channel 24

সর্বশেষ

  • বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ আয়োজনে মরিয়া শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট

  • দেশে কওমি শিক্ষার প্রসারে অবদান রাখেন আল্লামা শফি

  • নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন সভাপতি প্রার্থী বাদল রায়

  • মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু

  • আল্লামা শফী মারা গেছেন

  • মানিকগঞ্জে শ্রমিক জুলহাসকে পায়ুপথে বাতাস দিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা

  • বাঁশের চেয়ে কঞ্চি বড়!

  • নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নিহত ১

  • মাগুরায় দুই বাস-মাইক্রোবাসের ত্রিমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৪

  • রংপুরে একই বাড়ি থেকে দুই বোনের মরদেহ উদ্ধার

  • বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা সফর: বিসিবির চিঠির উত্তর দেয়নি এসএলসি

  • ক্রিকেটারদের দ্বিতীয় ধাপের করোনা পরীক্ষা শুরু

  • পচাত্তরের কুশীলবরা এখনো আশপাশে ওৎ পেতে আছে: শ ম রেজাউল

  • দেশে করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্য, শনাক্ত ১৫৪১

  • ইসরায়েলের সাথে আরব রাষ্ট্রের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার উদ্যোগের প্রতিবাদ

বাঁচানো গেলো না কুষ্টিয়ার গৃহবধূ তাসনীমকে

বাঁচানো গেলো না কুষ্টিয়ার গৃহবধূ তাসনীমকে

টানা দু'সপ্তাহ জীবন-মৃত্যুর সাথে লড়াই। শেষমেষ হার মানতেই হলো। না ফেরার দেশে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার গৃহবধূ তাসনীম আলম মিম্মা। ভোরে ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন মৃত্যু হয় তার। পরিবারের অভিযোগ, শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনই মিম্মাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছে। যদিও শ্বশুরবাড়ির লোকজন বলছে, সামান্য কথা কাটাকাটির কারণে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল সে।

সন্তানকে হারিয়ে কান্না জড়ানো কণ্ঠে মায়ের আর্তনাদ। শত চেষ্টার পরও যে বাঁচানো যায়নি নাড়ি ছেঁড়া ধনকে।

টানা দু'সপ্তাহ জীবন-মৃত্যুর সাথে লড়েছেন কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার গৃহবধূ তাসনীম মীম। শেষমেষ সোমবার ভোরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মৃত্যু হয় তার। এর আগে, গেল পয়লা সেপ্টেম্বর শ্বশুর বাড়ি থেকে গলায় গভীর দাগ নিয়ে মুমুর্ষ অবস্থায় ভর্তি করা হয় তাকে। পরিবারের অভিযোগ, মীমের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। শারিরীক ও মাননিসক নির্যাতনই তাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছে। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে বিচারের দাবি তাদের।

শ্বশুর বাড়ির লোকজনের দাবি, মীমের আত্নচিৎকারে তাকে মূমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কথা কাটাকাটির জেরেই আত্নহত্যার চেষ্টার চেষ্টা করেন তিনি।

অভিযোগ রয়েছে শুরুতে এ ঘটনায় পুলিশ ভুক্তভোগী পরিবারের কোনো কথাই শুনতে চায়নি। যদিও এখন বলছে, লিখিত অভিযোগ পেলে, নেয়া হবে আইনানুগ ব্যবস্থা।

ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত শেষে দোষীদের বিচার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর