channel 24

সর্বশেষ

  • বিদেশ যেতে হলে করোনার সার্টিফিকেট নিতে হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • ভুয়া ডাক্তার, নিষিদ্ধ ওষুধ ও লাইসেন্স না থাকায় এসএইচএস হাসপাতাল সিলগালা

  • রিজেন্ট-জেকেজির জালিয়াতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিবৃতি দায়সারা

  • টক-মিষ্টি স্বাদের লটকন

  • এখনো পাওনা এক টাকাও পায়নি ব্রাদার্স ইউনিয়ন ক্রিকেটাররা

  • কক্সবাজার সৈকতে ভাসছে বর্জ্য, মারা গেছে ২০টি কচ্ছপ

  • পাঁচ প্রতিষ্ঠানের করোনা নমুনা পরীক্ষা স্থগিত

  • ৩ বছর বন্ধের পর কক্সবাজারে পুনরায় শুরু হচ্ছে জন্মনিবন্ধন প্রক্রিয়া

  • সাবরিনা-আরিফ দম্পতির রূপকথার জীবনের নানা গল্প

  • খাগড়াছড়িতে সাবেক ছাত্রদল নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

  • চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে ছাত্রলীগের দু'গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ৭

  • স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডিজি আবুল কালাম আজাদকে শোকজ

  • এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীর দিন উপনির্বাচন পেছাতে ইসিতে জাপা

  • ডা. সাবরিনা জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট থেকে বরখাস্ত

  • জ্বর-সর্দি ও শ্বাসকষ্টে দেশের বিভিন্ন স্থানে ১০ জনের মৃত্যু

আম্পানে উপকূলীয় এলাকার বাঁধে ভাঙন, প্লাবিত নিম্নাঞ্চল

আম্পানে উপকূলীয় এলাকার বাঁধে ভাঙন, প্লাবিত নিম্নাঞ্চল

ঘূর্ণিঝড় আম্পানে দক্ষিণাঞ্চলের কয়েকটি এলাকায় ভেঙে গেছে বাঁধ। এতে পানি ঢুকে প্লাবিত হয়েছে নিম্নাঞ্চল। এছাড়াও ভেসে গেছে চিংড়ির ঘের। ডুবে গেছে ফসলের ক্ষেত। অনেক স্থানে সড়কে পানি থাকায় দুর্ভোগ বেড়েছে।

ভেঙেছে বাঁধ। হু হু করে লোকালয়ে ঢুকছে পানি। তলিয়ে যাচ্ছে ঘরবাড়ি, পথঘাট। ভেসে গেছে পুকুরের মাছ, চিংড়ির ঘের। প্রাকৃতিক দুর্যোগ এলেই এ যেন খুব পরিচিত দৃশ্য বাগেরহাটের শরণখোলার। সুপার সাইক্লোন আম্পানের তিনদিন কেটে গেলেও যেন দেখার কেউ নেই উপজেলার চারটি গ্রামের বাসিন্দাদের। পানিবন্দি হয়ে দিন কাটাতে হচ্ছে মানবেতর।

আম্পানে ক্ষতবিক্ষত উপকূলীয় জেলা পটুয়াখালীর বাঁধ। দুদিন ধরে কোমর সমান পানিতে তলিয়ে গেছে জেলার কলাপাড়া উপজেলা লালুয়া ইউনিয়ন। দুদিন আগেও যেখানে দিগন্তজোড়া মাঠে ছিলো সোনালী ফসল, এখন সেখানে টই টম্বুর নোনাপানি। এ চিত্র চারিপাড়া, বানাতি বাজারসহ ১৭টি গ্রামের। ডুবে গেছে বাড়ি ঘর, মসজিদ, স্কুল পথঘাটও।

উচ্চ পর্যায়ের সিদ্ধান্ত ছাড়া সমস্যার সমাধান সম্ভব নয় বলছেন প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তারা। আর বন্দর কর্তৃপক্ষের মন্তব্য করে দায় এড়ালেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি।

আম্পানে ভেঙে গেছে ঝালকাঠির বিষখালী নদী তীরের অরক্ষিত ৫ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ। এতে ডুবে গেছে ফসলি জমি, ঘরবাড়ি, পথঘাট। এছাড়া ক্ষতিগ্রস্ত ২৬ কিলোমিটার বাঁধের পুরোটাই নদী গর্ভে বিলীন হওয়ায় আশঙ্কা আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন নদী তিরের বাসিন্দারা।

বেড়িবাঁধ ভেঙে ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলায় নষ্ট হয়েছে ১২০০ হেক্টর জমির ফসল।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর