় ফ্রি খাবার বাড়ি। 'ক্ষুধা লাগলে খেয়ে যান' এমন প্রতিপাদ্যেই চলছে তা।

পাশাপাশি যেখানেই দেখছেন অসহায় ও ক্ষুধার্ত মানুষ; সেখানেই পৌঁছে দিচ্ছেন খাবার। একই সাথে মাস্ক, গাছের চারা ও এতিমখানায় কোরআন শরীফ বিতরণসহ চালিয়ে যাচ্ছেন বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রম।

তাদের এমন কাজকে ইতিবাচক হিসেবেই দেখছেন অনেকে। অন্যদেরও এগিয়ে আসার আহবান স্থানীয়দের।

প্রতিদিন অন্তত ৮০ থেকে ১০০ জন খাবার খেতে আসেন ফ্রি খাবার বাড়িতে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর