channel 24

সর্বশেষ

  • হাঁটুপানিতে ঈদের নামাজ আদায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্তদের

  • বৈশাখী টেলিভিশনের সিনিয়র সাংবাদিক অশোক চৌধুরী সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত

  • করোনা ভয় উপেক্ষা করেই সাবেক সংসদ সদস্য মকবুলের জানাজায় হাজারো মানুষ

  • খবর পেলেই করোনায় মৃতদের দাফন বা সৎকারে ছুটে যান কাউন্সিলর খোরশেদ

  • পবিত্র ঈদুল ফিতরে দুঃসময় কাটিয়ে সুদিন ফেরার প্রার্থনা

  • দেশে করোনায় আরও ২১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৯৭৫

  • কাজী নজরুল ইসলামের ১২১তম জন্মবার্ষিকী আজ

  • ঈদ আনন্দে বেদনার ছাপ; জামাতে মানা হয়নি শারীরিক দূরত্ব

  • ঈদেও কর্মব্যস্ত করোনার সম্মুখ যোদ্ধারা; স্বজনহারাদের হৃদয়ে বিষাদের সুর

  • ঈদের নামাজে সেজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু

  • বিশ্বজুড়ে অব্যাহত করোনায় মৃত্যুর মিছিল

  • করোনা প্রতিরোধে সরকারের কোনো সমন্বয় নেই: ফখরুল

  • আ.লীগের সাবেক এমপি হাজী মকবুলের দাফন সম্পন্ন

  • ভিন্ন এক প্রেক্ষাপটে এলো এবারের ঈদ

  • ৮ বছর পেরিয়ে নয়ে পা রাখলো চ্যানেল টোয়েন্টিফোর

তালিকা তৈরী করে ত্রাণ চাওয়ায় যুবককে মারধর করলেন চেয়ারম্যান

তালিকা তৈরী করে ত্রাণ চাওয়ায় যুবককে মারধর করলেন চেয়ারম্যান

কুমিল্লায় করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া এলাকার দুঃস্থ লোকদের জন্য তালিকা তৈরী করে ত্রাণ চাওয়ায় স্থানীয় চেয়ারম্যানের তোপের মুখে পড়েছেন জেলার দেবিদ্বার উপজেলার মাশিকাড়া গ্রামের আশেকে এলাহী নামে এক যুবক। পরে চারজন চৌকিদার পাঠিয়ে তাকে ডেকে নিয়ে মারধরসহ প্রায় ৪ ঘন্টা আটকে রাখার অভিযোগ ওঠেছে।

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার গুনাইঘর দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদে শনিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে ওই যুবককে চেয়ারম্যানের কক্ষে ডেকে নিয়ে হুমকী দেয়া, কক্ষে আটকে রাখার ভিডিও এবং পরে বন্দীদশা থেকে মুক্ত হয়ে ভুক্তভোগী আশেকে এলাহী রাতে ফেসবুক লাইভে পুরো ঘটনার আদ্যপান্ত বর্ননা করার কয়েকটি ভিডিও তার ব্যক্তিগত ফেসবুকে পোস্ট করেন। যা এরই মধ্যে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। তবে চেয়ারম্যান বলছেন- সবই তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র।

জানা যায়, জেলার দেবিদ্বার উপজেলার মাশিকারা গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে মো. আশেক এলাহী নামে এক যুবক নিজ উদ্যোগে শতাধিক লোকের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে। এরপর স্থানীয় আরও অসহায় লোকজন তার নিকট ত্রানের জন্য আসেন। এতে ওই যুবক তাদের ত্রাণ দিতে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল হাকিম খাঁনকে অনুরোধ জানিয়ে একটি তালিকা দেন। এতে ওই চেয়ারম্যান ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন।
ভুক্তভোগী আশেকে এলাহী জানান, তিনি ব্যক্তিগতভাবে স্থানীয় ১১০ জনকে কিছু ত্রাণ সামগ্রী দিয়েছেন। এক পর্যায়ে চেয়ারম্যান আমাকে বলে ‘আমি কি চেয়ারম্যান হমু নাকি, এমপি হমু নাকি। আমার এতো দরদ ক্যান।’ পরে এ বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে লেখালেখি করার অভিযোগ এনে শনিবার ৪ চৌকিদার দিয়ে তাকে তুলে নিতে চেয়ারম্যান আব্দুল হাকিম নির্দেশ দেন। দুপুর ১২টার দিকে ওই চেয়ারম্যান তার বাসায় চারজন চৌকিদার পাঠানোর পর সে বাড়ি থেকে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে যাওয়ার পর প্রথমে তিনি অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন। পরে তাকে আটকে রেখে মারধর করা হয়। এসময় স্থানীয়দের সহযোগিতায় এবং ফেসবুকে চেয়ারম্যানের পক্ষে ভিডিও বার্তা দেয়ার পর বিকাল চারটার দিকে তাকে সেখান থেকে ছেড়ে দেয়া হয় এবং হুমকী দেয়া হয়। ত্রাণ অনুদান চাওয়ায় তাকে মারধরের বিষয়টি জানান এলাকাবাসীও।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর